প্রকাশ : ২৩ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
আন্তর্জাতিক পুরস্কারে ভূষিত বাল্যবিয়ে বন্ধে বাংলাদেশের ক্যাম্পেইন
সম্প্রতি ‘অ্যাকোলেড গ্লোবাল ফিল্ম কম্পিটিশন’-এ পুরস্কৃত হয়েছে বাল্যবিয়ে বন্ধে বাংলাদেশের দুটি পাবলিক সার্ভিস অ্যানাউন্সমেন্ট (পিএসএ)। ২০১৭ সালে প্রচারিত ‘বাল্যবিয়ে রুখতে হলে, আওয়াজ তোলো তালে তালে’ স্লোগানের ‘ঢোল’ ক্যাম্পেইনটি ‘ন্যাশনাল মাল্টিমিডিয়া ইনিশিয়েটিভ ফর এন্ডিং চাইল্ড ম্যারেইজ’-এর অংশ। যা তৈরি হয়েছে মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়, তথ্য মন্ত্রণালয়, ইউনিসেফ, ইউএএফপিএ এবং অন্যান্য উন্নয়ন সহযোগীদের যৌথ উদ্যোগে। বাংলাদেশে বাল্যবিয়ের হার (৫২%, এমআইসিএস ২০১৩) বিশ্বের অন্যতম সর্বোচ্চ। যদিও এই সংখ্যা ধীরে ধীরে কমছে। তবুও দেশের অসংখ্য অঞ্চলে বাল্যবিয়ে এখনও সামাজিকভাবে স্বীকৃত। এর পেছনে প্রধান কারণ দরিদ্রতা, মেয়েদের নিরাপত্তা এবং সামাজিক রীতি। বাল্যবিয়ে গ্রহণযোগ্য নয় এবং বাল্যবিয়ে রুখতে প্রত্যেকেরই দায়িত্ব আছে- ‘ঢোল’ ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে এ সচেতনতাই তৈরি করা হয়েছে। সাধারণ মানুষকে নিজ অবস্থান থেকে বাল্যবিয়ে বন্ধের জন্য দায়িত্বশীল করে তোলাই ছিল ক্যাম্পেইনটির লক্ষ্য।
২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশে বাল্যবিয়ে সম্পূর্ণ বন্ধের লক্ষ্য পূরণে দেশে প্রচলিত বর্তমান সামাজিক রীতি পরিবর্তনে ইউনিসেফ বাংলাদেশ সরকারকে সহযোগিতা করে যাচ্ছে। পুরস্কারপ্রাপ্ত পিএসএ দুটি এশিয়াটিক মার্কেটিং কমিউনিকেশন্স লিমিটেডের ক্রিয়েটিভ ডিরেকশনে নির্মিত হয়েছে। পাবলিক সার্ভিস অ্যানাউন্সমেন্ট এবং কন্টেম্পরারি ইস্যুস/অ্যাওয়ারনেস রেইজিং- এই দুই ক্যাটাগরিতে পিএসএ দুটিকে পুরস্কৃত করা হয়। পিএসএগুলো এই লিংকে পাওয়া যাবে : [https://ww w.unicef.org/ bangladesh/media-10376.html] সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত