প্রকাশ : ২০ আগস্ট, ২০১৬ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
জিম নয়, ব্যায়াম সম্ভব ঘরেই

শরীর সুস্থ রাখার জন্য প্রত্যেকেরই ব্যায়াম করা উচিত। জিমে গিয়ে ব্যায়াম করা সবসময় হয়ে ওঠে না, অনেকের হয়তো সামর্থ্যও থাকে না। নিজেকে ফিট রাখতে হলে ব্যায়াম করতেই হবে। যারা জিমে যেতে পারেন না, তারা ঘরেই করতে পারেন হালকা কিছু ব্যায়াম। ব্যায়ামের নিয়ম- ব্যায়াম শুরুর আধা ঘণ্টা আগে বা পরে কিছু খাবেন না। ভরা পেটে ব্যায়াম করলে শরীর খুব কাহিল হয়ে যায়। শরীরের ভিন্ন ভিন্ন অংশের জন্য ভিন্ন ভিন্ন ব্যায়াম রয়েছে। আগে বুঝে নিতে হবে আপনার এনার্জি লেভেল কতটুকু। কী ধরনের ব্যায়াম, কতক্ষণ আপনি করতে পারবেন। প্রথমেই ভারি ব্যায়াম শুরু করবেন না, হালকা কিছু ব্যায়াম করে নিন আগে। শরীর একটু চটপটে হালকা লাগলেই ভাববেন না আপনি ফিট হয়ে গেছেন। একদিনে বেশি চাপ না নিয়ে শরীরের একেক অংশের জন্য একেকদিন ব্যায়াম করবেন। ঘরের ব্যায়াম- জিমে সাধারণত ছেলে আর মেয়ের জন্য আলাদা ব্যায়াম আছে, আবার কিছু কিছু ব্যায়াম ছেলেমেয়ের জন্য একই রকম। জিমের ব্যায়ামগুলোর মধ্যে অ্যারোবিক, রানিং বা স্ট্যান্ড জগিং, ডাম্বেল লিফটিং, স্ট্রেচিং, পুশআপ, স্কিপিং, ইয়োগাসহ আরও অনেক ধরনের ব্যায়াম শেখানো হয়ে থাকে। এর মধ্যে সহজ কিছু ব্যায়াম আপনি বাসায় থেকেই করতে পারবেন।

অ্যারোবিক : এ ব্যায়াম খুব মজার। গানের তালে তালে ফ্রি হ্যান্ড কসরতই অ্যারোবিক। অ্যারোবিকে মিউজিকের সঙ্গে ছন্দ মিলিয়ে হাত-পা ও শরীরের অন্য অঙ্গপ্রত্যঙ্গ নাড়াচাড়া করতে হয় তাই ব্যায়াম পুরো শরীরের জন্যই কার্যকর। বাজারে অ্যারোবিকের সিডি কিনতে পাওয়া যায়। খুব সহজেই এ ব্যায়ামটি আপনি বাসায় করতে পারেন।

ইয়োগা : এর মানে যোগব্যায়াম। একটা ম্যাট নিয়ে এর ওপর বিভিন্ন আসনে শুয়ে, বসে বা দাঁড়িয়ে এই ব্যায়াম করা হয়। ব্যায়াম শুরুর আগে ঘরে ৫ মিনিট হেঁটে নেবেন বা চোখ বন্ধ করে জোরে শ্বাস নিয়ে ব্যায়াম শুরু করবেন। এই যোগব্যায়ামের মধ্যে উল্লেখযোগ্য কিছু ব্যায়াম হল- বজ্রাসন, ত্রিকোণাসন, অর্ধকোণাসন, প্রানায়ম বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য।

স্কিপিং : ছোটবেলায় আমরা সবাই দড়িলাফ খেলেছি তাই এ ব্যায়ামটির সঙ্গে আমরা কম বেশি সবাই পরিচিত। বাজারে দড়ি বা প্লাস্টিকের স্কিপিং রোপ পাওয়া যায়। এটি কিনে সহজেই অনুশীলন করতে পারেন বাসায়। একদিনে বেশি স্কিপিং না করে আস্তে আস্তে বাড়াবেন। যারা বেশি মোটা তাদের স্কিপিং না করাই ভালো।

স্ট্যান্ড জগিং : স্ট্যান্ড জগিংয়ের জন্য কোনো যন্ত্রের প্রয়োজন হয় না। এক জায়গায় দাঁড়িয়ে কোনো কিছু ধরে আপনি জগিং করতে পারেন। এতে করে আপনার পুরো শরীরের ব্যায়াম হবে। শরীরে মেদ কমার এটি কার্যকরী একটি ব্যায়াম।

পুশআপ : এ ব্যায়ামটা সাধারণত ছেলেরা দিয়ে থাকে। উপুড় হয়ে কাঁধ থেকে পা পর্যন্ত সোজা রেখে হাতের ওপর ভর দিয়ে এ ব্যায়ামটি করা হয়। এতে বডি শেপে আসে এবং মেদ কমাতেও সাহায্য করে। শোল্ডার সার্কেল সোজা হয়ে দাঁড়িয়ে সামনে তাকান। ডান হাত ভাঁজ করে ডান কান বরাবর তুলুন। তারপর একটি নির্দিষ্ট তালে হাতটি ওপরে, নিচে, পেছনে ঘোরান। তারপর একইভাবে বাম হাত ঘোরান। নিঃশ্বাস স্বাভাবিক রেখে অপর হাতও একইরকম করে ঘোরাবেন। এই সহজ ব্যায়ামগুলো অনুশীলন করে আপনি থাকতে পারেন ফিট। সকাল অথবা বিকালে ব্যায়াম করা ভালো। আপনি অন্য সময়ও করতে পারেন কিন্তু প্রতিদিন করার চেষ্টা করবেন।

সুস্থ থাকুন ডেস্ক


 


আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত