কক্সবাজার ও টেকনাফ প্রতিনিধি    |    
প্রকাশ : ১৩ অক্টোবর, ২০১৭ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
শাহপরীর দ্বীপ সীমান্ত দিয়ে এসেছে আরও ৬ শতাধিক রোহিঙ্গা
মিয়ানমারে চলছে রোহিঙ্গাদের বন্দিদশা জীবন। আর এ জীবন থেকে মুক্তি পেতে আবারও বাংলাদেশে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশের ঢল নেমেছে। টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপ সীমান্ত দিয়ে বৃহস্পতিবার ১৬০ পরিবারের ৬ শতাধিক রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে। পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের হারিয়াখালী ভাঙ্গা এলাকায় দায়িত্বরত সেনাবাহিনীর সহায়তায় উখিয়ার বালুখালী ও কুতুপালং রোহিঙ্গা শিবিরে পাঠানো হয়েছে। বুধবার এ সীমান্ত দিয়ে এসেছিল ৩ শতাধিক রোহিঙ্গা।
হারিয়াখালী ভাঙ্গা এলাকায় আগত রোহিঙ্গাদের সংখ্যা গণনায় দায়িত্বরত আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার (আইওএম) কর্মী জসিম উদ্দিন উপরোক্ত তথ্য জানান। এছাড়া অক্টোবরের শুরু থেকে শাহপরীর দ্বীপ সীমান্ত দিয়ে প্রতিদিন গড়ে এক হাজারের ওপর রোহিঙ্গার অনুপ্রবেশ ঘটেছে বলে জানান তিনি। সে তুলনায় গত দু’দিনে এ সীমান্ত দিয়ে রোহিঙ্গাদের আসার পরিমাণ কিছুটা কম ছিল।
বেঁচে থাকার তাগিদে রোহিঙ্গা এ দেশে আসতে বাধ্য হচ্ছে বলে জানালেন বুচিডং এলাকার মৌলভী জমির উদ্দিন। তিনি মিয়ানমার ছেড়েছেন ৫ দিন আগে। বৃহস্পতিবার সকালে পৌঁছেছেন উখিয়ার বালুখালীতে। এখনও কোনো ক্যাম্পে স্থান হয়নি তার। কথা হয় রাস্তার ধারে আশ্রয় নেয়া অবস্থায়।
মৌলভী জমির বলেন, দেশের মায়া সবার আছে। আর আমরা সেই দেশের খুবই সচ্ছল পরিবারের মানুষ। টাকা-পয়সা, ধনদৌলত সবই আছে। তাই যেভাবে পারছি এতদিন ম্যানেজ করে ছিলাম। কিন্তু বর্তমানে ভাতে-পানিতে মারছে মিয়ানমার সেনা ও উগ্র রাখাইনরা। ঘর থেকে বের হওয়ার কোনো সুযোগ নেই। বের হলেই গুলি। তাই জীবনের মায়া ছাড়তে না পেরে বাঁচার তাগিদে পালিয়ে এসেছি এ দেশে।
মিয়ানমার থেকে পালিয়ে এসে বৃহস্পতিবার সকালে ধামনখালী সীমান্তে আশ্রয় নেয়া মো. আবুল কাশেম বলেন, বর্তমানে যারা মিয়ানমারের বুচিডং ও রাচিডং থানা এলাকাসহ আশপাশ এলাকায় রয়েছেন তাদের ঘর থেকে বের হয়ে পানি খাওয়ারও সুযোগ নেই। কারণ দেখলেই গুলি। অনাহারে অর্ধহারে প্রতিনিয়িত মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছে শত শত রোহিঙ্গা শিশুসহ নানান বয়সের মানুষ। বলতে গেলে উল্লিখিত দুই থানার সব গ্রাম এখন রোহিঙ্গাশূন্য।
উখিয়া উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সেনা ও উগ্র রাখাইনদের নির্যাতনের মুখে আটকা পড়ে চরম খাদ্যাভাবের সম্মুখীন হয়ে ফের বাংলাদেশ অভিমুখে রোহিঙ্গা আগমনের ঢল ব্যাপকহারে বেড়ে গেছে।
কক্সবাজার-৩৪ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল মনজুরুল হাসান খান বলেন, আমাদের হিসাব মতে গত ৩-৪ দিনে ১১ হাজারের অধিক রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে। তবে সাধারণ লোকজন ও প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে গত এক সপ্তাহে প্রায় ৭০ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশে ঢুকেছে।



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত