চট্টগ্রাম ব্যুরো    |    
প্রকাশ : ২০ আগস্ট, ২০১৬ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
চট্টগ্রামে এবিটির ৩ সদস্য গ্রেফতার
ধর্মান্তরিত জঙ্গি মুসয়াব তাদের প্রলুব্ধ করেছে
চট্টগ্রামে গ্রেফতার আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের তিন সদস্য -যুগান্তর

নগরীতে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের (এবিটি) সদস্য সন্দেহে তিনজনকে গ্রেফতার করেছে সিএমপির গোয়েন্দা পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হল- ফরহাদ আহম্মেদ ওরফে রিপন, ইমরান ও আহম্মদ হোসেন রনি ওরফে রুবেল। বৃহস্পতিবার রাতভর নগরী ও জেলায় অভিযান চালিয়ে পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে। এসময় তাদের কাছ থেকে ২টি ল্যাপটপ, ৩টি মোবাইলসহ জামায়াতের সাবেক আমীর মরহুম গোলাম আযমের লেখাসহ ১৩টি বই উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতার তিনজন পুলিশকে জানায়, সীতাকুণ্ড থানা পুলিশের হাতে গ্রেফতার হওয়া ধর্মান্তরিত জঙ্গি মুসয়াব ইবনে উমায়ের তাদের জঙ্গি কর্মকাণ্ডে প্রলুব্ধ করে আনসারউল্লাহ বাংলা টিমে অন্তর্ভুক্ত করেছে। উমায়েরসহ আনসারউল্লাহ বাংলা টিমের আরও কয়েক সদস্যের সঙ্গে তারা গোপন বৈঠক করেছে বলেও প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করেছে। দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি সৃষ্টির জন্য নিষিদ্ধ এ জঙ্গি সংগঠন কাজ করছে।

পুলিশ জানায়, গ্রেফতার এবিটি সদস্যেদের মধ্যে রুবেল ইসলামী ছাত্র শিবিরের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত। সে পটিয়া উপজেলার তেকোটা এলাকার তাজুর মুল্লুক চেয়ারম্যান বাড়ির আহম্মদ নবীর ছেলে। তার কাছ থেকেই এসব বই উদ্ধার করা হয়েছে। রুবেল শ্যামলী আইডিয়াল পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটে পঞ্চম সেমিস্টারের ছাত্র। তবে তিনি শিবিরের কোন পদে আছে তা জানাতে পারেনি পুলিশ। গ্রেফতার অপর দু’জনের মধ্যে রিপন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০০৭-০৮ সেশনের রসায়ন বিভাগের সাবেক ছাত্র। বর্তমানে তিনি এনালাইটিক্যাল কেমিস্ট হিসেবে কর্ণফুলী ইপিজেডের একটি প্রতিষ্ঠানে কর্মরত। ইমরান চট্টগ্রাম পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট থেকে ‘পাওয়ার টেকনোলজি’-তে ডিপ্লোমা সম্পন্ন করেছে। এবিটির তিন জঙ্গিকে পূর্বে পতেঙ্গা থানায় সন্ত্রাসবিরোধী আইনে করা মামলা নম্বর ০১(০৮)১৬ এ গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

গ্রেফতার তিনজনকে নিয়ে শুক্রবার দুপুর ১২টায় সিএমপির মিডিয়া সেন্টারের সামনে প্রেস ব্রিফিং করে পুলিশ। প্রেস ব্রিফিংয়ে সিএমপির ডিসি (ডিবি) বন্দর মারুফ হোসেন জানান, বৃহস্পতিবার রাতে প্রথমে রিপনকে ডবলমুরিং থানাধীন পাঠানটুলি এলাকার নিজ বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়। তার দেয়া স্বীকারোক্তিতে ইমরানকে কর্ণফুলী এলাকা এবং রুবেলকে পটিয়া উপজেলার নিজ বাসা থেকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার এবিটি সদস্যদের সঙ্গে আরও কারা কারা জড়িত রয়েছে তাদের পরিচয় জানতে আদালতে তাদের রিমান্ড চাওয়া হবে বলেও জানান তিনি। এর আগেও নগরীতে পৃথক অভিযানে এবিটির ৬ জনকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশ। তাদের কয়েক দফা রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদও করেছে পুলিশ। ৩১ জুলাই পতেঙ্গা এলাকা থেকে গ্রেফতার এবিটির পাঁচ সদস্য বৃহস্পতিবার রাতে গ্রেফতারকৃতদের সম্পর্কে তথ্য দিয়েছে বলেও পুলিশ জানিয়েছে।


 


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত