যুগান্তর রিপোর্ট    |    
প্রকাশ : ২১ ডিসেম্বর, ২০১৭ ০৩:০৯:২৭ প্রিন্ট
বহুজাতিক কোম্পানিকে শেয়ারবাজারে আসতে বাধ্য করতে হবে
মার্চেন্ট ব্যাংকের সেমিনারে বক্তারা

শেয়ারবাজারের বিকাশে ভালো কোম্পানির তালিকাভুক্তি জরুরি। তাই বহুজাতিক কোম্পানিকে শেয়ারবাজারে আসতে বাধ্য করতে হবে। এ ক্ষেত্রে সরকারকেই প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে হবে।

বুধবার রাজধানীর একটি হোটেলে বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিএমবিএ) আয়োজিত সেমিনারে বক্তারা এসব কথা বলেন। সেমিনারের বিষয় ছিল দীর্ঘ মেয়াদি অর্থায়নে পুঁজিবাজারের ভূমিকা।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান ড. এম খায়রুল হোসেন, তালিকাভুক্ত কোম্পানি অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি আজম জে চৌধুরী, ইফাদ অটোসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাসকিন আহমেদ, প্রাণ-আরএফএল গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আহসান খান চৌধুরী এবং খান ব্রাদার্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তোফায়েল কবীর খান। সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন বিএমবিএ’র ছায়েদুর রহমান।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, দেশে ছড়ানো-ছিটানো টাকাই শিল্পায়নে বড় ভূমিকা রাখছে। সেই সব ছড়ানো-ছিটানো টাকা পুঁজিবাজারের মাধ্যমে একত্রিত হচ্ছে। ফলে শিল্পায়ন বিকাশের জন্য সবার আগে শেয়ারবাজারের বিকাশ জরুরি। শিল্পমন্ত্রী বলেন, বিভিন্ন জনের হাতে সেই টাকা থাকায় তা সচারাচর কাজে আসে না।

কিন্তু পুঁজিবাজারে যখন সাধারণ বিনিয়োগকারীরা সেই টাকা বিনিয়োগ করে তখনই তা একটি বড় মূলধন হয়ে ওঠে। আর তা শিল্পায়নে ভূমিকা রাখে। মন্ত্রী বলেন, পুঁজিবাজার এখন আগের চেয়ে অনেক বেশি গতিশীল। সেখানে স্বচ্ছতা আনতে ইতিমধ্যে ব্যবস্থাপনা থেকে মালিকানা আলাদা করা হয়েছে। তিনি আরও বলেন, দেশে এখন যে অবকাঠামো উন্নয়ন হয়েছে তা শিল্পায়নে সহায়ক ভূমিকা রাখবে। এ অবস্থায় পুঁজিবাজারের মাধ্যমে ছড়ানো-ছিটানো টাকা একত্রিত হলে দেশের শিল্পায়ন উন্নত হবে।

বিএসইসি চেয়ারম্যান বলেন, দেশে এ ধরনের সংস্কৃতি রয়েছে, ব্যাংক থেকে ঋণ নিলে আর পরিশোধ করতে হয় না। এ ক্ষেত্রে আমাদের দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন করা জরুরি। না হলে শেয়ারবাজারের উন্নতি হবে না। শিল্পায়নে দীর্ঘ মেয়াদি অর্থায়নের উৎস হতে পারে পুঁজিবাজার।

আজম জে চৌধুরী বলেন, নামসর্বস্ব কোম্পানির শেয়ারের দাম বাড়ছে। কারা এসব শেয়ার কিনছে এবং কে কিনছে তা খতিয়ে দেখতে হবে। তিনি বলেন, নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ ব্যাংক এবং বিএসইসির মধ্যে আরও সমন্বয় করতে হবে।


 


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত