বগুড়া ব্যুরো    |    
প্রকাশ : ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৭ ২০:৪৩:০৬ প্রিন্ট
সেই ভারতীয় ভিক্ষুকের বিরুদ্ধে মামলা
বগুড়ার শেরপুর থানা হাজতে ২৮ দিন বন্দি থাকা ভারতীয় ভিক্ষুক রাম সিংহের (৬০) বিরুদ্ধে অবশেষে মামলা হয়েছে।
 
বুধবার শেরপুর থানার এসআই পুতুল মোহন্ত তার বিরুদ্ধে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশের কারণে এ মামলা করেন।
 
বৃহস্পতিবার তাকে বগুড়া জেলহাজতে পাঠানো হবে।
 
মামলা ছাড়া তাকে এতদিন কেন থানায় বন্দি রাখা হলো এমন প্রশ্নের উত্তরে পরিদর্শক (তদন্ত) বুলবুল ইসলাম জানান, ভারতীয় হাইকমিশন তাকে ফিরিয়ে নিতে চেয়েছিল। শনাক্ত করতে না পারায় তারা অস্বীকার করেছে। তাই এতদিন তাকে থানায় পুলিশের হেফাজতে রাখা হয়েছে।
 
শেরপুর থানার এসআই পুতুল মোহন্ত জানান, পেশায় ভিক্ষুক রাম সিংহ ভারতের উত্তর প্রদেশের বিহার রাজ্যের গৌরবপুর এলাকার বুইদ্ধ্যা সিংহের ছেলে। মায়ের নাম মংলু সিংহ। ভিক্ষা করতে করতে তিনি সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করেন। এরপর গাড়িতে বগুড়ার শেরপুরের ধুনট মোড়ে আসেন। তবে তিনি কবে বাংলাদেশে ঢুকেছেন তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।
 
গত ২৯ নভেম্বর দুপুরে তিনি শেরপুরের শুবলী গ্রামে ভিক্ষা করছিলেন। এ সময় ‘রোহিঙ্গা’ সন্দেহে জনগণ তাকে আটক করে থানায় খবর দেন। পরে তাকে থানায় আনা হয়। তার ভাষা বুঝতে স্থানীয় এক সাঁওতালের সহায়তা নিতে হয়েছে।
 
বুধবার দুপুরে শেরপুর থানায় রাম সিংহকে ক্যাম্পাসে বসে থাকতে দেখা যায়। সুবোধ চন্দ্র শীল নামে এক নাপিত তার মাথার চুল ও দাঁড়ি ছেটে দেন। তিনি গোসলও করেছেন। এ সময় তাকে ফুরফুরে মেজাজে দেখা যাচ্ছিল।
 
শেরপুর থানার ওসি খান মো. এরফান জানান, ভারতীয় হাই কমিশনের কর্মকর্তারা রাম সিংহকে তাদের দেশে ফিরিয়ে নেয়ার আশ্বাস দিয়েছিলেন। শেষ পর্যন্ত তারা তাকে শনাক্ত করতে পারেননি। তাই তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত