জাতীয় পার্টি উজ্জীবিত

পাঁচ কারণে ঝন্টুর পরাজয়, ১৯৩ কেন্দ্রের মধ্যে মাত্র ৮টিতে জয় * জামায়াতের ৩০-৪০ হাজার ভোট ধানের শীষে পড়েনি -স্থানীয় বিএনপি

কাজী জেবেল, রংপুর থেকে
রংপুর সিটি কর্পোরেশন (রসিক) নির্বাচনে লাঙ্গলের বড় জয়ে আওয়ামী লীগ এবং বিএনপি শিবিরে হতাশা নেমে এলেও জাতীয় পার্টি উজ্জীবিত। রংপুরে জাতীয় পার্টির এ বিপুল জয়ের নেপথ্য কারণ ভোটারদের বক্তব্যের মধ্য দিয়েই ফুটে উঠল। শফিক রহমান নামের এক ভোটার যুগান্তরকে বলেছেন, রংপুরবাসী মনে করে ‘আগামীতে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ আরও ক্ষমতায়িত হবেন। আগামীর জাতীয় রাজনীতির নিয়ামক শক্তিতে পরিণত হবেন সাবেক এ রাষ্ট্রপতি। রংপুরবাসী সেই চিন্তা মাথায় রেখেই রংপুর সিটিতে লাঙ্গলে ভোট দিয়েছেন।’ রংপুরের লোকজন মনে করেন, এরশাদ ক্ষমতায়িত হলে রংপুরের উন্নয়ন হবে। রংপুর সিটির এ বিজয় শুধু রংপুরেই থেমে থাকবে না, এটা ছড়িয়ে পড়বে সারা দেশে। আগামী এক বছরবিস্তারিত

এমপির ডিও লেটার কারিশমা

বরিশালে ৩ বছরে একই পদে ৪ বার বদলি * ইচ্ছেমতো কর্মকর্তাদের বানাচ্ছেন দক্ষ-অদক্ষ

আকতার ফারুক শাহিন, বরিশাল ব্যুরো
প্রতিবার এমপির ডিও (ডিমান্ড অব অর্ডার) লেটার আর বদলি। এভাবে মাত্র তিন বছরে চার বার বদল হয়েছে বরিশাল সদর উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও)। এর মধ্যে একজনকে আবার কয়েক মাসের ব্যবধানে অন্যত্র বদলি করে পুনরায় আনা হয়েছে এখানে। প্রতিবারই বদলি প্রশ্নে দেয়া ডিও লেটারে যেমন বলা হয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তার অদক্ষতার কথা তেমনি যাকে আনা হয়েছে তাকে অভিহিত করা হয় চৌকশ ও দক্ষ হিসেবে। আনা নেয়ার এই পালায় মাত্র কয়েক মাসের ব্যবধানে একই কর্মকর্তাকে একবার অদক্ষ আবার দক্ষও বলা হয়েছে এসব ডিমান্ড অব অর্ডারে। কিছু দিনের ব্যবধানে এভাবে বারবার ডিও লেটার দিয়ে কর্মকর্তা বদলির এসব কাজ করেছেন বরিশাল সদর আসনের এমপি আওয়ামীবিস্তারিত

এমপিদের ‘কমনওয়েলথ ভ্রমণ’

ক্রীড়াবিদদের বরাদ্দ থেকে বহন করা হবে ব্যয়

মোজাম্মেল হক চঞ্চল
ক্রীড়া স্থাপনা পরিদর্শনের জন্য জার্মানি ও যুক্তরাজ্য ভ্রমণে ৯ এমপিকে পাঠানোর জন্য জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের উদ্যোগ ভেস্তে দিয়েছিল অর্থ মন্ত্রণালয়। তাই এবার ক্রীড়া স্থাপনা পরিদর্শন নয়, গোল্ডকোস্ট-২০১৮ কমনওয়েলথ গেমস দেখার জন্য এমপিদের পাঠানো হচ্ছে। সফরের যাবতীয় ব্যয় মেটানো হবে ক্রীড়াবিদদের জন্য বরাদ্দ তহবিল থেকে। চাঞ্চল্যকর এই তথ্য মিলেছে বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের (বিওএ) কাছে পাঠানো যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের চিঠি থেকে। গত ৩ ডিসেম্বর মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব তৌফিক ইমামের স্বাক্ষর করা চিঠি (নং-৩৪.০০.০০০০.০৭১.০৩৩.২৮৪.২০১৫ (অংশ-১)-৬৫২) বিওএতে পাঠানো হয়। চিঠিতে বলা হয়, আগামী বছরের ৩ এপ্রিল অস্ট্রেলিয়ার গোল্ডকোস্টে নবম কমনওয়েলথ স্পোর্টস মিনিস্টার মিটিংয়ে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার এমপি অংশ নেবেন। সেই সঙ্গে ৪বিস্তারিত

সানী মৌসুমীর রামুজি মিশন

আনন্দনগর প্রতিবেদক
ছিলেন পর্দার জুটি। এরপর প্রেম ও পরিণয়। একসঙ্গে দীর্ঘদিনের সংসার জীবন ওমর সানী ও মৌসুমীর। বিয়ের পর ঢাকাই ছবির নায়ক-নায়িকারা যখন ক্যারিয়ার হারিয়ে ফেলার ভয়ে অস্থির থাকেন সেক্ষেত্রে মৌসুমী ও ওমর সানী একেবারেই ভিন্ন। জুটি হয়ে এখনও নিয়মিত চলচ্চিত্রে অভিনয় করে যাচ্ছেন তারা। ছেলের রেস্টুরেন্ট ব্যবসায়ও সময় দিচ্ছেন। বর্তমানে এ তারকা জুটি রয়েছেন ভারতের হায়দ্রাবাদের রামুজি ফিল্ম সিটিতে। সেখানে বাংলাদেশের তরুণ নির্মাতা রাশেদ রাহা পরিচালিত ‘নোলক’ ছবির শুটিং করছেন। শুটিংয়ের পাশাপাশি সেখানের মনোমুগ্ধকর জায়গাগুলোও ঘুরে বেড়াচ্ছেন। সেখানে ঘুরে বেড়ানোর ছবি নিয়মিত ফেসবুকে আপলোড করছেন ওমর সানী। ছবি দেখেই বোঝা যায় কতটা খোশ মেজাজে সময় কাটাচ্ছেন তারা। এ প্রসঙ্গে ওমর সানীবিস্তারিত

ট্রাম্পের হুমকি কী বাস্তবসম্মত

যুগান্তর ডেস্ক
জেরুজালেম প্রশ্নে জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্রগুলোর ওপর অপরিমেয় চাপ প্রদান সত্ত্বেও সাধারণ পরিষদের ভোটাভুটি ঠেকাতে পারেনি যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সিদ্ধান্তের নিন্দা জানিয়ে সাধারণ পরিষদ একটি খসড়া প্রস্তাব পাস করেছে। এ প্রস্তাবে ট্রাম্পের জেরুজালেম স্বীকৃতিকে ‘বাতিল’ বলে ঘোষণা করা হয়েছে। সদস্য রাষ্ট্রগুলোর বিপুল ভোটে প্রস্তাবটি পাস হয়েছে। সুপার ডিফিট হয়েছে দেশটির, বিশ্লেষকরা যেমনটা বলছিলেন। ১২৮টি দেশ এর পক্ষে ভোট দিয়েছে। অন্যদিকে যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরাইলসহ মাত্র ৯টি দেশ এর বিপক্ষে ভোট দেয়। ভোটদানে বিরত ছিল ৩৫টি দেশ। জাতিসংঘে নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত প্রতিনিধি এমনকি খোদ মার্কিন প্রেসিডেন্টের পক্ষ থেকে হুমকি দেয়ার পরই বিস্ময়কর এ ফলাফল এসেছে। ভোটাভুটির আগের দিন হোয়াইট হাউসে ট্রাম্প বলেন,বিস্তারিত

ভারতীয় গরুতে চাঁদাবাজি ক্ষতিতে ব্যবসায়ীরা

রাজশাহী ব্যুরো
চাঁপাইনবাবগঞ্জ সীমান্তপথ। এ পথ দিয়ে ভারত থেকে আসা গরুতে চলছে চাঁদাবাজি। শুধু চাঁদাবাজির লক্ষ্যে গরু-মহিষের রুট নিয়ন্ত্রণ করা হচ্ছে। ফলে ব্যবসায়ীরা ব্যাপক হয়রানির মুখে পড়ছেন। ঘাটে ঘাটে আদায় করা হচ্ছে মোটা অঙ্কের টাকা। অভিযোগে জানা গেছে, চাঁপাইনবাবগঞ্জের একজন এমপির নেতৃত্বে সীমান্ত খাটাল, পথঘাট ও হাট দখলে নিয়ে গরু থেকে প্রতিদিন লাখ লাখ টাকা আদায় করছে একাধিক সিন্ডিকেট। গরু ব্যবসায়ীরা হয়রানির পাশাপাশি বিপুল আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়লেও তদারকির দায়িত্বে নিয়োজিত বিজিবি, কাস্টমস ও জেলা প্রশাসন রহস্যজনক নীরবতা পালন করছে। অভিযোগে জানা গেছে, সম্প্রতি চাঁপাইনবাবগঞ্জের সদর উপজেলার জোহরপুর ট্যাক নামক সীমান্ত পয়েন্টে বিট খাটাল চালু হয়েছে। এ খাটালে প্রতি রাতে দুই হাজার করেবিস্তারিত

রংপুর সিটি নির্বাচনের বার্তাটি অনুধাবন করতে হবে

ড. বদিউল আলম মজুমদার
রংপুর সিটি কর্পোরেশন (রসিক) নির্বাচন সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ হয়েছে। নিঃসন্দেহে এর ফলে একটি ইতিবাচক দৃষ্টান্ত স্থাপিত হয়েছে। এর মাধ্যমে নির্বাচন কমিশনের সক্ষমতা প্রমাণিত হল। সরকার, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এবং প্রশাসনও নিরপেক্ষতা প্রদর্শন করেছে। নাগরিক সমাজও বিশেষত সুজন এ ক্ষেত্রে ব্যাপক ভূমিকা পালন করেছে। অনলাইনে প্রচার-প্রচারণা চালিয়েছে। যারা সুজনের সঙ্গে যুক্ত তারা এবং ভলান্টিয়ার পিস অ্যাম্বাসেডররা সাংস্কৃতিক দল গঠন করে ব্যাপক প্রচারণা চালিয়েছে। তারা মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের নিয়ে মুখোমুখি অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে। এভাবে এ নির্বাচনে ব্যাপক জনসচেতনতা সৃষ্টি করা হয়েছে, যাতে ভোটাররা সৎ, যোগ্য ও জনকল্যাণে নিবেদিতপ্রাণ প্রার্থীদের ভোট দেয়। আমি মনে করি, এ সবকিছুর ফলেই নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে।বিস্তারিত

দারিদ্র্যজয়ের যুদ্ধটা এখনও চলছে

মো. মইনুল ইসলাম
১৬ ডিসেম্বর ছিল আমাদের মুক্তিযুদ্ধের বিজয়ের দিন। ১৯৭১-এর এই দিনে আমরা পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে জয়ী হয়েছিলাম। অর্জন করেছিলাম স্বাধীনতা এবং প্রতিষ্ঠা করেছিলাম স্বাধীন-সার্বভৌম রাষ্ট্র বাংলাদেশ। এজন্য দিতে হয়েছিল বিরাট মূল্য। ৩০ লাখ প্রাণ এবং দু’লাখের অধিক মা-বোনের সম্ভ্রমের বিনিময়ে অর্জিত হয় এ স্বাধীনতা। স্বাধীনতার জন্য এই যে বিরাট মূল্যদান- এর আদর্শ ও উদ্দেশ্যগুলোকে শুধু বিজয় দিবসের আনন্দ-উৎসবের মধ্যে সীমাবদ্ধ না রেখে একে নিত্যদিনের কর্ম ও চিন্তায় এগিয়ে নিয়ে যাওয়াই হওয়া উচিত আমাদের অঙ্গীকার। প্রাপ্তি ও প্রত্যাশার আলোকে মুক্তিযুদ্ধ ও বিজয়কে মূল্যায়ন করতে হবে এবং তাকে অর্থপূর্ণ করার জন্য রাষ্ট্রীয়ভাবে আমাদের প্রচেষ্টা যেন অব্যাহত থাকে সেদিকে সজাগ থাকতে হবে। আমাদের মুক্তিযুদ্ধটিবিস্তারিত

ছাদ-বাগানের উপকারিতা

নগরায়ণের চাপে ঢাকার ফাঁকা জায়গাগুলোয় বাড়িঘর, অফিস গড়ে উঠেছে। একটি ভবনের গা ঘেঁষে আরেকটি ভবন দেখা যায়। এমন ফাঁকা জায়গা নেই, যেখানে গাছ লাগানো যেতে পারে। ১৯৭৮ সালে এক ব্যক্তি শখের বসে নিজের বাড়ির ছাদে বাগান করেন। যত দূর জানা যায়, তার থেকেই ছাদ-বাগান বিস্তার লাভ করে। ঢাকা শহরে ১ কোটি ৭০ লাখ মানুষের বসবাস। ২০৩০ সালে এ জনসংখ্যা পৌঁছবে ২ কোটি ৭৪ লাখে। বিশ্বে ঘনবসতিপূর্ণ শহরের মধ্যে ঢাকার স্থান নবম। ঢাকার বায়ুকে সহজে দূষণমুক্ত করার এটিই সবচেয়ে ভালো উপায়, যা বাস্তবায়ন করা সহজ ও লাভজনক। জাপান, চীন, জার্মানিসহ বিশ্বের বহু দেশ তাদের ছাদগুলোকে সবুজায়ন করেছে। জাপানের টোকিওতে নতুন বাড়িরবিস্তারিত

    শাহেনশাহ-এ-গজল মেহদি হাসান

    উপমহাদেশের শ্রোতার কাছে তিনি ‘গজলসম্রাট’। অসাধারণ গায়কীতে তিনি মুগ্ধ করেছেন সঙ্গীতবোদ্ধাদের। অনবদ্য গায়নশৈলী, গানের প্রতি আবেগ আর মধুকণ্ঠের কারণে গজলের জগতে এক নিজস্ব ঘরানা তৈরি করেছেন মেহদি হাসান। তার জীবনকথা লিখেছেন সেলিম কামাল

    জন্ম ও শৈশব মেহদি হাসানের জন্ম অবিভক্ত ভারতে, ১৯২৭ সালের ১৮ জুলাই রাজস্থান প্রদেশের ঝুনঝুনু জেলার লুনা গ্রামের এক ঐতিহ্যবাহী শিল্পী পরিবারে। সঙ্গীতের প্রাচীন ধ্রুপদী ধারাকে প্রতিনিয়ত লালন করে, এমন পরিবারে মেহদি হাসান ছিলেন সঙ্গীতসাধনার ষোড়শ প্রজন্ম। শিশুকালেই তিনি তালিম নেন উচ্চাঙ্গসঙ্গীতে। পিতা ওস্তাদ আজিম খান ও চাচা ইসমাইল খান ছিলেন তার প্রথম শিক্ষাগুরু। কৈশোরেই চমক তার সঙ্গীতে দক্ষতা কিশোর বয়স থেকেই বিকশিত হতে শুরু করে। উদীয়মান প্রতিভা হিসেবে খুব দ্রুতই পরিচিতি লাভ করেন তিনি। শোনা যায়, একবার বারোদার মহারাজার দরবারে প্রায় চল্লিশ মিনিট রাগ ‘বসন্ত’ পরিবেশন করে উপস্থিত সবাইকে তাক লাগিয়ে দেন তিনি। তখন তার বয়স ছিল মাত্র আট বছর। দেশভাগের পর পাকিস্তানে ১৯৪৭-এরবিস্তারিত

    হিসাববিজ্ঞান * ইংরেজি দ্বিতীয়পত্র * জীববিজ্ঞান

    হিসাববিজ্ঞান মডেল টেস্ট

    মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান সরকার
    সিনিয়র শিক্ষক, মনিপুর উচ্চবিদ্যালয় ও কলেজ, মিরপুর, ঢাকা বহুনির্বাচনী অংশ ১. মুখ্য ব্যয়ের সঙ্গে মোট উপরিব্যয় যোগ করলে কী পাওয়া যায়? ক. মোট ব্যয় খ. নিট মুনাফা গ. নিট ক্রয়মূল্য ঘ. মোট বিক্রয়মূল্য ২. অপরিচালন ব্যয়- i. মূলধনের সুদ ii. শিক্ষানবিস ভাতা iii. উত্তোলনের সুদ নিচের কোনটি সঠিক? ক. i খ. ii গ. i ও ii ঘ. ii ও iii ৩. আয় বৃদ্ধি পেলে স্বত্বাধিকারি কী হয়? ক. বৃদ্ধি পায় খ. হ্রাস পায় গ. বৃদ্ধি/ হ্রাস পায় ঘ. আংশিক বৃদ্ধি পায় ৪. কোন হিসাবের জের টানা হয় না? ক. খতিয়ানের খ. জাবেদার গ. আয়-ব্যয় হিসাবের ঘ. ক্রয় হিসাবের উদ্দীপকটি পড় এবং ৫ ও ৬ নং প্রশ্নের উত্তর দাও। কাঁচামাল ৮০,০০০ টাকা, প্রত্যক্ষ মজুরি ২০,০০০ টাকা, প্রত্যক্ষ অন্যান্যবিস্তারিত
    আর্কাইভ
    প্রিন্ট সংস্করণ অনলাইন সংস্করণ
    Content loader
    Content loader

    আজকের আবহাওয়া

    আজকের প্রশ্ন

    স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, নিখোঁজ নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। আপনিও কি আতঙ্কিত বোধ করছেন না?
     হ্যাঁ না মতামত নেই

    বিজ্ঞাপন

    logo
    বুধবার, ১৭ জুলাই ২০১৯ ইং
    ফজর৬.০৫
    যোহর১.১৫
    আসর৪.১৫
    মাগরিব৫.৩০
    এশা৭.৩০
    সূর্যোদয় - ৬.৪০সূর্যাস্ত - ৫.২০
    ৭ দিনের প্রধান শিরোনাম
    মেষ
    বৃষ
    মিথুন
    কর্কট
    সিংহ
    কন্যা
    তুলা
    বৃশ্চিক
    ধনু
    মকর
    কুম্ভ
    মীন
    মেষ (২১ মার্চ - ২০ এপ্রিল)
    বন্ধুদের কেউ আজ গুরুত্বপূর্ণ কাজে বিঘ্ন সৃষ্টি করতে পারে। অধীনস্থদের কাজে লাগানো সহজ হবে। যাত্রা শুভ। প্রেম ও রোমান্স শুভ।
    বৃষ (২১ এপ্রিল - ২১ মে)
    ব্যবসায়িক কাজে অগ্রগতি হবে। পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ করুন। যে কোনা ধরনের উত্তেজনা পরিহার করার চেষ্টা করুন। যাত্রা শুভ।
    মিথুন (২২ মে - ২১ জুন)
    অধীনস্থদের কাজে লাগাতে চেষ্টা করুন। অপরাহ্নে আত্মীয় সমাগম হতে পারে। সচেষ্ট হলে পাওনা আদায় সহজ হবে। রোমান্স শুভ।
    কর্কট (২২ জুন - ২২ জুলাই)
    যৌথ কাজে অগ্রগতি ভালো। দূরের কোনো তথ্য বিভ্রান্তির সৃষ্টি করতে পারে। দূরের যাত্রায় সঙ্গী নেয়া ভালো। প্রেম ও রোমান্স শুভ নয়।
    সিংহ (২৩ জুলাই - ২৩ আগস্ট)
    প্রভাবশালীদের মন জুগিয়ে চলার চেষ্টা করুন। জনসংযোগ ও প্রচারমূলক কাজ শুভ। পারিবারিক কাজ দিনের শুরুতেই সেরে নেয়া ভালো।
    কন্যা (২৪ আগস্ট - ২৩ সেপ্টেম্বর)
    কর্মস্থলে স্বাভাবিক পরিবেশ বজায় রাখুন। ঋণ প্রদান থেকে বিরত থাকুন। সন্তানদের কোনো ভালো খবর পাবেন। যাত্রা শুভ।
    তুলা (২৪ সেপ্টেম্বর - ২৩ অক্টোবর)
    রাজনৈতিক তৎপরতা শুভ। প্রতিবেশীর সঙ্গে সম্পর্কের উন্নতি হবে। প্রিয়জনের কোনো সুখবর পাবেন। কেনাকাটা শুভ। প্রেম ও রোমান্স শুভ।
    বৃশ্চিক (২৪ অক্টোবর - ২২ নভেম্বর)
    ব্যবসায়িক কাজে অগ্রগতি হবে। পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ করুন। উত্তেজনা পরিহার করার চেষ্টা করুন। যাত্রা শুভ।
    ধনু (২৩ নভেম্বর - ২১ ডিসেম্বর)
    ইচ্ছার বিরুদ্ধে কোনো কিছু করা ঠিক হবে না। কেনাকাটায় ব্যয় বৃদ্ধি পাবে। সৃজনশীল যোগাযোগ শুভ। যাত্রা শুভ। বিনোদন শুভ।
    মকর (২২ ডিসেম্বর - ২০ জানুয়ারি)
    কেনাকাটায় চাকচিক্য দেখে ভুলবেন না। আজ অসৎ বন্ধুর কারণে অর্থনাশ হতে পারে। মামলা-মোকদ্দমা থেকে নিষ্কৃতি পেতে পারেন।
    কুম্ভ (২১ জানুয়ারি - ১৮ ফেব্রুয়ারি)
    কোনো তথ্য পেয়ে চিন্তামুক্ত হতে পারেন। নিকট আত্মীয়ের সাহায্যে আয় বৃদ্ধি পাবে। প্রেম ও রোমান্স শুভ। দূরের যাত্রা শুভ।
    মীন (১৯ ফেব্রুয়ারি - ২০ মার্চ)
    জনসংযোগ ও প্রচারমূলক কাজে সহযোগিতা পাবেন। বিনিয়োগ শুভ নাও হতে পারে। যাত্রা শুভ।

    ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

    প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

    পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

    Design and Developed by

    © ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত