• বৃহস্পতিবার, ১৩ ডিসেম্বর ২০১৮
মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি    |    
প্রকাশ : ০৭ আগস্ট, ২০১৭ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
১৪৬ কিমি. সাঁতরে ক্ষিতীন্দ্র চন্দ্রের রেকর্ড
৪৩ ঘণ্টা একক সাঁতারে ১৪৬ কিলোমিটার নদীপথ পাড়ি দিয়ে রেকর্ড গড়লেন মুক্তিযোদ্ধা ক্ষিতীন্দ্র চন্দ্র বৈশ্য। ৬৬ বছর বয়সী এই সাঁতারু শুক্রবার বিকেল ৬টা ৫০ মিনিটে ময়মনসিংহের ফুলপুর ঠাকুর বাঘাইঘাট সরচাপুর ব্রিজ থেকে সাঁতার শুরু করেন। বিরামহীন দূরপাল্লার একক সাঁতার শেষে তিনি দু’দিন ও দু’রাত পর রোববার দুপুর ১টা ৫০ মিনিটে মদন উপজেলার মগড়া ব্রিজে এসে পৌঁছেন। ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্যে উৎসুক জনতা তাকে বরণ করে নেয়। এ সময় মদন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ওয়ালীউল হাসান, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম আকন্দ, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি আবদুল কদ্দুছ, সাধারণ সম্পাদক আবুল বাশার খান এখলাছ ও পৌর মেয়র আবদুল হান্নান তালুকদার শামীম তাকে বরণ করে নেন। নদীর দু’পাড় ও ব্রিজে অবস্থানরত হাজার হাজার জনতা করতালির মাধ্যমে রেকর্ডধারী সাঁতারুকে অভ্যর্থনা জানায়। পরে পানি থেকে তুলে ক্ষিতীন্দ্র চন্দ্র বৈশ্যকে দায়িত্বপ্রাপ্ত উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. খান মোহাম্মদ ফজলুল বারী ইভানের নেতৃত্বে অ্যাম্বুলেন্সে বেসরকারি হাসপাতাল সুমাইয়া হেলথ কেয়ার সেন্টারে নেয়া হয়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে শ্বাস-প্রশ্বাসে কিছুটা সমস্যা হলে অক্সিজেন দিয়ে রাখা হয়। তিনি দেশে-বিদেশে বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে সম্মাননা অর্জন করেন। ক্ষিতীন্দ্র চন্দ্র বৈশ্য নেত্রকোনার মদন উপজেলার জাহাঙ্গীরপুর গ্রামের ক্ষিতীশ চন্দ্র বৈশ্যের ছেলে। তিনি বেসরকারি বিমানের এরোড্রাম কর্মকর্তা হিসেবে অবসর নেন।
এদিকে এই সাঁতারুর এমন কৃতিত্বে মদন উপজেলা প্রশাসন, নাগরিক কমিটি, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, রাজনৈতিক ও সামাজিক নেতাদের আয়োজনে নদীর পাড়ে হাজারও লোকের সমাগম ঘটে। উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড ও নাগরিক কমিটি আলাদা আলাদা সম্মাননা স্মারক প্রদান করেন। মদন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ওয়ালীউল হাসান মদনবাসীর পক্ষ থেকে এই কৃতিত্বকে বিশ্ব রেকর্ডে স্থান দেয়ার দাবি জানান।



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত