অধ্যাপক ডা. আবিদ হোসেন মোল্লা    |    
প্রকাশ : ৩০ জানুয়ারি, ২০১৬ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
আবারও শিশুদের ব্রংকিউলাইটিস

প্রধান, শিশু বিভাগ, ঢাকা মেডিকেল কলেজ

হঠাৎ করে শীতের তীব্রতা বেড়ে গেছে। শীতের এ সময় শিশুরা যে সর্দি-কাশি ও শ্বাসকষ্টে ভুগছে, তা কিন্তু বেশিরভাগই নিউমনিয়া নয়। ভাইরাসজনিত এ রোগের নাম ব্রংকিউলাইটিস। ব্রংকিউলাইটিসকে অনেকে নিউমোনিয়া ভেবে ভুল করেন। ফুসফুস হল উল্টানো গাছের মতো। গাছের কাণ্ড থেকে শাখা-প্রশাখা বিস্তারিত হয়ে পাতায় শেষ হয়। পাতার বোঁটায় প্রদাহ হলে (ভাইরাসের কারণে) এটাকে বলে ব্রংকিউলাইটিস। আর পাতায় প্রদাহ হলে নিউমোনিয়া। সুতরাং দুটি এক অসুখ নয়। ব্রংকিউলাইটিস দুই বছরের কম বয়সের শিশুদের বেশি হয়ে থাকে। এতে নাক দিয়ে পানি পড়ার পর কাশি ও শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। জ্বরের মাত্রা কম থাকে, বুকে বাঁশির মতো আওয়াজ হয়। রক্ত পরীক্ষায় কোনো অস্বাভাবিকতা পাওয়া যায় না, কিন্তু ভবিষ্যতে শিশু আবারও আক্রান্ত হতে পারে। পক্ষান্তরে নিউমোনিয়া যে কোনো বয়সে হতে পারে। এতে শিশুর খুব জ্বর হয়, অসুস্থতা চেহারায় প্রতিফলিত হয়, কাশি ও শ্বাসকষ্ট হয়। বুকের এক্স-রে করলে কালো ফুসফুসে সাদা সাদা দাগ দেখা যায়। রক্ত পরীক্ষাতে শ্বেতকণিকার মাত্রা বেড়ে যায়। সেরে উঠতে সময় লাগে। ব্রংকিউলাইটিসে কিন্তু বেশিরভাগ শিশুকে বাড়িতে রেখেই চিকিৎসা করা যায়। সুস্থ শিশুদের ব্রংকিউলাইটিসে আক্রান্ত শিশু থেকে সরিয়ে রাখতে হবে। দিনের বেলায় রোদ উঠলে বাচ্চাকে খোলামেলা জায়গাতে রাখুন। জ্বরের জন্য প্যারাসিটামল আর নাক বন্ধ হয়ে গেলে নরমাল স্যালাইন (লবণ পানি) ব্যবহার করা যেতে পারে। এ সময় তরল খাবার, বিশেষ করে বুকের দুধ ঘন ঘন খাওয়াতে হবে। শিশুকে সিগারেট, মশার কয়েল ও রান্নাঘরের ধোঁয়া থেকে দূরে রাখুন। শ্বাসকষ্ট খুব বেশি হলে, বাচ্চা অজ্ঞান হয়ে গেলে, খিঁচুনি হলে, ঠোঁট নীল বা কালো হয়ে গেলে তাড়াতাড়ি হাসপাতালে নিতে হবে। ভর্তি রোগীদের এন্টিবায়োটিক বা স্টেরয়েড দেয়ার প্রয়োজন নেই । পর্যাপ্ত

অক্সিজেন এবং ৩% সোডিয়াম ক্লোরাইড দিয়ে নেবুলাইজ করলে অধিকাংশ শিশু ভালো হয়ে যায় ।


 


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত