রীন তুলি    |    
প্রকাশ : ২৬ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০৭:৫৪:৪৮ প্রিন্ট
এক মিনিটে যাচাই করুন আসল মধু
মধু খেতে পছন্দ করেন না আমাদের সমাজের এমন মানুষের খোঁজ পাওয়া একটু দুরূহ ব্যাপার বটে। তবে মধু যে সবাই শুধু পছন্দ করে খায় তা কিন্তু না। এই মধুর রয়েছে অনেক গুণ।বিশেষ করে ত্বকের যত্নে ও ঠাণ্ডাজনিত সমস্যা সারাতে মধুর জুড়ি নেই। মধুতে প্রায় ৪৫টিও বেশি খাদ্য উপাদান থাকে। তবে এতে সাধারণত কোনো চর্বি ও প্রোটিন নেই। প্রতি ১০০ গ্রাম মধু থেকে আমরা পাই ৩০৪ ক্যালরি।
 
বাজারের বিভিন্ন মানের মধু পাওয়া যায়। তবে মধু কিনতে গেলে কমবেশি সবাই বিপাকে পড়ে যান। কারণ নকল মধুতে বাজার সয়লাব। সব মধুর চেহারা একই রকম হওয়ায় বোঝা দায় কোনটি আসল, কোনটি নকল। খাটি মধু চেনার উপায় জানতে হলে আপনার কিছু কৌশল জানা প্রয়োজন, খুব সহজেই চিনতে পোরেন আসল মধু। তবে আসল মধু চেনার আগে চিনতে হবে নকল মধু। 
এক মিনিটে যাচাই করুন আসল মধু
এক গ্লাস পানিতে এক চামচ পরিমাণ মধু দিন। তারপর আস্তে আস্তে গ্লাসটি নাড়া দিন। মধু পানির সঙ্গে মিশে গেলে নিশ্চিত হবেন সেটা ভেজাল মধু। আর মধু যদি ছোট পিণ্ডের মতো গ্লাসের পানিতে ছড়িয়ে যায়, তাহলে বুঝবেন সেটা খাটি মধু।
 
নকল মধুতে ফেনা হয়
নকল মধুতে ফেনা হয়। এছাড়া একটু টকটক গন্ধ থাকবে এবং গন্ধ তেমন ভালো হয় না।
 
পাতলা হয়
নকল মধু বেশ পাতলা হয়। স্তরগুলো আলাদা করা যায়।এছাড়া খেতে সুস্বাদু হয় না। এছাড়া তলানিটা খসখসে থাকে।
  
আসল মধু চেনার উপায়
 
মধুর পুরুত্ব দেখুন
সামান্য মধু আঙ্গুলে নিন, এর পুরুত্ব দেখুন। আসল মধু অনেক বেশি আঠালো হবে।
 
একগ্লাস পানিতে মধু ড্রপ আকারে ছেড়ে দিন
খাঁটি মধু ড্রপ অবস্থায়ই গ্লাসের নিচে চলে যাবে। তারপর আস্তে আস্তে গ্লাসটি নাড়া দিন। মধু পানির সঙ্গে মিশে গেলে নিশ্চিত হবেন সেটা ভেজাল মধু। আর মধু যদি ছোট পিণ্ডের মতো গ্লাসের পানিতে ছড়িয়ে যায়, তাহলে বুঝবেন সেটা খাটি মধু
 
মধুতে পিঁপড়া ধরবে না
মধু যদি নকল না হয় তবে দীর্ঘদিন থাকলেও মধুর নিচে জমাট বাঁধবে না।এছাড়া পিঁপড়া ধরবে না
 
[প্রিয় পাঠক, আপনিও দৈনিক যুগান্তর অনলাইনের অংশ হয়ে উঠুন। লাইফস্টাইলবিষয়ক ফ্যাশন, স্বাস্থ্য, ভ্রমণ, নারী, ক্যারিয়ার, পরামর্শ, এখন আমি কী করব, খাবার, রূপচর্চা ও ঘরোয়া টিপস নিয়ে লিখুন এবং সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন[email protected]এ ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত