ইতালি প্রতিনিধি    |    
প্রকাশ : ২৬ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
ইতালিতে প্রবাসী বাংলাদেশিদের ওপর বর্ণবাদী হামলা
ইতালির রোমে বর্ণবাদীদের হামলায় একের পর এক প্রবাসী বাংলাদেশিরা গুরুতর আহত হচ্ছেন। বেধড়ক মারপিট করা হচ্ছে তাদের। ফয়সাল সরদার (৪০) নামে এক বাংলাদেশিকে বর্ণবাদীদের একটি গ্রুপ বেধড়ক মারপিট করে রাস্তায় ফেলে যায়। সম্প্রতি বাংলাদেশি অধ্যুষিত এলাকা তরপিনাত্তারার নিকটবর্তী আকোয়া বুলিকান্তে এ হামলার ঘটনা ঘটে। ফয়সালের বাড়ি বাংলাদেশের গোপালগঞ্জে। স্থানীয় সময় রাত ২টায় আকোয়া বুলিকান্তের রাস্তায় এ ঘটনা ঘটে। তাকে হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেয়া হয়। আহত ফয়সাল কর্মস্থল থেকে বাসায় ফিরছিলেন। বাসার খুব কাছে পৌঁছতেই কিছু বুঝে ওঠার আগেই চার দুর্বৃত্ত পেছন থেকে এলোপাতাড়ি লাঠিপেটা করতে থাকে। তাকে রক্তাক্ত করার পর ব্যাগ ছিনিয়ে নিয়ে পালিয়ে যায়। হাসপাতালে তার মাথায় ১২টি সেলাই দিতে হয়। বাংলাদেশ সমিতির সাবেক সভাপতি নূরে আলম সিদ্দিকী বাচ্চু জানান, গত তিন বছর ধরে বাংলাদেশিদের ওপর অকারণে হামলা চালানো হচ্ছে। বর্ণবাদী ওই গ্রুপের নাম বাংলা ট্যুর। এর অর্থ হল যেখানে বাঙালি পাও সেখানেই পিটাও। এদের ৪০ জনের একটি গ্রুপ আছে। যাদের বয়স ১৬ থেকে ২২ বছরের মধ্যে। এ গ্রুপটি বাংলাদেশিদের দেখলে বেধড়ক মারপিট করে পালিয়ে যায়। পুলিশের বিশেষ বাহিনীর রিপোর্ট অনুযায়ী বর্ণবাদী গ্রুপ এ পর্যন্ত ৪২টি ঘটনা ঘটিয়েছে। দেড় মাস আগে পুলিশের বিশেষ বাহিনী এ সংক্রান্ত ৪শ’ পৃষ্ঠার একটি রিপোর্ট কোর্টে জমা দেয়। তিনি আরও জানান, বাঙালিদের টার্গেট করেছে বর্ণবাদীরা। তিনি দুঃখ প্রকাশ করে বলেন, বাংলাদেশ সমিতি ও সামাজিক সংগঠন ইল ধূমকেতুর পক্ষ থেকে আন্দোলনের মাধ্যমে প্রতিবাদ জানিয়ে আসছি। কিন্তু আমাদের সংগঠন যখন প্রতিবাদ জানাতে আন্দোলনের ডাক দেয় তখন বাঙালিদের উপস্থিতি কম হওয়ায় প্রশাসন দ্রুত ব্যবস্থা নিতে ভুলে যায়। এরকম চুপ থাকলে বাঙালিদের ওপর হামলা বৃদ্ধির আশঙ্কা রয়েছে। উল্লেখ্য, গত দুই সপ্তাহে ফয়সাল, কার্তিকসহ কয়েকজনকে বর্ণবাদীরা মারপিট করে আহত করেছে।



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত