• মঙ্গলবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২০
যুগান্তর ডেস্ক    |    
প্রকাশ : ০৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১০:১৩:৫৬ প্রিন্ট
ক্যামেরা থেকে সাবধান

দৃশ্যমান স্থির বা গতিশীল ঘটনা ধরে রাখার জন্য ক্যামেরার জুড়ি নেই।কোথায় নেই ক্যামেরার ব্যবহার।আপনার হাতের মোবাইল ফোন থেকে শুরু করে বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ডিভাইজে সংযুক্ত করা হয়েছে ক্যামেরা। চশমা, ঘড়ি, কলম, কোমরের বেল্ট এমনকি মাথার টুপিতেও রয়েছে গোপন ক্যামেরার ব্যবহার।তবে বর্তমানে ক্যামেরার অপব্যহারও কিন্তু কম নয়।তাই গোপন ক্যামেরা থেকে সাবধান হতে হবে আপনাকে।

লুকানো ক্যামেরায় ছবি তোলাসংক্রান্ত অপরাধের প্রবণতা বাড়ছে। মানুষ নিজের অজান্তেই অশ্লীলভাবে ক্যামেরাবন্দি হচ্ছে।তাই ঘর থেকে বের হলেই আপনাকে সাবধান থাকতে হবে।

পুলিশ এবং সাইবার অপরাধ বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নিত্যনতুন প্রযুক্তির হাত ধরে নিয়মবহির্ভূত বা লুকানো ক্যামেরায় ছবি তোলাসংক্রান্ত অপরাধের প্রবণতা বাড়ছে। লুকানো ক্যামেরার ক্ষেত্রে ইনফ্রা রেড প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়, যা দিয়ে অন্ধকারেও ছবি তোলা যায়।

১. ট্রায়াল রুম :
মার্কেটে গেলে অনেকে ট্রায়াল রুমে পোশাকের মাপ দেখেন। শরীরে পরেন এক্ষেত্রে আপনাকে সাবধান হতে হবে।খুব বেশি প্রয়োজন না হলে ট্রায়াল রুম এড়িয়ে চলুন।

২. শৌচাগার :
বাইরের শৌচাগার ব্যবহারের ক্ষেত্রেও আপনাকে সচেতন থাকতে হবে। শুধু ট্রায়াল রুম নয়, শপিং মল, দোকান বা রেস্তোরাঁর শৌচাগার ব্যবহার করলেও এভাবে সচেতন হওয়া জরুরি। কারণ এখানেও থাকতে পারে গোপন ক্যামেরার ফাঁদ।

৩. চলাফেরায় সাবধানতা :
বাসা থেকে বের হয়ে রাস্তায় চলার সময় আপনাকে সাবধানতা অবলম্বন করতে হবে। চারপাশ ভালোভাবে খেয়াল রাখুন।কেউ আপনাকে ক্যামেরাবন্দি করছে কি না খেয়াল রাখুন।

৪. সাইবার ক্যাফ:
বর্তমান টিনেজারদের মাঝে সাইবার ক্যাফেতে বসে মেইক-আউট করার প্রবণতাও দেখা যায়। অনেক সাইবার ক্যাফের লোকেরা সেখানে গোপন ক্যামেরা বসিয়ে রাখেন এবং অন্তরঙ্গ মুহূর্তগুলো ধারণ করে ওয়েব-সাইটে ছেড়ে দেয় কিংবা ব্ল্যাকমেইলিংয়ের হিসেবে ব্যবহার করে। তাই টিনেজারদের এই ব্যাপারে খুবই সচেতন থাকা উচিত।

৫. পার্ক কিংবা রেস্টুরেন্ট:
পার্ক কিংবা রেস্টুরেন্টে নিজেদের সংযত রাখা এবং নিজের পোশাক ঠিক আছে কিনা -সেইদিকে খেয়াল রাখা। অপরিচিত কাউকে ছবি তুলতে দেওয়া উচিত না।

৬. ফেসবুক : ফেসবুকে নিজের ছবিগুলো সঠিকভাবে প্রাইভেসি দিয়ে সংরক্ষণ করা উচিত।কারণ ফেসবুকের ছবি দিয়েও হতে পারে ভয়াবহ বিপদ।

৭. হিডেন ক্যামেরা :
জিমের ভেতরে বিভিন্ন জায়গায় এবং ইন্সট্রুমেন্ট ব্যবহারের আগে সঠিকভাবে চেক করে নেয়া উচিত। আশপাশে পরে থাকা জিম ব্যাগগুলো চেক করে নিলে ভালো হয়। কারণ আজকাল জিম ব্যাগ নামক হিডেন ক্যামেরা বাজারে এসেছে। এতে অতি ক্ষুদ্র ক্যামেরা লাগানো থাকে।

৮. হোটেল:
হোটেলে ক্যামেরা ব্যবহার ভয়ভহ আকার ধারণ করেছে।কিছু কিছু হোটেলে ডুয়েল মিরর বসানো থাকে। ডুয়েল মিররের উল্টো পাশ থেকে আয়নার এপাশের সবকিছুই পরিষ্কার দেখা যায় সাধারণ কাঁচের মতো। কিন্তু এপাশ থেকে দেখলে এটাকে একটা সাধারণ আয়না ছাড়া কিছুই মনে হবে না। অনেক গেস্ট হাউসে এই ডুয়েল মিররের উল্টোপাশে ক্যামেরা বসিয়ে কাপলদের ক্লিপ রেকর্ড করা হয়। তাই হোটলে বা গেস্ট হাউসে থাকা আয়নাগুলো সঠিকভাবে চেক করে নেয়া উচিত।

৯. চশমা, হাতঘড়ি, কলম :
চশমা, হাতঘড়ি ও কলমের মাঝেও থাকতে পারে ক্যামেরা। তাই এক্ষেত্রে আপনাকে সচেতন থাকতে হবে।

১০ . ফুলের মাঝেও থাকতে পারে ক্যামেরা :
অনেকে অভিনন্দন জানাতে ফুলের তোরার মাঝেও ছোট্ট একটা ক্যামেরা লুকিয়ে রাখতে পারে। তাই সাবধান!


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত