যুগান্তর রিপোর্ট    |    
প্রকাশ : ২১ আগস্ট, ২০১৬ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
নতুন প্লাটফর্ম ড. কামালের ‘জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া’
দেশের চলমান সংকট তথা সংবিধান ও আইনের নিরপেক্ষ প্রয়োগ নিশ্চিত করে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে দেশকে একটি দুর্নীতিমুক্ত ন্যায়নীতিভিত্তিক উন্নত, সমৃদ্ধ ও মর্যাদাবান রাষ্ট্রে পরিণত করতে ‘জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া’ নামে নতুন প্লাটফর্ম তৈরি হয়েছে। এটি কোনো রাজনৈতিক প্লাটফর্ম নয় দাবি করা হলেও এর সঙ্গে জড়িতদের বেশিরভাগই রাজনীতির মানুষ। নাগরিক সংলাপ আয়োজনের জন্য এই প্লাটফর্মে বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের সমন্বয়ে একটি আহ্বায়ক কমিটিও গঠন করা হয়েছে। সংবিধান প্রণেতা ও গণফোরামের সভাপতি ড. কামাল হোসেনকে আহ্বায়ক করে এই কমিটির সদস্য সচিব হিসেবে রয়েছেন আ ব ম মুস্তফা আমিন। সদস্যরা হলেন- অধ্যাপক অজয় রায়, প্রকৌশলী শেখ মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ, জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, মেজর (অব.) আবদুল মান্নান, এসএম আকরাম, সুলতান মোহম্মদ মনসুর আহমদ ও শহীদ ডা. মিলনের মা সেলিনা আকতার।
শনিবার বিকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে জাতীয় মৌলিক বিষয়ে নাগরিক সংলাপ অনুষ্ঠানের লক্ষ্যে সংগঠনটি সংবাদ সম্মেলন করে। এতে ড. কামাল হোসেন এবং জিএম কাদেরসহ অন্যরা উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, চলতি বছরের নভেম্বরে ঢাকায় সর্বস্তরের জনগণের অংশগ্রহণে একটি নাগরিক সংলাপের পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। বৃহত্তর জনগোষ্ঠীকে সম্পৃক্ত করার লক্ষ্যে রাজনৈতিক দল, শ্রেণী-পেশা, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, মানবাধিকার সংগঠনের প্রতিনিধি সমন্বয়ে একটি জাতীয় কমিটি গঠন করা হবে। জাতীয় মৌলিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করার লক্ষ্যে কি কি করা দরকার সে বিষয়ে ১৪টি পয়েন্টে নানা বিষয় উল্লেখ করা হয়- যা মূলত আমাদের সংবিধান থেকে নেয়া। জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া কেনো রাজনৈতিক দল নয় উল্লেখ করে ড. কামাল হোসেন বলেন, আমরা কোনো দল করার প্রত্যয় নিয়ে এখানে আসিনি। এসেছি ব্যক্তিগত পরিচয়ে। সংবিধানের ৭ অনুচ্ছেদে বিধৃত ‘প্রজাতন্ত্রের সকল ক্ষমতার মালিক জনগণ’-এর ওপর বারবার জোর দিয়ে ড. কামাল হোসেন বলেন, সংলাপ শুরু হয়ে গেছে এবং আপনাদের মতো জনগণই তা শুরু করেছে। এই রাষ্ট্রের মালিক জনগণ। জাতীয় মৌলিক বিষয়ে আলাপ-আলোচনা, তর্ক-বিতর্ক, বিচার-বিশ্লেষণ তথা সংলাপ অনুষ্ঠিত হওয়া ও পরিস্থিতি উত্তরণে করণীয় নির্ধারণ করায় জনগণই কথা বলবে। আমরা চাই দেশের যারা মালিক সেই জনগণ কথা বলবে। সংলাপে বিরোধী দল বা সরকারের অংশগ্রহণ থাকবে কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের উত্তরে ড. কামাল হোসেন বলেন, জনগণের কাতারে নেমে এসে এখানে যে কেউ কথা বলতে পারেন। তবে এজন্য আমরা কাউকে ডাকতে যাব না।
জিএম কাদের বলেন, বেসিক একটি পরিবর্তনের জন্য নাগরিক সমাজকে এক হয়ে কাজ করতে হবে। আমাদের সংবিধানে সব সুন্দরভাবে পরিচালিত আছে। কিন্তু কার্যক্রম চলছে উল্টো পথে। বিভিন্ন রাজনৈতিক প্রক্রিয়ায় বিভিন্ন সময়ে স্বাধীনতার পর থেকে সংবিধান বিকৃত থেকে বিকৃত করা হয়েছে। রাজনৈতিক দলগুলো কখনও দলীয় স্বার্থে, কখনও ব্যক্তিগত স্বার্থে ব্যবহার করেছে। তাই জনগণকে এখন এই ব্যাপারে সচেতন হয়ে এগিয়ে আসতে হবে।



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত