jugantor
বদরুলকে বিচারের কাঠগড়ায় নেয়ার প্রতিশ্রুতি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর

  ঢাকা  

০৪ অক্টোবর ২০১৬, ১৮:৪৪:৩২  |  অনলাইন সংস্করণ

সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের ছাত্রী খাদিজা নার্গিসকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টাকারী শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক বদরুল ইসলামকে বিচারের কাঠগড়ায় নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।
 
মঙ্গলবার সচিবালয়ে সাংবাদিকরা ক্ষমতাসীন দল সমর্থিত ছাত্র সংগঠনের সঙ্গে বদরুলের সংশ্লিষ্টতা তুলে ধরলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, 'দেখুন আমাদের প্রধানমন্ত্রী এ ব্যাপারে খুবই স্পষ্ট। তিনি কাউকে ছাড় দেন না। সে সরকারি দল হোক আর যে দলেরই হোক।'
 
তিনি বদরুলকে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করানোর প্রতিশ্রুতি দিয়ে বলেন, 'আমি আপনাদের জোর গলায় বলতে পারি, অপরাধীকে অবশ্যই বিচারের সম্মুখীন হতে হবে।'
 
এর আগে সোমবার বিকালে এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে খাদিজাকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেন ছাত্রলীগ নেতা বদরুল। পরে স্থানীয়রা ছাত্রলীগ নেতা বদরুলকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। রাতে খাদিজাকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। খাদিজা সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।
 
বদরুল শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক এবং অর্থনীতি বিভাগের শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী।
 
এ বিষয়ে শাহপরান থানার ওসি শাহজালাল মুন্সি বলেন, বদরুলের সঙ্গে খাদিজার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সম্প্রতি তাদের মধ্যে বনিবনা না হওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে বদরুল এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।
 
এদিকে বদরুলকে একমাত্র আসামী করে মঙ্গলবার দুপুরে ওই ছাত্রীর চাচা আব্দুল কুদ্দুস মামলা করেন। অন্যদিকে বদরুলের শাস্তির দাবিতে মঙ্গলবার সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও এমসি কলেজে মানববন্ধন করেছে খাদিজার সহপাঠীরা।
 
 
 
সাবমিট

বদরুলকে বিচারের কাঠগড়ায় নেয়ার প্রতিশ্রুতি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর

 ঢাকা 
০৪ অক্টোবর ২০১৬, ০৬:৪৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের ছাত্রী খাদিজা নার্গিসকে চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা চেষ্টাকারী শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শাখা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক বদরুল ইসলামকে বিচারের কাঠগড়ায় নেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।
 
মঙ্গলবার সচিবালয়ে সাংবাদিকরা ক্ষমতাসীন দল সমর্থিত ছাত্র সংগঠনের সঙ্গে বদরুলের সংশ্লিষ্টতা তুলে ধরলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, 'দেখুন আমাদের প্রধানমন্ত্রী এ ব্যাপারে খুবই স্পষ্ট। তিনি কাউকে ছাড় দেন না। সে সরকারি দল হোক আর যে দলেরই হোক।'
 
তিনি বদরুলকে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করানোর প্রতিশ্রুতি দিয়ে বলেন, 'আমি আপনাদের জোর গলায় বলতে পারি, অপরাধীকে অবশ্যই বিচারের সম্মুখীন হতে হবে।'
 
এর আগে সোমবার বিকালে এমসি কলেজ ক্যাম্পাসে খাদিজাকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেন ছাত্রলীগ নেতা বদরুল। পরে স্থানীয়রা ছাত্রলীগ নেতা বদরুলকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে। রাতে খাদিজাকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। খাদিজা সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।
 
বদরুল শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক এবং অর্থনীতি বিভাগের শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী।
 
এ বিষয়ে শাহপরান থানার ওসি শাহজালাল মুন্সি বলেন, বদরুলের সঙ্গে খাদিজার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সম্প্রতি তাদের মধ্যে বনিবনা না হওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়ে বদরুল এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।
 
এদিকে বদরুলকে একমাত্র আসামী করে মঙ্গলবার দুপুরে ওই ছাত্রীর চাচা আব্দুল কুদ্দুস মামলা করেন। অন্যদিকে বদরুলের শাস্তির দাবিতে মঙ্গলবার সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার ও এমসি কলেজে মানববন্ধন করেছে খাদিজার সহপাঠীরা।
 
 
 

 
প্রিন্ট সংস্করণ অনলাইন সংস্করণ
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র