আমতলী প্রতিনিধি    |    
প্রকাশ : ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীর সারা শরীরে সুঁইয়ের ফোঁড়া
গা-ঢাকা দিয়েছে স্বামী
বরগুনার আমতলীতে যৌতুক না পেয়ে ঘরে দু’দিন আটকে রেখে স্ত্রীকে অমানসিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে স্বামীর বিরুদ্ধে। স্ত্রীর সারা শরীরে সুঁই দিয়ে ফোঁড়া দিয়েছে পাষণ্ড স্বামী। আমতলীর সেকান্দারখালী গ্রামে নির্মম এ ঘটনা ঘটে। নির্যাতনের শিকার নারীকে মঙ্গলবার রাতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। অসহ্য যন্ত্রণা নিয়ে নির্যাতিতা এখন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের বেডে কাতরাচ্ছেন। ঘটনার পর স্বামী গা-ঢাকা দিয়েছে।
জানা যায়, ২০১৫ সালের ১৫ মে আমতলীর খুড়িয়ার খেয়াঘাট গ্রামের মৃত তোফাজ্জেল হাওলাদারের মেয়ে রিপার (২০) সঙ্গে সেকান্দারখালী গ্রামের হারুন হাওলাদারের ছেলে হানিফ হাওলাদারের বিয়ে হয়। বিয়ের সময় চাহিদামত গলার চেইন, কানের জিনিস ও প্রয়োজনীয় আসবাবপত্র দেয়া হয়। এক বছর পরে তাদের কোলজুড়ে আসে ছেলে সন্তান হাবিবুর রহমান (৪ মাস)। সন্তান হওয়ার পরে যৌতুকলোভী স্বামী হানিফ স্ত্রী রিপার ওপর নির্যাতন শুরু করে। ব্যবসা করবে বলে ২ মাস আগে রিপাকে তার বাবার বাড়ি থেকে ৫০ হাজার টাকা যৌতুক এনে দিতে বলে হানিফ। বাবাহারা রিপা মা-ভাইদের কাছ থেকে চাহিদামত টাকা এনে দেন। গত শুক্রবার হানিফ আবার স্ত্রীকে ২ লাখ টাকা এনে দিতে বলেন। রিপা এ টাকা দিতে অস্বীকার করে। এতে ক্ষিপ্ত হয় হানিফ। রোববার রাত সাড়ে ৯টার দিকে রিপার দু’হাত-পা রশি ও মুখমণ্ডল ওড়না দিয়ে বেঁধে ঘরের আঁড়ার সঙ্গে ঝুলিয়ে সুপারি গাছের চেরা দিয়ে পেটাতে থাকে। আধাঘণ্টা চলে এভাবে নির্যাতন। এরপর আঁড়া থেকে মাটিতে নামিয়ে আবার পেটানো হয় রুপাকে। এক পর্যায় সেলাই করা সুই দিয়ে রিপার সারা শরীরের ফোঁড়া দেয় হানিফ। নির্যাতনের এক পর্যায়ে রিপা জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। দু’ঘণ্টা পরে জ্ঞান ফিরে এলে হানিফ প্লাস দিয়ে রিপার হাত ও পায়ের নখে চাপ দেয়। এভাবে রাতভর চলে নির্যাতন। সোমবার বিকালে প্রতিবেশীর মাধ্যমে খবর পেয়ে রিপার মা রিনা বেগম জামাই বাড়িতে যান। অবস্থা আশঙ্কাজনক দেখে তিনি মেয়েকে নিজের বাড়িতে নিয়ে যেতে চাইলেও জামাতা হানিফ বাধা দেয়।



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত