যুগান্তর ডেস্ক    |    
প্রকাশ : ২১ অক্টোবর, ২০১৭ ০০:০০:০০ প্রিন্ট
আইএসমুক্ত রাকা তবে সংকট কাটেনি
দীর্ঘ চার বছরের লাগাতার যুদ্ধ শেষে এলো সাফল্য। এক দিন আগেই সিরিয়ার রাকা শহরকে আইএসমুক্ত বলে ঘোষণা করেছে স্থানীয় প্রশাসন। তবে এখনও জারি রয়েছে ‘ক্লিন আপ’ অভিযান। কোথাও কোনও স্লিপার সেল বা মাটিতে পোঁতা মাইন রয়ে গেছে কিনা তার সন্ধানে চলছে দিনভর খোঁজ। তবে দেইর এল এজরসহ বেশ কিছু এলাকায় এখনও কাটেনি সঙ্কট। সেখানে এখনও আইএসের ঘাঁটি শক্তই। খবর এএফপির।
বৃহস্পতিবার জোট শক্তি সমর্থিত আসাদ সরকারের বাহিনী (এসডিএফ) জানিয়ে দিয়েছিল, আইএসের হাত থেকে সিরিয়াকে পুরোপুরি উদ্ধার করেছে সেনা। তবে মার্কিন সেনা সতর্ক করেছে, এখনও রাকার আনাচে কানাচে প্রায় ১০০ আইএস জঙ্গি লুকিয়ে থাকতে পারে। এ দিন মার্কিন সেনার মুখপাত্র রায়ান ডিলন টুইট করে জানান, শহরের ৯৫ শতাংশই এখন সিরিয়া সেনার দখলে। তবে লুকিয়ে থাকা জঙ্গিদের শেষ করতে এখনও অভিযান চলছে।
এ দিকে চার বছরের টানা যুদ্ধে বিপর্যস্ত শহর। যুদ্ধের ছাপ সর্বত্রই। শহরের পুরনো হাল ফেরাতে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে আমেরিকাও। মার্কিন সেনার সদস্য ব্রেট ম্যাকগুর্ক জানালেন, তিনি এখন উত্তর সিরিয়ায় জঙ্গিদের বিরুদ্ধে যুদ্ধের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। এ দিন তিনি আইএস জঙ্গিদের আত্মসমর্পণের একটি ছবিও পোস্ট করেন।
২০১৪ সালে রাকার দখল নেয় ইসলামিক স্টেট। সেই থেকে রাকাকে নৃশংসতার অন্যতম কেন্দ্র বানিয়ে তুলেছিল তারা। ফলে রাকার পুনর্দখল যে আইএসের বিরুদ্ধে বড় সাফল্য, তা বলাই বাহুল্য। তবে এখানেই শেষ নয়। রাকার দক্ষিণ অংশে এখনও আইএসের শক্ত ঘাঁটি রয়েছে বলে মানছে খোদ সিরিয়া প্রশাসন।

ইরাক সীমান্তসংলগ্ন দেইর এল এজর ও হোমস প্রদেশের পশ্চিমাংশের অবস্থাও সংকটে।
বৃহস্পতিবারও দেইর এল এজরে আইএস ও এসডিএফ সংঘর্ষ চলছিল। রাকার পশ্চিমে হাসাকেহ প্রদেশেও সেনা-জঙ্গি সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে। দেইর এল এজরে লাখ লাখ নাগরিক এখনও আইএসের হাতে বন্দি। টানা যুদ্ধের জেরে এলাকায় প্রাণ ওষ্ঠাগত তাদের। এদিকে সব ছেড়ে পালাতে গিয়ে বিপদের মুখে পড়ছেন তারাও। কোথাও রাস্তায় জঙ্গিদের পাতা মাইন, তো কোথাও সেনা-জঙ্গি যুদ্ধ, প্রাণ যাচ্ছে সাধারণ মানুষেরই। জাতিসংঘের শরণার্থী সংস্থা জানাচ্ছে, গত কয়েক দিনে রাকার অন্তত ৪০ হাজার বাসিন্দা শরণার্থী শিবিরগুলোতে এসে পৌঁছেছেন। সেগুলোতেও উপচে পড়ছে মানুষ।



আরো পড়ুন
  • শীর্ষ খবর
  • সর্বশেষ খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত