প্রকৃতি ও জীবন ডেস্ক    |    
প্রকাশ : ২২ জুলাই, ২০১৭ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
জেনে নিন
সর্বোচ্চে বিচরণকারী পাখি

আবর্জনাভুক পাখি হিসেবে শকুন পৃথিবীজুড়ে পরিচিত। কিন্তু মধ্য আফ্রিকার দেশগুলোতে বিচরণকারী রুপেল্স গ্রিফন শকুন পৃথিবীর সবচেয়ে উঁচুতে উড়ার জন্য বিখ্যাত। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ৩৭ হাজার ফুট পর্যন্ত উঁচুতে উড়তে পারে, যেখানে বাণিজ্যিক উড়োজাহাজগুলো ৩০ হাজার থেকে ৪০ হাজার ফুট উঁচুতে চলাচল করে। এত উঁচুতে চলাচলের জন্য রুপেল্স শকুনের কোনো সমস্যা হয় না। কারণ এদের রক্তে এক বিশেষ ধরনের হিমোগ্লোবিন আছে, যা অক্সিজেনজনিত সমস্যা থেকে রক্ষা করে। এরা ঘণ্টায় প্রায় ২২ মাইল বেগে উড়ে চলে এবং একটানা প্রায় ১ ঘণ্টা শূন্যে অবস্থান করতে পারে। রুপেল্স গ্রিফন শকুন প্রখর দৃষ্টিসম্পন্ন। এত উঁচুতে উড়েও মৃতদেহ শনাক্ত করতে পারে। এরা খাবার সন্ধানে প্রতিদিন প্রায় ৬ থেকে ৭ ঘণ্টা উড়ে বেড়ায়। খাবার খাওয়ার মাধ্যমে মানবস্বাস্থ্যের ক্ষতিকর এনথ্রাক্স, বটুলিজম ও কলেরার জীবাণু হজম করে। প্রজননকালে পাহাড়ের চূড়ায় খোলা জায়গায় ঘাস, লতা-পাতা, ডাল-পালা দিয়ে পাটাতনের মতো বাসা তৈরি করে। কখনও গাছেও বাসা তৈরি করে এবং ডিম পাড়ে। একটি স্ত্রী শকুন বছরে একটি মাত্র ডিম দেয়। প্রায় ৫৫ দিন পর ডিম ফুটে বাচ্চা বের হয়। এদের গড় আয়ু ৪০ থেকে ৫০ বছর।


 


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত