গাইবান্ধা প্রতিনিধি    |    
প্রকাশ : ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
বখাটের হাতে লাঞ্ছিত
সাদুল্যাপুরে অপমানে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা
এক সহযোগীসহ গ্রেফতার ৩
গাইবান্ধার সাদুল্যাপুরে বখাটের হাতে লাঞ্ছিত হয়ে ক্ষোভে, দুঃখে ও অপমানে এক স্কুলছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। মাদারহাট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থী নিহত আয়শা সিদ্দিকা ওরফে মিষ্টি (১৪) গ্রামের মোস্তা মিয়ার মেয়ে। মঙ্গলবার রাতে উপজেলায় ইদিলপুর ইউনিয়নের চক দুর্গাপুর গ্রামে হৃদয়বিদারক এ ঘটনা ঘটে।
এ ঘটনার পর বখাটে সোহেল মিয়ার (২০) সহযোগী আশরাফুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আশরাফুল একই গ্রামের নুরুল ইসলাম বুদা মিয়ার ছেলে ও মাদারহাট উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর শিক্ষার্থী। প্রধান আসামি সোহেলসহ অপর বখাটে পলাতক রয়েছে। সোহেল পাশের মাদারহাট (জুগিবাড়ি) গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে। বুধবার ভোরে সোহেলের বাবা নুরুল ইসলাম সরকার (৫৯) ও তার বড় ভাই রাসেল সরকারকে (২৩) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় মিষ্টির বাবা মোস্তা মিয়া বাদী হয়ে ৬ জনকে আসামি করে সাদুল্যাপুর থানায় একটি মামলা করেছেন। বখাটে সোহেল ও তার অপর সহযোগীকে গ্রেফতার করতে না পারায় এলাকার মানুষ, সহপাঠী, শিক্ষকরা বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছেন। তারা অভিযুক্ত বখাটেদের অবিলম্বে গ্রেফতার ও তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছে। সাদুল্যাপুর থানার ওসি ইমরুল কায়েস জানান, বখাটে সোহেল স্কুলে যাওয়ার পথে আয়শা সিদ্দিকা মিষ্টিকে দুই বছর ধরে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। এ নিয়ে এলাকায় ও বিদ্যালয়ে একাধিকবার সালিশ বৈঠকও হয়েছে। ঘটনার দিন মঙ্গলবার বিকালে আয়শা সিদ্দিকা স্কুল ছুটির পর সহপাঠীদের সঙ্গে বাড়ি ফিরছিল। পথে সোহেল তার ২ সহযোগীসহ বিকাল সাড়ে ৪টায় মাদারহাট খেয়াঘাট ব্রিজ এলাকায় অপেক্ষা করছিল। মিষ্টি ও অন্য ছাত্রীরা ব্রিজ এলাকায় এসে পৌঁছলে সোহেল ও তার সহযোগীরা তাদের পথরোধ করে। এ সময় সোহেল মিষ্টির পথ আটকে প্রেমের প্রস্তাব দেয়। কিন্তু মিষ্টি তার প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় সোহেল তার গালে থাপ্পড় মারে এবং শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে। এ সময় সোহেল মিষ্টিকে তুলে নিয়ে যাওয়ার হুমকি দেয়। এ ঘটনায় মিষ্টির সহযোগীরা চিৎকার করে আশপাশের লোকজনকে ডাকলে পালিয়ে যায় বখাটেরা। ওই ঘটনায় মিষ্টি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে। সে বাড়িতে এসে কাউকে কিছু না বলে নিজের ঘরে গিয়ে দরজা বন্ধ করে দেয় এবং এক সময় বিষপানে আত্মহত্যা করে। পরে বাড়ির লোকজন দরজা খুলে মিষ্টিকে মৃত অবস্থায় দেখতে পায়। এ ঘটনা জানার পর পুলিশ রাতেই বখাটে সোহেলের সহযোগী আশরাফুল ইসলামকে আটক করেছে।



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত