• মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০
আনজানা ডালিয়া    |    
প্রকাশ : ১২ জুলাই, ২০১৭ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
মিরসরাই ট্র্যাজেডি স্মরণে
আজও শোনা যায় সন্তানহারা মায়ের বিলাপ

বছর ঘুরে আবার এসেছে জুলাই। ১১ জুলাই পূর্ণ হল মিরসরাই ট্র্যাজেডির ৬ষ্ঠ বার্ষিকী। নিহত অর্ধশত শিশুর স্মরণে মানুষের শ্রদ্ধাবনত ব্যানারগুলো ধূসর হয়ে নিশ্চিহ্ন হয়ে গেছে। শুকিয়ে গেছে চোখের জল। ঘড়ির কাঁটায় কেটে গেছে ছয়টা বছর কিন্তু নিহত অর্ধশত পরিবারের হৃদয়ের ক্ষতগুলো শুকায়নি, শুকাবে না কোনোদিন। মিরসরাই এর স্মরণকালের মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনা এই মিরসরাই ট্র্যাজেডি।

জীবিকার কারণে হাসপাতালের কর্মজীবী সেবিকা হিসেবে কিছু শিক্ষার্থীকে কাছে থেকে দেখার সুযোগ পেয়েছি। কাছ থেকে ছুঁয়েছি। যে কটা প্রাণ প্রদীপ বেঁচে থাকার জন্য প্রাণান্ত যুদ্ধ করছিল তাদের বাঁচাতে ছুটোছুটি করেছি, চেষ্টা করেছি যদি বাঁচানো যায়...। অধিকাংশই হার মেনেছে মৃত্যুর কাছে। এক এক করে কচি প্রাণগুলো দেখেছি নিস্তেজ সারিবদ্ধ লাইনে। দেখেছি মা-বাবা ভাই বোনসহ অজস্র স্বজনের হাহাকার। নিথর দেহগুলোর প্রাণ ফেরাতে চেষ্টার ব্যস্ততায় কাঁদতে পারেনি সেদিন। কিন্তু পরক্ষণে অনেক কেঁদেছি নীরবে। এতো লাশ একসঙ্গে জীবনে কখনও দেখেনি। ফুটবল খেলার প্রতিপক্ষকে হারিয়ে আনন্দ উল্লাস করে ফেরার পথে ওদের লাশের মিছিলে দাঁড়াতে হয়েছে। মিরসরাই উপজেলার মায়ানি মঘাদিয়ার গ্রামের প্রতিটা ঘর থেকে ভেসে এসছে আহাজারির ধ্বনি। এখনও ঘরের দাওসায় বসে কাঁদেন অনেক মা। কাঁদেন স্বজন। তাদের এই শোকে সান্ত্বনা দেয়ার কোনো ভাষা ছিল না। এ শোক ছড়িয়ে যায় সারাদেশে, সারাবিশ্বে। হারানো মানিকদের আর কখনও ফিরে পাওয়া যাবে না কোনো কিছুর বিনিময়ে। ক্ষতস্থানগুলো শুকাবে না কোনোদিন। কতস্বপ্ন ছিল ছোট সোনামণিদের ঘিরে। দিন যায় মাস যায় তাদের স্মৃতিকে ধরে রাখতে হয় স্মৃতিসৌধ অন্তিম আজও গভীর রাতে বিলাপ শোনা যায় সন্তানহারা মায়ের। ছেলের ছবি বুকে জড়িয়ে কাঁদেন বাবা। স্কুলের মাঠে খুঁজতে আসেন প্রিয় সন্তানকে। নেই কোথাও প্রিয় সন্তানের মুখটা। কেড়ে নিয়েছে ছোট ট্রাক আর ডোবা প্রিয় মুখগুলো। সর্বনাশ সেই ডোবার বুকে জড়িয়ে কাঁদেন বাবা। স্কুলের মাঠে খুঁজতে আসেন প্রিয় সন্তানকে। তার খোকা এখন বিদ্যালয়ের সামনের স্মৃতিসৌধে ছবি হয়ে আছে।

প্রিয় সন্তানের মুখটা কেড়ে নিয়েছে ছোট ট্রাক আর ডোবা। স্কুলের সামনে আর সর্বনাশা সেই ডোবার বুকেও হয়েছে স্মৃতিসৌধ। সর্বনাশা সেই ডোবার বুকে হয়েছে স্মৃতিসৌধ অন্তিম। মিরসরাই এর সন্তানহারা মা-বাবাদের দেখা যায় এখন সেই অন্তিম এর গায়ের লিস্টে সন্তানের নাম খুঁজতে।

শান্তি কামনা করছি ৪৫টি অকাল প্রয়াত নিষ্পাপ প্রাণের আত্মাদের। সমবেদনা জানাচ্ছি সেই পরিবারগুলোর।


 


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত