এ কান্নার শেষ কোথায়

চট্টগ্রামে ফের পাহাড় ধসে একই পরিবারের পাঁচজনের মৃত্যু

চট্টগ্রাম ব্যুরো ও সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি
চট্টগ্রাম, রাঙ্গামাটি, বান্দরবান ও খাগড়াছড়িতে পাহাড় ধসে নিহত ১৫৮ জনের পরিবারে কান্না থামেনি এখনও। এখনও স্বাভাবিক হয়ে ওঠেনি ক্ষতিগ্রস্ত ৬ হাজারের বেশি পরিবারের জীবন। এর মধ্যেই চট্টগ্রামে আবারও ঘটল পাহাড় ধসের ঘটনা। বৃহস্পতিবার রাত ৩টার দিকে সীতাকুণ্ড উপজেলার সলিমপুর ইউনিয়নের জঙ্গল সলিমপুরের ছিন্নমূল এলাকায় মাটিচাপায় ঝরে গেল পাঁচ প্রাণ। সবাই একই পরিবারের, আর এদের তিনজনই শিশু। এর মধ্যে ভাইয়ের বাড়িতে বেড়াতে এসে দুই সন্তান নিয়ে না ফেরার দেশে চলে গেছেন এক গৃহবধূ। আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, সাগরে নিম্নচাপের প্রভাবে বুধবার রাত থেকে ভারি বর্ষণ হয়। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ৩৭৪ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়। প্রবল বর্ষণে মাটি নরম হয়ে বৃহস্পতিবারবিস্তারিত

আগের সীমানায় ফিরতে চায় ৮ আসনের মানুষ

নির্বাচন কমিশনসহ বিভিন্ন দফতরে জমা কয়েকশ’ আবেদন * সুশীল সমাজের প্রতিনিধি রাজনীতিকসহ বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষের ক্ষোভ

আকতার ফারুক শাহিন, বরিশাল ব্যুরো
দক্ষিণের ৮টি সংসদীয় আসনের পুনর্বিন্যাস জটিলতা থেকে আগের অবস্থানে ফিরতে চান সংশ্লিষ্ট এলাকার বাসিন্দারা। জাতীয় সংসদের ২৩টি নির্বাচনী আসনের এলাকা বরিশাল বিভাগ পাল্টে যায় নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে। বরগুনা, বরিশাল ও পিরোজপুর আন্তঃজেলার ২টি আসন কমে এখানে মোট সংসদীয় আসনের সংখ্যা দাঁড়ায় ২১। পাশাপাশি বরিশাল ও পটুয়াখালী জেলায় পুনর্বিন্যাস করা হয় বেশ কয়েকটি সংসদীয় এলাকা। যার ফলে বরিশাল ২, ৩ ও ৪ নির্বাচনী এলাকায় আসে ব্যাপক পরিবর্তন। দশম জাতীয় নির্বাচনের আগেও একইভাবে চলে আরেক দফা পুনর্বিন্যাস। অজানা কারণে এলোমেলো করা হয় পিরোজপুরের ৩টি সংসদীয় এলাকা। ফলে দক্ষিণের ৮টি নির্বাচনী এলাকায় সৃষ্টি হয় জটিলতা। নির্বাচনের আগ মুহূর্তে পরপর দু’বার কেনবিস্তারিত

প্রথমদিন সাইফুল-সোহাগীর

স্পোর্টস রিপোর্টার
ফিনিশিং লাইন পার হয়েই দু’হাত তুলে সে কী উল্লাস সোহাগী ও সাইফুলের। ২০০ মিটার স্প্রিন্টে তারাই যে সেরা। দু’বছর পর ট্র্যাকে গড়ানো জাতীয় সামার অ্যাথলেটিক্সের প্রথম দিনটি যে তাদের। শুক্রবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে শুরু হওয়া সামার মিটের প্রথম দিনটি নিজেদের করেই রাখলেন এই দুই অ্যাথলেট। মেয়েদের ২০০ মিটার স্প্রিন্টে স্বর্ণপদক জিতলেও এটা প্রিয় ইভেন্ট নয় সোহাগী আক্তারের। নিজের প্রিয় ইভেন্ট ৪০০ মিটারেও পদক জিততে চান তিনি। বিজেএমসি থেকে ২০১৪ সালে নৌবাহিনীতে যোগ দেন সোহাগী। গত বছর জাতীয় মিট ও এবার সামার মিটে টানা দু’বার ২০০ মিটারে সোনা জেতার পর সোহাগীর কথা, ‘টানা দু’বার ২০০ মিটারে স্বর্ণপদক জিতলাম। এবার আমার মূল লক্ষ্যবিস্তারিত

আমরা দু’জন মেয়ের সব দায়িত্ব ভাগ করে নেব

মিডিয়া জগতে সুখী এবং সফল দম্পতি হিসেবেই পরিচিত ছিলেন জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী তাহসান খান ও অভিনেত্রী মিথিলা। ২০০৪ সালে মন দেয়া নেয়া শুরু। যার পরিণতিতে ২০০৬ সালের ৩ আগস্ট বিয়ে করেন তারা। ১১ বছরের সংসারে একমাত্র মেয়ের নাম আইরা তেহরীম খান। গেল বেশ কয়েক মাসে তাদের সম্পর্কের টানাপড়েন নিয়ে বেশ গুঞ্জনও সৃষ্টি হয়েছিল। বরাবরই সেসব বিষয়কে উড়িয়ে দিতেন এ দম্পতি। সম্প্রতি সব গুঞ্জনের অবসান ঘটিয়ে নিজেদের দাম্পত্য জীবনে বিচ্ছেদ টানার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এ দুই শিল্পী। সাম্প্রতিক এ ইস্যু নিয়ে আজকের ‘হ্যালো...’ বিভাগে কথা বলেছেন তাহসান

নিজেকে ‘ক্ষমা’ করার উপায় খুঁজছেন ট্রাম্প

নিজ সন্তান ও সহযোগীদের প্রতি অনুকম্পা প্রদর্শন করবেন প্রেসিডেন্ট * মুলারের তদন্ত বন্ধ করার উপায় অনুসন্ধান

যুগান্তর ডেস্ক
রাশিয়ার সঙ্গে গোপন আঁতাতের ক্ষেত্রে নিজের সহযোগীদের, সন্তানদের এমনকি নিজেকে ক্ষমা করার উপায় খুঁজছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। নিজের আইনজীবীদের কাছে এমন ক্ষমতার ব্যাপারে জানতে চেয়েছেন তিনি। এক্ষেত্রে প্রেসিডেন্টের নির্বাহী ক্ষমতা ব্যবহারের কথা বিবেচনা করছেন তিনি। গত বছরের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপের অভিযোগ ও রুশ কর্মকর্তার সঙ্গে ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণা শিবিরের গোপন আঁতাতের ব্যাপারে মার্কিন সিনেট, বিচার বিভাগ ও মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলো তদন্ত করছে। এমন পরিস্থিতিতে এসব অভিযোগ থেকে বাঁচার উপায় খুঁজছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। ওয়াশিংটন পোস্ট ও নিউইয়র্ক টাইমসের বরাত দিয়ে সিএনএন জানায়, ট্রাম্পের আইনজীবীরা ইতিমধ্যে রাশিয়ার ব্যাপারে তদন্তে নিয়োজিত সাবেক এফবিআই প্রধান বিশেষ কৌঁসুলি জেমস মুলারকে থামিয়ে দিতেবিস্তারিত

কুড়িগ্রামে বানভাসির বিষফোঁড়া এনজিওর কিস্তি

মন্ত্রীর নির্দেশ উপেক্ষা করে টাকা আদায় অব্যাহত

আহসান হাবীব নীলু, কুড়িগ্রাম থেকে
কুড়িগ্রামে বানভাসির জন্য বিষফোঁড়া হয়ে দাঁড়িয়েছে এনজিওর ঋণের কিস্তি। বন্যায় সহায় সম্বল হারালেও এনজিওদের কিস্তি নেয়া বন্ধ নেই। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া সোমবার কুড়িগ্রামে এসে এনজিওদের ঋণের কিস্তি আদায় বন্ধের নির্দেশ দেন। কিন্তু এ নির্দেশ উপেক্ষা করে টাকা আদায় অব্যাহত আছে। ফলে নদীভাঙনের শিকার ও বন্যাদুর্গতদের ওপর একরকম জুলুম চলছে। সাপ্তাহিক বা মাসিক কিস্তি সময়মতো না দিলে নানাভাবে হয়রানি ও লাঞ্ছনার শিকার হচ্ছেন তারা। অনেক সদস্যকে পরিবারের দিকে না তাকিয়ে শেষ সম্বল বিক্রি করে হলেও শোধ করতে হচ্ছে ঋণের কিস্তি। আরডিআরএস, গ্রামীণ ব্যাংক, উদ্দীপন, আশা, টিএসএসএস, ব্র্যাকসহ বিভিন্ন এনজিও দুর্যোগকবলিত মানুষের কাছ থেকে ঋণের কিস্তি আদায়বিস্তারিত

এই ম্যাপে সুষ্ঠু নির্বাচন পর্যন্ত পৌঁছানো যাবে কি?

তারেক শামসুর রেহমান
গত ১৬ জুলাই নির্বাচন কমিশন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য একটি রোডম্যাপ প্রকাশ করেছে। এ রোডম্যাপ প্রকাশের মধ্য দিয়ে নির্বাচন কমিশন বাহ্যত একাদশ সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতি শুরু করে দিল। কিন্তু যে প্রশ্নটি গুরুত্বপূর্ণ তা হচ্ছে, এ রোডম্যাপ কি একটি সুষ্ঠু, গ্রহণযোগ্য নির্বাচনে সব দলের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে পারবে? কিংবা কতটুকু নিশ্চিত হবে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড? এক সময় প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে নিয়ে প্রশ্ন ছিল বিএনপির। সিইসি কেএম নুরুল হুদার আওয়ামী লীগ সংশ্লিষ্টতা নিয়ে আপত্তি তুলেছিল বিএনপি। যদিও সেই আপত্তি আর থাকেনি। বর্তমান সিইসির সঙ্গে বিএনপির একটি প্রতিনিধি দল দেখাও করেছিল। তবে ঘোষিত রোডম্যাপ বিএনপির আস্থা অর্জন করতে পারেনি। অন্তত দলটির মহাসচিবেরবিস্তারিত

‘স্যারকে কত নম্বর দিয়েছিস রে?’

পবিত্র সরকার
পুরনো স্মৃতি ‘মাস্টারমশাইদের পরীক্ষা’ নামে বছর কুড়ি আগে কলকাতার একটি পত্রিকায় একটা লেখা লিখেছিলাম। তখন ব্যাপারটা এ দেশে খুব চালু হয়নি, লেখার পর শুনেছিলাম কোনো কোনো আইআইটি আর ইন্ডিয়ান স্ট্যাটিস্টিক্যাল ইন্সটিটিউটে নাকি ব্যাপারটা সীমাবদ্ধ আকারে ঘটত। মনে হয়েছিল, এসব প্রতিষ্ঠানে যারা কর্তাব্যক্তি বা প্রশাসনের ক্ষমতায় আছেন তারা সবাই বিদেশে শিক্ষা নিয়েছেন, তাই হয়তো তাদের বিষয়টা মনে ধরেছিল, এসে নিজেদের প্রতিষ্ঠানে চালু করেছেন। আমারও লেখাপড়ার জন্য জন্মের মধ্যে কর্ম একবার বিদেশ যাওয়া- আগেকার দিনে খবরের কাগজে ‘উচ্চশিক্ষার্থে বিদেশ যাত্রা’ কথাটা শ্রেণীবদ্ধ বিজ্ঞাপনের একটা শিরোনাম ছিল- তাই আমিও সেখানকার অভিজ্ঞতা ‘ঝেড়ে’ই লিখেছিলাম। মনে হয়েছিল, ব্যাপারটা এ দেশে বা আমাদের উপমহাদেশে চালু হলে বেশবিস্তারিত

নির্জনতার কবি এমিলি ডিকিনসন

উনিশ শতকের আমেরিকার কবিদের মধ্যে দু’জনকে প্রকৃতই কবি হিসেবে বিবেচনা করা হয়। একজন ওয়াল্ট হুইটম্যান, অন্যজন এমিলি ডিকিনসন। এমিলি ডিকিনসন তার কবিতায় ভাঙা ছন্দ, ড্যাশ চিহ্ন, যত্রতত্র বড় হাতের অক্ষর ব্যবহারের মাধ্যমে নিজস্ব প্রকাশরীতির জন্য আজ বিশ্বব্যাপী খ্যাত। আমেরিকার স্কুলে অহরহ এমিলির কবিতা পড়ানো হয়। স্কুলের ছোট ছোট ছেলেমেয়ে থেকে শুরু করে সে দেশের সব ধরনের মানুষ এমিলি ডিকিনসনের নাম ও লেখার সঙ্গে পরিচিত। এই মহান কবির জীবনকথা লিখেছেন সেলিম কামাল

আমেরিকার যে কোনো লাইব্রেরিতে গেলে এমিলি ডিকিনসনের ওপর শ’খানেক বই পাওয়া যাবে। তারপরও তার ওপর অনুসন্ধান করে চলেছেন পণ্ডিতরা। এমিলি ডিকিনসন প্রায় ১ হাজার ৮০০ কবিতা লিখেছেন। তার মধ্যে ১০-১২টি কবিতা তার জীবদ্দশায় ছাপা হয়েছিল। যে অন্তর্জগৎ তাকে জীবন সম্পর্কে লিখতে উদ্বুদ্ধ করেছিল- সেই অন্তর্জগতের ভিত গড়ে উঠেছে সত্যকে জানার অদম্য আকাক্সক্ষা, প্রেম ও মৃত্যুচিন্তা থেকে। আর পাশাপাশি দুটি বাড়ি, যে বাড়িতে এমিলি ডিকিনসন থাকতেন এবং তার পাশের বাড়ি যেখানে তার ভাই অস্টিন ও তার পরিবার বাস করতেন- এ দুটি বাড়ির মধ্যেই এমিলি ডিকিনসন তার জীবন ও চলাফেরা সীমিত রেখেছিলেন। কারণ তিনি পছন্দ করতেন নির্জনতা। জন্ম ও বেড়ে ওঠা ১৮৩০ সালের ১০বিস্তারিত

বিজ্ঞান * তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি

বিজ্ঞান

মো. আমিনুল ইসলাম
সিনিয়র শিক্ষক, মিরপুর বাংলা স্কুল অ্যান্ড কলেজ, ঢাকা দেখতে হলে আলো চাই [পূর্বে প্রকাশিত অংশের পর] ২৩. শিশুর চোখের স্পষ্ট দৃষ্টির ন্যূনতম দূরত্ব কত? ক. ৫০ সেমি. খ. ২৫ সেমি. গ. ১০ সেমি. √ঘ. ৫ সেমি. ২৪. কোনটি ক্ষীণ আলোতে সংবেদনশীল? ক. কোন খ. রেটিনা √গ. রড ঘ. চোখের লেন্স ২৫. চোখের কোন অংশে উল্টো প্রতিবিম্ব গঠিত হয়? ক. লেপ্স √খ. রেটিনা গ. কর্নিয়া ঘ. চোখের মণি ২৬. মানুষের চলাফেরা, ভাবনা-চিন্তা সবকিছু নির্ভর করে কোনটির কর্মক্ষমতার ওপর? ক. পরিপাকতন্ত্র খ. পেশিতন্ত্র গ. হৃৎপিণ্ড √ঘ. স্নায়ুতন্ত্র ২৭. রেটিনার ওপর আলো পড়লে তাকে তড়িৎ প্রেরণায় পরিণত করে- i. রডকোষ ii. অ্যাকুয়াস হিউমার iii. কোন কোষ নিচের কোনটি সঠিক? ক. i ও ii খ. ii ও iii √গ. i ও iii ঘ.বিস্তারিত
আর্কাইভ
প্রিন্ট সংস্করণ অনলাইন সংস্করণ
Content loader
Content loader

আজকের আবহাওয়া

আজকের প্রশ্ন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, নিখোঁজ নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। আপনিও কি আতঙ্কিত বোধ করছেন না?
 হ্যাঁ না মতামত নেই

বিজ্ঞাপন

logo
সোমবার, ২২ এপ্রিল ২০১৯ ইং
ফজর৬.০৫
যোহর১.১৫
আসর৪.১৫
মাগরিব৫.৩০
এশা৭.৩০
সূর্যোদয় - ৬.৪০সূর্যাস্ত - ৫.২০
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম
মেষ
বৃষ
মিথুন
কর্কট
সিংহ
কন্যা
তুলা
বৃশ্চিক
ধনু
মকর
কুম্ভ
মীন
মেষ (২১ মার্চ - ২০ এপ্রিল)
দিনের শুরুতে আজ কিছুটা ঝামেলা দেখা দিতে পারে। বয়স্কদের সঙ্গে আলোচনায় কৌশলের আশ্রয় নিন। প্রেম ও রোমান্সে অগ্রগতি হবে।
বৃষ (২১ এপ্রিল - ২১ মে)
মানসিক অস্থিরতার জন্য নতুন কোনো পরিকল্পনা বাস্তবায়ন কঠিন হতে পারে। নিজের কাজে অন্যকে নাক গলাতে দেয়া ঠিক হবে না।
মিথুন (২২ মে - ২১ জুন)
হঠাৎ কোনো জটিলতায় জড়িয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। পারিবারিক কাজে কৌশলী হোন। দূরের যাত্রায় সতর্ক থাকুন। প্রেম ও রোমান্স শুভ।
কর্কট (২২ জুন - ২২ জুলাই)
অনেকের জন্য দিনটি শুভ হলেও কারও জন্য কষ্টদায়ক হতে পারে। পুরনো পাওনা আদায়ে কৌশলী হোন। যাত্রা শুভ। বিয়ের আলোচনা শুভ।
সিংহ (২৩ জুলাই - ২৩ আগস্ট)
ব্যস্ততা বেড়ে যেতে পারে। আর্থিক লেনদেনের ব্যাপারে সতর্ক থাকুন। কারও কথায় হঠাৎ সিদ্ধান্ত নেয়া ঠিক হবে না। দূরের যাত্রা শুভ।
কন্যা (২৪ আগস্ট - ২৩ সেপ্টেম্বর)
বয়স্ক কারও জন্য সিদ্ধান্ত নেয়া কঠিন হতে পারে। প্রভাবশালীদের মন রক্ষা করে চলার চেষ্টা করুন। পারিবারিক জটিলতা এড়িয়ে চলুন। যাত্রা শুভ।
তুলা (২৪ সেপ্টেম্বর - ২৩ অক্টোবর)
কারও ওপর নির্ভর করে নতুন কোনো পরিকল্পনা বাস্তবায়নে তড়িঘড়ি করা ঠিক হবে না। অধীনস্থদের সাবধানে কাজে লাগানোর চেষ্টা করুন।
বৃশ্চিক (২৪ অক্টোবর - ২২ নভেম্বর)
কর্মস্থলে পদস্থদের মন রক্ষা করে চলার চেষ্টা করুন। অধীনস্থ কেউ আজ কাজে ঝামেলার সৃষ্টি করতে পারে। বিনোদন ও বিয়ের যোগ শুভ।
ধনু (২৩ নভেম্বর - ২১ ডিসেম্বর)
প্রভাবশালী কেউ আজ আপনার সাহায্যে এগিয়ে আসতে পারে। কারও কথায় পরিকল্পনা পরিবর্তন করা ঠিক হবে না। কেনাকাটা শুভ। যাত্রা শুভ।
মকর (২২ ডিসেম্বর - ২০ জানুয়ারি)
যানবাহন ও যন্ত্রপাতি ব্যবহারে সতর্ক থাকুন। কারও ওপর দায়িত্ব দিয়ে নির্ভর করা ঠিক হবে না। প্রিয়জনের স্বাস্থ্য চিন্তার কারণ হতে পারে।
কুম্ভ (২১ জানুয়ারি - ১৮ ফেব্রুয়ারি)
কর্মস্থলে নতুন কোনো পরিবর্তন আসতে পারে। কোনো ধরনের ঝামেলায় জড়ানো ঠিক হবে না। নিজের স্বাস্থ্য সম্পর্কে সতর্ক থাকুন। যাত্রা শুভ।
মীন (১৯ ফেব্রুয়ারি - ২০ মার্চ)
অধীনস্থদের ওপর দায়িত্ব দিয়ে বসে থাকা ঠিক হবে না। বয়স্কদের স্বাস্থ্যের প্রতি নজর দিন। যাত্রা শুভ।

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত