ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি    |    
প্রকাশ : ১৬ জুলাই, ২০১৭ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
চিত্রা এক্সপ্রেস দুর্ঘটনা
রাজশাহী ও খুলনার সঙ্গে ঢাকার রেল যোগাযোগ বন্ধ
উদ্ধার করতে গিয়ে রিলিফ ট্রেনও লাইনচ্যুত
আন্তঃনগর চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনের ইঞ্জিনসহ লাইনচ্যুত তিনটি কোচ উদ্ধারের কাজ করতে গিয়ে রিলিফ ট্রেনও লাইনচ্যুত হয়েছে। শনিবার সন্ধ্যায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত উদ্ধার তৎপরতা শেষ হয়নি। ফলে উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলের সঙ্গে ঢাকার ট্রেন যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে আছে। ট্রেন চালু হতে কত সময় লাগবে, তা কর্তৃপক্ষ জানাতে না পারায় দুই ঘণ্টা পর ট্রেনের সব যাত্রী যার যার মতো গন্তব্যে অথবা বাড়ি ফিরে গেছেন। বিভিন্ন রুটের শত শত যাত্রী মাঝপথে আটকা পড়ে দুর্ভোগের সম্মুখীন হয়েছেন।
খুলনা থেকে ঢাকা অভিমুখী আন্তঃনগর চিত্রা এক্সপ্রেস ট্রেনটি মুলাডুলি স্টেশনের কাছে লাইনচ্যুত হয়। ফলে ঢাকার সঙ্গে খুলনা, রাজশাহী, দিনাজপুর, রংপুরের ট্রেন যোগাযোগ বন্ধ রয়েছে বলে জানিয়েছেন রেলওয়ের পাকশী বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা শওকত জামিল মহসি। শনিবার দুপুর সোয়া ১টায় ঈশ্বরদী স্টেশন থেকে ছেড়ে যাওয়ার কিছুক্ষণ পর মুলাডুলি স্টেশনের পরে ট্রেন ইঞ্জিনসহ তিনটি কোচ লাইনচ্যুত হয়।
এ ট্রেনের যাত্রী পাকশী রেলওয়ে শ্রমিক লীগের সম্পাদক নজরুল ইসলাম জানান, ট্রেনটি মুলাডুলি স্টেশন পার হওয়ার পর ক্রসিংয়ের কাছে ব্রেক করলে তা কাজ করেনি বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ সময় ইঞ্জিনে ধোঁয়া উদ্গিরণ হতে দেখা গেছে। উদ্ধার কাজ শেষ হওয়ার অনিশ্চয়তার কারণে অধিকাংশ যাত্রী যার যার গন্তব্যে বা বাড়িতে অটোরিকশা, অটোবাইক, রিকশা, ভ্যান প্রভৃতি বাহনে চলে গেছেন।
রিলিফ ট্রেন ঘটনাস্থলে পেঁৗঁছে উদ্ধার কাজ পরিচালনা করছে। যাত্রীরা অনেকটা অস্থিরতার মধ্যে দুই ঘণ্টারও বেশি সময় পার করেছেন। এরপর তারা চলে গেছেন। মুলাডুলিতে স্টপেজ না থাকলেও ট্রেনের গতি কম ছিল। ফলে এ দুর্ঘটনায় কোনো আহত হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি। ট্রেনটি স্বাভাবিক করে আবার ছাড়তে কত সময় লাগবে, বলা সম্ভব নয় বলে জানিয়েছেন একজন রেল কর্মকর্তা। দুর্ঘটনার কারণ অনুসন্ধানে বিভাগীয় রেলওয়ে পরিবহন কর্মকর্তা শওকত জামিল মহসিকে আহ্বায়ক করে চার সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত