প্রিন্ট সংস্করণ    |    
প্রকাশ : ২৪ জুলাই, ২০১৭ ০৯:০৬:০৫ প্রিন্ট
শিশুর জন্মত্রুটি প্রতিরোধ করবে ফলিক এসিড
বিএসএমএমইউ’র গবেষণা

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের নবজাতক বিভাগের উদ্যোগে পরিচালিত গবেষণায় দেখা গেছে, নবজাতক বা শিশুর জন্মগত ত্রুটি মা হতে ইচ্ছুক এমন মায়েরাসহ গর্ভবর্তী মায়েরা ফলিক এসিড ব্যবহার করলে অনেকাংশেই প্রতিরোধ করা সম্ভব।

বিএসএমএমইউ জন্মগত ত্রুটির গবেষণা ‘স্ট্রেনথিং অব হসপিটাল নিউবর্ন কেয়ার থ্রো এক্সপানডিং দ্য ন্যাশনাল নিউনেটাল পেরিনেটাল ডাটাবেজ (এনএনপিডি) অ্যান্ড নিউবর্ন বার্থ ডিফেক্ট (এবিবিডি) সার্ভিলেন্স ইন বাংলাদেশ’ প্রকল্পের আওতায় এ গবেষণা পরিচালিত হয়।

গবেষণায় দেখা গেছে, প্রতি ১০০ নবজাতকের মধ্যে ৪ নবজাতকের জন্মগত ত্রুটি লক্ষ করা যায়। তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে, বিশ্বব্যাপী এ হার প্রতি ১০০তে ৩-৬ শতাংশ। এ গবেষণায় ১৪টি মেডিকেল প্রতিষ্ঠান অংশগ্রহণ করছে।

এ গবেষণার মাধ্যমে জন্মগত ত্রুটির কারণ শনাক্তকরণ এবং প্রতিরোধকমূলক ব্যবস্থা ও জন্মত্রুটি হলে তার চিকিৎসার ব্যবস্থা ইত্যাদি আরও সুন্দরভাবে করা সম্ভব হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের নবজাতক বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. আবদুল মান্নান এ তথ্য জানান তিনি।

জ্বর হলেই চিকুনগুনিয়া নয় : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান বলেন, চিকুনগুনিয়া নিয়ে মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।

জ্বরে আক্রান্ত হলেই রোগীরা মনে করেন তার চিকুনগুনিয়া হয়েছে। এ ধারণা সঠিক নয়। প্রয়োজনীয় পরীক্ষা-নিরীক্ষা ছাড়া চিকুনগুনিয়া হয়েছে, এটা মনে করা ঠিক নয়।

রোববার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইপনা ভবনের সেমিনার রুমে বাংলাদেশ সোসাইটি অব রেডিওলজি অ্যান্ড ইমেজিংয়ের উদ্যোগে আয়োজিত ‘ফিটোমেটারনাল অ্যান্ড হেপাটোবিলিয়ারি আল্ট্রাসাউন্ড’ শীর্ষক কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

সোসাইটির সভাপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের রেডিওলজি অ্যান্ড ইমেজিং বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. মো. এনায়েত করিমের সভাপতিত্বে কী রিসোর্স পার্সন হিসেবে বক্তব্য রাখেন ভারতের বিখ্যাত রেডিওলজিস্ট ডা. মুহিত ভি শাহ।

নিহতের পরিবারকে সহায়তা : বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উত্তর পাশের ফুটপাতের দেয়াল ধসে নিহত পারভীন আক্তারের (৪৫) পরিবারকে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।

রোববার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (গবেষণা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মো. শহীদুল্লাহ সিকদার তার অফিসে মরহুম পারভীন আক্তারের দুই ছেলে মো. হাসিফ পারভেজ পাপ্পু ও মো. হাছান রেজা অপুর হাতে ৩০ হাজার টাকা তুলে দেন। প্রসঙ্গত, বাংলাদেশে নিযুক্ত বেলারুশের রাষ্ট্রদূত, সিআইপি অনিরুদ্ধ রায় দেয়াল ধ্বসে নিহত ও আহতদের জন্য ৫০ হাজার টাকা দিয়েছেন।

বাকি ২০ হাজার টাকা আহতদের মাঝে বণ্টন করা হবে।


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত