উখিয়া (কক্সবাজার) প্রতিনিধি    |    
প্রকাশ : ১৩ অক্টোবর, ২০১৭ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
সুযোগ-সুবিধা বাড়ায় রোহিঙ্গা নিবন্ধনে গতি
নিবন্ধিত হলে খাবারসহ যাবতীয় সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত হচ্ছে দেখে নিবন্ধন কেন্দ্রে ভিড় জমাচ্ছেন রোহিঙ্গারা। এতে তাদের বায়োমেট্রিক নিবন্ধনে গতি এসেছে। এতে ১১ সেপ্টেম্বর থেকে ১২ অক্টোবর- এক মাসে প্রায় ১ লাখ ৪০ হাজার রোহিঙ্গার নিবন্ধন সম্পন্ন হয়েছে। এ গতি আরও বাড়াতে চলমান ৬ কেন্দ্রের সঙ্গে আগামী সপ্তাহে যুক্ত হচ্ছে আরও ২টি। এ ৮টি কেন্দ্রে প্রতিদিন ২০ হাজার রোহিঙ্গা নিবন্ধনের আওতায় আনার লক্ষ্য নির্ধারণ করা হয়েছে।
জানা যায়, নিজ দেশে নিপীড়নের শিকার হয়ে আশ্রয়ের আশায় বাংলাদেশে আসা রোহিঙ্গাদের নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে সরকার তাদের নিবন্ধন কার্যক্রম শুরু করে। প্রথমদিকে রোহিঙ্গারা এতে তেমন আগ্রহ দেখায়নি। সরকারের পক্ষ থেকে ঘোষণা ছিল, অনিবন্ধিত কেউ কোনো সুযোগ-সুবিধা পাবে না। সেনাবাহিনী ত্রাণ বিতরণ ও অন্যান্য সহযোগিতা চালু করার পর সেই ঘোষণার বাস্তবায়ন দেখে ধীরে ধীরে রোহিঙ্গারা নিবন্ধন কার্যালয়ে আসতে শুরু করে, যা ক্রমে বাড়ছে।
কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের সমন্বয়ে রোহিঙ্গাদের নিবন্ধন কার্যক্রম চালাচ্ছে ইমিগ্রেশন অ্যান্ড পাসপোর্ট অধিদফতরের এমআরপি প্রজেক্ট। আর সেনাবাহিনী ও বিজিবির টেকনিক্যাল টিম, আনসার, আরআরআরসি, আইওএম, ইউএনএইচসিআর এতে সহযোগিতা দিচ্ছে। নিবন্ধনে ১৪ বছরের নিচে কাউকে নেয়া হচ্ছে না। ১৫ থেকে সর্বোচ্চ বয়সী সবাই এর আওতায় আসছে। কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের সমন্বয়ক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবুল কালাম মো. লুৎফর রহমান বলেছেন, বুধবার পর্যন্ত ১ লাখ ২৭ হাজার ৫৩২ জন রোহিঙ্গার নিবন্ধন সম্পন্ন হয়েছে। প্রতিদিন গড়ে ১০ হাজারের বেশি রোহিঙ্গা নিবন্ধনের আওতায় আসছে। সে হিসাবে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা নাগাদ এটি ১ লাখ ৪০ হাজারে দাঁড়াবে।



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত