পাঁচ বছরেই পেনশন

১০ বছরের নিচে আনুতোষিক (গ্রাচুইটি) প্রতি এক টাকার বিপরীতে ২৬৫ টাকা * অর্জিত ছুটি নগদায়ন ১২ মাসের পরিবর্তে ১৮ মাস * মহিলা চাকরিজীবীর মৃত্যুর পর তার বেসামরিক চাকরিজীবী স্বামী সর্বোচ্চ ১৫ বছর পেনশন পাবেন

মিজান চৌধুরী
চাকরির বয়স পাঁচ বছর পূর্ণ হলেই একজন সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী অথবা তার পরিবার পেনশন পাওয়ার যোগ্যতা অর্জন করবেন। এর আগে পেনশনের যোগ্যতা অর্জন করতে ১০ বছর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হতো তাদের। এছাড়া অবসরকালে অর্জিত ছুটি নগদায়নের সময় ১২ মাস থেকে বাড়িয়ে ১৮ মাসে উন্নীত করা হয়েছে। এছাড়া চাকরির বয়স ১০ বছরের কম হলে আনুতোষিক (গ্রাচুইটি) সুবিধা প্রতি এক টাকার বিপরীতে ২৬৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। আগে চাকরির বয়স ১০ বছরের বেশি হলে এক টাকার বিপরীতে ২৬০ টাকা গ্রাচুইটি দেয়া হতো। কোনো মহিলা চাকরিজীবী মৃত্যুবরণ করলে তার স্বামী সর্বোচ্চ ১৫ বছর পর্যন্ত পেনশন ভোগ করতে পারবেন। এর আগে সংশ্লিষ্ট চাকরিজীবীর স্বামী আজীবন পেনশনবিস্তারিত

ফের আলটিমেটাম দিচ্ছেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকরা

যুগান্তর রিপোর্ট
অধ্যাপকদের একটি অংশকে সিনিয়র সচিবের সমমর্যাদা দেয়াসহ বিভিন্ন দাবিতে দেয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের আলটিমেটাম আজ শেষ হচ্ছে। তবে শুক্রবার পর্যন্ত শিক্ষকদের দাবি পূরণে দৃশ্যমান কোনো অগ্রগতি হয়নি। পূর্ব ঘোষণা মতো আজ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের কেন্দ্রীয় সংগঠন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ফেডারেশনের সাধারণ সভা হচ্ছে। ফেডারেশনের দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, দুপুর সাড়ে ১২টায় ঢাবিতে ওই সভা অনুষ্ঠিত হবে। বৈঠক শেষে আরেকটি আলটিমেটাম দেয়া হবে। একই সঙ্গে লাগাতার কর্মবিরতির দিনক্ষণও ঘোষণার চিন্তাভাবনা রয়েছে। শিক্ষকদের দাবি-দাওয়া পূরণের অগ্রগতির বিষয়ে জানতে চাইলে শুক্রবার রাতে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ যুগান্তরকে বলেন, ‘আমরা অর্থ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে ধারাবাহিকভাবে এ বিষয়ে আলোচনা করে যাচ্ছি। চেষ্টা করছি। যে সমস্যা তৈরি হয়েছে তাবিস্তারিত

ক্রীড়াঙ্গন পায়নি আলোর সন্ধান

মোজাম্মেল হক চঞ্চল
ক্রীড়াঙ্গনের সাফল্য-ব্যর্থতার চেয়েও গেল বছরটা আলোচিত হয়ে উঠেছিল ক্রীড়া প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তাদের মধ্যকার দ্বন্দ্বের ঘটনা। যুগ্ম সচিবের কক্ষ ভাংচুর করে ব্যাপক নিন্দা কুড়ান যুব ও ক্রীড়া উপমন্ত্রী আরিফ খান জয়। চার বছর ধরে ক্রীড়া পুরস্কার প্রদান বন্ধ হয়ে রয়েছে, ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রীর পারস্পরিক দ্বন্দ্বে। ফিফা কংগ্রেসে নিয়ে গিয়ে সুইজারল্যান্ডে আদম পাচার করে দিয়েছেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের কর্মকর্তারা (বাফুফে)। ১৭ বছরেও আলোর মুখ দেখেনি জাতীয় ক্রীড়া নীতি। পাঁচ বছর ধরে লাল ফিতায় বন্দি হয়ে রয়েছে ক্রীড়া উন্নয়ন পরিকল্পনা। বছরজুড়েই ঠাণ্ডা লড়াই ছিল যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের দুই প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রীর মধ্যে। যার জের ধরে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের এক যুগ্ম সচিবের রুমবিস্তারিত

ব্লকবাস্টারে ডেডি’স হোম

আনন্দনগর প্রতিবেদক
ঢাকার যমুনা ফিউচার পার্কের বিলাসবহুল সিনে থিয়েটার ব্লকবাস্টার সিনেমাসে গতকাল থেকে প্রদর্শিত হচ্ছে হলিউডের আলোচিত ছবি ‘ডেডি’স হোম’। কমেডি ঘরানার এ ছবিটি গেল বছরের ২৫ ডিসেম্বর আমেরিকায় মুক্তি পেয়েছে। ৫০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বাজেটের এ ছবিটি গত এক সপ্তাহে আয় করেছে ৬৩.২ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। ছবির গল্প এগিয়েছে বাবা এবং সৎবাবার মধ্যে বিভিন্ন হাস্যরসাত্মক ঘটনাকে কেন্দ্র করে। ব্রাড টেগার্ট একজন রেডিও এক্সিকিউটিভ। খুব ভালো একজন স্টেপফাদার (সৎবাবা) হতে চান। এ জন্য স্ত্রীর আগের ঘরের দুই বাচ্চার প্রতি আদর-যত্নের কমতি রাখেন না। যখন স্ত্রীর আগের স্বামী শহরে ফিরে আসে, তখন ব্রাড বাচ্চাদের নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভোগেন। পাশাপাশি তার মধ্যে মানসিক অস্থিরতাও তৈরিবিস্তারিত

উদ্বেগ উৎকণ্ঠায় নববর্ষের উল্লাস

ইউরোপে কড়া নিরাপত্তা : ভয়ে ভয়ে বর্ষবরণ

যুগান্তর ডেস্ক
বর্ণিল আতশবাজির মধ্য দিয়ে রাতের আকাশকে আলোকিত করে নতুন বছরকে বরণ করে নিয়েছে বিশ্ববাসী। ২০১৬ সালকে প্রথমেই বরণ করে নেয় অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড। উৎসবে মাতে হংকং, সিঙ্গাপুর ও বেইজিংয়ের মতো বড় বড় শহরগুলো। ইউরোপজুড়ে নিরাপত্তা উদ্বেগের মধ্যেও থেমে থাকেনি বর্ষবরণের উৎসব। লন্ডনে আতশবাজি দেখতে জড়ো হন লক্ষাধিক মানুষ। নতুন বছরের কাউন্টডাউন করতে জার্মানির রাজধানী বার্লিনে সমবেত হওয়া মানুষের সংখ্যা ছিল প্রায় ১০ লাখ। আর স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদে বর্ষবরণে শামিল হন ২৫ হাজার মানুষ। ২০১৬ সালকে বরণ করে নিতে নিউ ইয়র্কের টাইম স্কয়ারে জড়ো হন বিপুলসংখ্যক মার্কিন নাগরিক। গ্রিনিচ মান সময় ১১টায় অকল্যান্ডের স্কাই টাওয়ারে বর্ণিল আতশবাজির মাধ্যমে নতুন বছরকে স্বাগতবিস্তারিত

শীতজনিত রোগে মৃত ২৩

রাশেদ রাব্বি
দেশে চলতি মৌসুমে শীতজনিত রোগে এ পর্যন্ত ২৩ জনের মৃত্যু ঘটেছে। এর মধ্যে এআরআই বা ঠাণ্ডাজনিত শ্বাসকষ্টে ১৪ জন, ডায়রিয়ায় ৪ জন এবং অন্যান্য রোগে ৫ জন। তবে এবারের শীত মৌসুমে এখন পর্যন্ত নিপাহ ভাইরাসে আক্রান্তের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। ন্যাশনাল হেলথ ক্রাইসিস ম্যানেজমেন্টের তথ্য অনুযায়ী, চলতি বছরের ১ নভেম্বর-৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত দেশের মোট ১০টি জেলার ৫৩টি উপজেলায় শীতজনিত রোগের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। এসব এলাকায় এ সময়ে এআরআই বা ঠাণ্ডাজনিত শ্বাসকষ্টে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৬ হাজার ৮১৪ জন, ডায়রিয়ায় ২৫ হাজার ৭৯৩ জন এবং অন্যান্য রোগে ৫ হাজার ৯৯৮ জন। এসব রোগে আক্রান্ত হয়ে এ মৌসুমে মৃতের সংখ্যা ২৩ জন।বিস্তারিত

নতুন রাজনৈতিক দিশা চিহ্নিত করার বছর

ফরহাদ মজহার
সবাইকে ঈসায়ী নববর্ষের শুভেচ্ছা। নতুন বছরের শুরুতে অল্প কিছু কথা বলব। বরং সবাইকে বলব, ভাবুন, আমরা কোনদিকে যাচ্ছি। চরম দুর্নীতি, লুটপাট, নাগরিক ও মানবিক অধিকার লংঘন এবং ভোটের তামাশা সত্ত্বেও আমি মনে করি না বাংলাদেশের জনগণ ভুল পথে যাচ্ছে। গত বছরের (২০১৫) শেষে পৌরসভার নির্বাচন গিয়েছে। নির্বাচনে কারচুপি ঘটেছে, একে কোনো অর্থেই নির্বাচন বলা যায় না। ইসির ভূমিকা নিন্দনীয়। বিএনপি যথারীতি তা প্রত্যাখ্যান করেছে। পৌর নির্বাচনের ফলাফল দিয়ে বাংলাদেশের রাজনীতির চরিত্রে বদল ঘটল কিনা অনেকে সেই প্রশ্ন তুলছেন। আদৌ কোনো বদল হয়েছে কিনা বুঝতে পারব কি? আমার ধারণা, বুঝব। কিন্তু সবার আগে বুঝতে হবে, শেখ হাসিনার অধীনে বিরোধী রাজনৈতিক জোটের নির্বাচন বর্জনেরবিস্তারিত

প্রয়োজন রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গির আধুনিকায়ন

এ কে এম শাহনাওয়াজ
নতুন বছর এলে আমাদের মধ্যে অনেক প্রত্যাশা তৈরি হয়। পাশাপাশি অনেক হতাশা এসে দুর্বল করে দেয় প্রত্যাশা পূরণের জায়গাটিকে। আমরা মনে করি, রাজনৈতিক অঙ্গনের ভালো থাকা মন্দ থাকার ওপরই নির্ভর করে এ দেশের সব সম্ভাবনা ও প্রত্যাশিত অগ্রগতি। কিন্তু আমাদের বড় দুর্ভাগ্য, এ দেশের রাজনীতিকদের রাজনৈতিক আচরণ আটকে আছে গৎবাঁধা বলয়ের ভেতর। ক্ষমতাপ্রত্যাশী বড় দলগুলো গণতান্ত্রিক চেতনা নিয়ে কখনও পথ চলে না। গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে নয়- বাহুবলে ও নানা কৌশলে ক্ষমতার কেন্দ্রে যাওয়ার অভিলাষ সব পক্ষের। এ বাস্তবতা গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়াকে বারবার ক্ষতিগ্রস্ত করে তুলছে। সবল পক্ষ আরও সবল হতে প্রতিপক্ষকে ছলে-বলে-কৌশলে হীনবল করে দিচ্ছে। এতে যে গণতান্ত্রিক কাঠামো বিপন্ন হচ্ছে তাবিস্তারিত

চুয়িংগাম দিয়ে অভিনব শিল্প

আমাদের মধ্যে প্রায় সবাই কোনো না কোনো সময়ে চুয়িংগাম চিবিয়েছি। কিন্তু চুয়িংগাম দিয়ে শিল্পসৃষ্টির পরিকল্পনা বোধহয় কারাও মনে আসেনি। ইতালির এক শিল্পী চুয়িংগাম দিয়ে বড় আকারের অভিনব ভাস্কর্য তৈরি করে সবাইকে অবাক করে দিচ্ছেন। কিংবদন্তি অনুযায়ী রোম শহরের দুই প্রতিষ্ঠাতা শিশুকে বুকের দুধ খাইয়ে বাঁচিয়েছিল ‘লা লুপা’ নামের এক নেকড়ে মা। ইতালির এ শহরের বিভিন্ন জায়গায় পাথরের তৈরি সেই নেকড়ের মূর্তি শোভা পাচ্ছে। ১৪ কিলোগ্রাম চুয়িংগাম দিয়েও এমন মূর্তি তৈরি হয়েছে। দাম ২৮,০০০ ইউরো। ইতালির শিল্পী মাউরিৎসিও সাভানি চুয়িংগাম দিয়ে যে সব ভাস্কর্য তৈরি করেন সেগুলির খুঁটিনাটি বিষয় চোখে পড়ার মতো- তবে সবার জন্য হয়তো রুচিসম্মত নয়। মাউরিৎসিও বলেন, ‘সবার আগে মানুষ আমাকেবিস্তারিত
আর্কাইভ
প্রিন্ট সংস্করণ অনলাইন সংস্করণ
Content loader
Content loader

আজকের আবহাওয়া

আজকের প্রশ্ন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, নিখোঁজ নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। আপনিও কি আতঙ্কিত বোধ করছেন না?
 হ্যাঁ না মতামত নেই

বিজ্ঞাপন

logo
রবিবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯ ইং
ফজর৬.০৫
যোহর১.১৫
আসর৪.১৫
মাগরিব৫.৩০
এশা৭.৩০
সূর্যোদয় - ৬.৪০সূর্যাস্ত - ৫.২০
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম
মেষ
বৃষ
মিথুন
কর্কট
সিংহ
কন্যা
তুলা
বৃশ্চিক
ধনু
মকর
কুম্ভ
মীন
মেষ (২১ মার্চ - ২০ এপ্রিল)
ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে আগের জটিলতা কাটিয়ে উঠতে সক্ষম হবেন। পাওনা আদায় সহজ হবে। বিনোদন শুভ।
বৃষ (২১ এপ্রিল - ২১ মে)
বেকারদের কারও কারও কর্মসংস্থানের সুযোগ হতে পারে। পারিবারিক বিবাদের অবসান হতে পারে। বিনোদন ও কেনাকাটা শুভ।
মিথুন (২২ মে - ২১ জুন)
প্রয়োজনীয় কাজ সম্পাদনে আজ কোনো প্রকার অবহেলা বিপদের কারণ হতে পারে। দূরের কোনো ভালো খবর পাবেন। যাত্রা শুভ।
কর্কট (২২ জুন - ২২ জুলাই)
কর্মস্থলে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করতে হতে পারে। হারানো জিনিস পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। যাত্রা শুভ।
সিংহ (২৩ জুলাই - ২৩ আগস্ট)
পারিবারিক ব্যাপারে প্রতিবেশীকে নাক গলাতে দেবেন না। যানবাহন ও যন্ত্রপাতি ব্যবহারে সাবধানতা অবলম্বন করুন। কেনাকাটা শুভ।
কন্যা (২৪ আগস্ট - ২৩ সেপ্টেম্বর)
পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে বিপাকে পড়তে পারেন। জমিজমা সংক্রান্ত নিয়ে বিরোধের অবসান হবে। যাত্রা শুভ।
তুলা (২৪ সেপ্টেম্বর - ২৩ অক্টোবর)
শিল্প স্থাপনের ক্ষেত্রে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারেন। ব্যবসায় বিনিয়োগ কিছুটা ঝুঁকি হতে পারে। প্রেম ও রোমান্স শুভ।
বৃশ্চিক (২৪ অক্টোবর - ২২ নভেম্বর)
সমাজকল্যাণমূলক কর্মকাণ্ডের জন্য পুরস্কৃত হতে পারেন। যৌথ কাজে অগ্রগতি ভালো। প্রেম ও রোমান্স শুভ।
ধনু (২৩ নভেম্বর - ২১ ডিসেম্বর)
বিদেশ যাত্রার সুযোগ সৃষ্টি হতে পারে। ব্যবসা ক্ষেত্রে আগের অচলাবস্থার অবসান হবে। প্রেমিক-প্রেমিকাদের জন্য দিনটি শুভ।
মকর (২২ ডিসেম্বর - ২০ জানুয়ারি)
পাওনা টাকা ফেরত পাবেন। যন্ত্রপাতি ব্যবহারে সতর্ক হোন। দূরের কোনো আত্মীয় আপনার শরণাপন্ন হবে। যাত্রা শুভ।
কুম্ভ (২১ জানুয়ারি - ১৮ ফেব্রুয়ারি)
অন্যের কাজে আপনি নাক গলাতে যাবেন না। যানবাহন চলাচলে সাবধানতা অবলম্বন করুন। যাত্রাপথে পানাহারে বিরত থাকুন।
মীন (১৯ ফেব্রুয়ারি - ২০ মার্চ)
যৌথ ব্যবসায় বিনিয়োগ লাভজনক হবে। প্রিয়জনের সঙ্গে সম্পর্ক খারাপ হবে। যাত্রা শুভ।

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত