দখলের মহোৎসব!

১০২টি ফ্ল্যাটের ৭৩টিই হাতছাড়া * একাধিকবার দখল ছাড়ার নির্দেশ দিলেও কাজ হয়নি। একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির প্রতিবেদনের ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেয়া হবে : মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী

উবায়দুল্লাহ বাদল
যুদ্ধাহত, মৃত যুদ্ধাহত ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের জন্য নবনির্মিত বহুতল ভবন- ‘মুক্তিযোদ্ধা টাওয়ার-১’ ও পুরনো দ্বিতল ভবন লুটেপুটে খাচ্ছে অবৈধ দখলদাররা। তাদের একজন দিনাজপুরের লুৎফর রহমান। রাজধানীর মোহাম্মদপুরে ১৫ তলাবিশিষ্ট এ ভবনের একটি ফ্ল্যাট (ফ্ল্যাট নম্বর ১২-জে) প্রায় চার বছর ধরে অবৈধভাবে নিজের দখলে রেখেছেন মুক্তিযোদ্ধার দাবিদার এ লুৎফর। বরাদ্দ না থাকায় ফ্ল্যাট ছাড়তে কর্তৃপক্ষ নোটিশ দিলেও সেটির কোনো তোয়াক্কা করছেন না তিনি। এমনকি তিনি মুক্তিযোদ্ধা কিনা সে ব্যাপারে অভিযোগ উঠলেও অদ্যাবধি মুক্তিযোদ্ধার সপক্ষে কোনো প্রমাণাদি দেখাতে পারেননি। শুধু লুৎফরই নয়, যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধার দাবিদার বগুড়ার আবু শহীদ বিল্লাহ (বকুল) ও তার অমুক্তিযোদ্ধা সন্তান ওষুধ ব্যবসায়ী নাহিদ বিল্লাহ মিলে (ফ্ল্যাট নম্বর ৭-এল,বিস্তারিত

জনস্বার্থের রায় উপেক্ষিত

ফুটপাতে মোটরসাইকেল চলছেই, হয়নি দখলমুক্ত * সংরক্ষণ হয়নি সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ঐতিহাসিক স্থান * ঢাকার চার নদ-নদীর অবস্থা এখনও বেহাল * পুরোপুরি বন্ধ হয়নি হাইড্রোলিক হর্ন * নির্দেশনা না মানা আদালত অবমাননার শামিল : মনজিল মোরসেদ * ফুটপাত দুখলমুক্ত আসলে মাছি তাড়ানোর মতো : পুলিশ কর্মকর্তা

আলমগীর হোসেন
জনস্বার্থে সুপ্রিমকোর্টের হাইকোর্ট ও আপিল বিভাগ থেকে বেশকিছু রায় ও নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। ফুটপাতে মোটরসাইকেল চালানো অবৈধ ঘোষণা, ফুটপাত দখলমুক্ত করা, সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ঐতিহাসিক স্থান সংরক্ষণ, হাইড্রোলিক হর্ন বন্ধের নির্দেশ, ঢাকার চার নদ-নদী রক্ষায় উদ্যোগ- বিভিন্ন সময়ে দেয়া এসব রায় ও নির্দেশনার অধিকাংশই বাস্তবায়ন হয়নি। সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নিষ্ক্রিয়তা, উদাসীনতা ও অবহেলার কারণে বছরের পর বছর ধরে তা উপেক্ষিতই রয়ে গেছে। এ ক্ষেত্রে যারা রায় মানছেন না তাদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেয়ার কথা বলছেন আইন বিশেষজ্ঞরা। বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান, সিনিয়র আইনজীবী অ্যাডভোকেট আবদুল বাসেত মজুমদার যুগান্তরকে বলেন, উচ্চ আদালতের রায় যারা বাস্তবায়ন করছেন না তাদের আইনের আওতায় আনা দরকার। তাদের বিরুদ্ধেবিস্তারিত

ডিসেম্বরে ঘুচবে আক্ষেপ!

বাংলাদেশ-ভারত ফাইনাল আজ

স্পোর্টস রিপোর্টার
মেয়েদের সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের শিরোপার হাতছানি মারিয়া মান্ডাদের সামনে। লীগপর্বের ফলাফল স্বপ্নের সলতে উসকে দিয়েছে। হোক ভারত যত শক্ত প্রতিপক্ষ। লীগের শেষ ম্যাচে ভারতকে হারিয়েছে বাংলাদেশ। এবারও ভারতকে হারিয়ে শিরোপা জিততে চায় বাংলাদেশ। কে জিতবে সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ ফুটবলের শিরোপা? উত্তর পাওয়া যাবে আর ঘণ্টাকয়েক পর। আজ ফাইনাল। দুপুর ২টায় কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে শুরু হবে ম্যাচ। সরাসরি সম্প্রচার করবে বিটিভি ও বাংলা টিভি। গ্যালারি উন্মুক্ত। কাল সারাদিন গুলিস্তান, মতিঝিল, কমলাপুর এলাকায় মাইকিং করা হয়েছে খেলা দেখতে আসার জন্য। দর্শকদের মধ্যে আগ্রহ তৈরি করতে এমন আয়োজন বাফুফের। সংবাদ সম্মেলনেও বাংলাদেশের কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন দর্শকদের আহ্বান জানিয়েছেন খেলাবিস্তারিত

দেশে ফিরে ববিতার এখন মন খারাপ

আনন্দনগর প্রতিবেদক
টানা কয়েক মাস একমাত্র ছেলে অনিকের সঙ্গে থেকে গেল সপ্তাহে দেশে ফিরেছেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন নায়িকা ববিতা। কিন্তু দেশে ফেরার পরই কয়েকটি কারণে মন খারাপ তার। রাজধানীর গুলশানের নতুন বাসায় একাই থাকেন তিনি। যেহেতু এখন চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন না তিনি তাই বলা যায় অনেকটাই অলস সময় কাটে তার। তাই দেশে ফিরলেও অনিকের কাছেই চলে যেতে মন চাইছে তার। ববিতা বলেন, ‘ছেলের সঙ্গেই থাকতে এখন বেশি ভালোলাগে আমার। যেহেতু এখানে একা থাকি এবং অভিনয়ও এখন আর করি না, তাই সময় একেবারেই কাটতে চায় না। বিগত যে কয়েকটি মাস কানাডায় অনিকের কাছে ছিলাম, খুব ভালো ছিলাম আমি। অনিক আমাকে যথেষ্ট সময় দিয়েছে। আমারবিস্তারিত

রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধ আসন্ন

ট্রাম্পের নতুন নিরাপত্তা নীতি অবশ্যই আক্রমণাত্মক : পুতিন * ট্রাম্প বিশ্বকে দাবিয়ে রাখতে চাচ্ছেন : উ কোরিয়া * আমেরিকা বোকার মতো মধ্যপ্রাচ্যে অর্থ খরচ করেছে : ট্রাম্প

যুগান্তর ডেস্ক
রাশিয়ার সঙ্গে যুদ্ধ অনিবার্য হয়ে উঠেছে বলে হুশিয়ারি দিয়েছেন এক শীর্ষস্থানীয় মার্কিন সেনা কমান্ডার। মার্কিন মেরিন কোরের কমান্ডার জেনারেল রবার্ট নিলার বৃহস্পতিবার নরওয়ে সফরে সেখানে মোতায়েন মার্কিন মেরিন সেনাদের উদ্দেশে বক্তব্য রাখতে গিয়ে এ হুশিয়ারি দেন। জেনারেল নিলার তার বাহিনীকে প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে মোতায়েন হওয়ার জন্য প্রস্তুতি নেয়ার নির্দেশ দেন। বিশ্লেষকদের মতে, তার এ ঘোষণার মধ্য দিয়ে এটা স্পষ্ট যে, মার্কিন সরকার এ মুহূর্তে মধ্যপ্রাচ্যের চেয়ে রাশিয়া ও প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলকে প্রাধান্য দিতে যাচ্ছে। রাশিয়া ও চীনকে যুক্তরাষ্ট্রের কৌশলগত প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে ঘোষণা দিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প একটি নতুন জাতীয় নিরাপত্তা কৌশল প্রণয়নের কয়েকদিন পরই নরওয়ে সফরে যান জেনারেল নিলার।বিস্তারিত

ভারতের পেট্রাপোলে ইমিগ্রেশনে ধীরগতি

প্রতিদিন দুর্ভোগে বাংলাদেশি হাজারও যাত্রী

কামাল হোসেন, বেনাপোল (যশোর)
বেনাপোল আন্তর্জাতিক চেকপোস্টের বিপরীতে ভারতের পেট্রাপোল পুলিশ ইমিগ্রেশনের কাজ চলছে ধীরগতিতে। এতে প্রতিদিন ভারতগামী বাংলাদেশি হাজারও পাসপোর্ট যাত্রী সীমাহীন দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন। ঘণ্টার পর ঘণ্টা লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা রোগী, শিশুসহ নারী যাত্রীরা জানেন না তারা কখন পার হতে পারবেন। বেনাপোল দিয়ে প্রতিদিন ৭ হাজার পাসপোর্ট যাত্রী যাচ্ছেন ভারতে। প্রতিদিনই যাত্রীদের এ দুর্ভোগের অভিযোগ করা হলেও ভারতীয় ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না। শুক্রবার সকাল থেকে দাঁড়িয়ে থেকে সন্ধ্যায় ক্লান্ত-শ্রান্ত ঢাকার মায়ারানি দাস বলেন, ‘আর পারছি না। একটানা তিন ঘণ্টা একই স্থানে দাঁড়িয়ে আছি। লাইনের লোক যে যেখানে ছিল, সেখানেই আছে।’ বেনাপোল ইমিগ্রেশন সূত্র জানায়, এ পথে প্রতিদিনই যাত্রী বাড়ছে। তবে বাংলাদেশ অংশে যাত্রীদেরবিস্তারিত

ট্রাম্পের পরাজয় সাম্রাজ্যবাদ ধ্বংস হওয়ার প্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করবে

বদরুদ্দীন উমর
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প একতরফাভাবে জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী ঘোষণার সঙ্গে সঙ্গেই বিশ্বজুড়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া দেখা গেছে। এই প্রতিক্রিয়া শুধু দুনিয়ার মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকেনি। এমনকি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান মিত্রশক্তি ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশ এবং জাপানের মতো মিত্রের মধ্যেও এর বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিক্রিয়া এমন এক ব্যাপার, যা ইতিপূর্বে কোনো ইস্যুতেই দেখা যায়নি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নেতৃত্বাধীন সাম্রাজ্যবাদী মহলের যে ঐক্য দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর দেখা গিয়েছিল সে ঐক্য যে এখন খানখান হওয়ার পথে, এ হল তার একটি অভ্রান্ত প্রমাণ। ট্রাম্পের উপরোক্ত ঘোষণার পর জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ এক জরুরি বৈঠকে মিলিত হয়ে তার ওই ঘোষণা নাকচ করে দিয়েছে। এ প্রশ্নে ভোটাভুটির সময়বিস্তারিত

যানজট সমস্যার সমাধান উড়াল সেতু নয়

ইকতেদার আহমেদ
পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের রাজধানী শহরসহ গুরুত্বপূর্ণ শহরগুলোর অভ্যন্তরের যানজট সমস্যা নিরসনে উড়াল সেতুকে একটি সমাধান হিসেবে বিবেচনা করা হয়। এসব দেশে উড়াল সেতু নির্মাণকালীন সর্বাগ্রে যে বিষয়টি বিবেচনা করা হয় তা হল- উড়াল সেতুতে ওঠা ও নামার সময় যানবাহনগুলো যেন কোনো ধরনের যানজটের মুখে না পড়ে এবং উড়াল সেতুর পার্শ্বস্থ নিন্মের সড়কের প্রসারতার যেন হ্রাস না ঘটে। তাছাড়া উড়াল সেতু নির্মাণকালীন এমনভাবে পরিকল্পনা করা হয়, যাতে তা শহরের সামগ্রিক যানবাহন চলাচলের গতিকে কোনো স্থানে স্লথ না করে দেয়। পৃথিবীর অনেক উন্নত দেশ শহরের অভ্যন্তরে উড়াল সেতু নির্মাণের পরিবর্তে টানেল, ইউলুপ, বিভিন্ন মোড় বা ইন্টার সেকশনে চতুর্মুখী ওভারপাস ও আন্ডারপাস নির্মাণবিস্তারিত

কোটিপতিদের রহস্যময় গ্রাম

চীনের রহস্যময় একটি গ্রাম হুয়াজি। গ্রামের সবাই কোটিপতি। অথচ একসময় এ গ্রামের মানুষ ছিল খুবই গরিব। কৃষিকাজ ছিল তাদের একমাত্র পেশা। আর এখন তারাই বিশ্বের সবচেয়ে ধনী প্রামের বাসিন্দা। প্রত্যেকের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে রয়েছে ২৫ লাখ ডলার (বাংলাদেশি টাকায় প্রায় ২১ কোটি ২৪ লাখ টাকা)। গণমাধ্যমে চীনের হুয়াজি নামের গ্রামটি সবচেয়ে ধনী মানুষের গ্রাম হিসেবে পরিচিত হয়ে উঠেছে। চীনের জিয়াংশু প্রদেশের এ গ্রামটিকে কমিউনিস্ট ইউটোপিয়া বা ‘সাম্যবাদের কল্পরাজ্য’ বলা হচ্ছে। এছাড়া হুয়াজি ‘আকাশের নিচে এক নম্বর’ গ্রাম হিসেবেও পরিচিত। হুয়াজির সবকিছুই রহস্যময়। গণমাধ্যমের সামনে কারও কথা বলার অনুমতি নেই। একসময়ের খুব সাধারণ কৃষকসমাজ ইস্পাত ও জাহাজের বাজার থেকে বহু কোটি টাকার সম্পদবিস্তারিত

বাংলা দ্বিতীয়পত্র * হিসাববিজ্ঞান * কৃষিশিক্ষা

বাংলা দ্বিতীয়পত্র মডেল টেস্ট

উজ্জ্বল কুমার সাহা
প্রভাষক, সেন্ট যোসেফ উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, মোহাম্মদপুর, ঢাকা ১. ‘যা বলা হয়নি’- তাকে এক কথায় কী বলে? ক. অকথ্য খ. অব্যক্ত গ অনুক্ত ঘ. দুর্বাচ্য ২. যৌগিক বাক্যকে সরল বাক্যে রূপান্তর করতে অব্যয় পদ থাকলে তা কী করতে হয়? ক. পরিবর্তন খ. গ্রহণ গ. বর্জন ঘ. রূপান্দর ৩. বাক্যের অর্থ প্রকাশে সহায়তা করে কোনটি? ক. প্রত্যয় খ. উপসর্গ গ. কর্মপ্রবচনীয় ঘ. বিভক্তি ৪. ব্যতিহার কর্তা রয়েছে কোনটিতে? ক. মা শিশুকে চাঁদ দেখাচ্ছেন খ. রাখাল গরুর পাল লয়ে যায় মাঠে গ. তোমাকে পড়তে হবে ঘ. বাঘে-মহিষে একঘাটে পানি খাবে না ৫. অজ্ঞাতমূলক ধাতু কোনটি? ক. বুধ্ খ. বুঝ্ গ. র্হে ঘ. বিগড় ৬. ‘পাতিস নে শিলাতলে পদ্মপাতা’- এ বাক্যে বর্তমানের অনুজ্ঞা কী অর্থে ব্যবহার হয়েছে? ক.বিস্তারিত
আর্কাইভ
প্রিন্ট সংস্করণ অনলাইন সংস্করণ
Content loader
Content loader

আজকের আবহাওয়া

আজকের প্রশ্ন

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, নিখোঁজ নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। আপনিও কি আতঙ্কিত বোধ করছেন না?
 হ্যাঁ না মতামত নেই

বিজ্ঞাপন

logo
বুধবার, ২৪ জুলাই ২০১৯ ইং
ফজর৬.০৫
যোহর১.১৫
আসর৪.১৫
মাগরিব৫.৩০
এশা৭.৩০
সূর্যোদয় - ৬.৪০সূর্যাস্ত - ৫.২০
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম
মেষ
বৃষ
মিথুন
কর্কট
সিংহ
কন্যা
তুলা
বৃশ্চিক
ধনু
মকর
কুম্ভ
মীন
মেষ (২১ মার্চ - ২০ এপ্রিল)
বয়স্কদের মতামত অনুযায়ী কাজের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিন। কাউকে আজ আর্থিক কোনো সিদ্ধান্ত দেয়ার আগে আরও চিন্তাভাবনা করুন।
বৃষ (২১ এপ্রিল - ২১ মে)
বয়স্ক ও অধীনস্থদের কাজে লাগানো সহজ হবে। নিকট আত্মীয়ের আচরণ সম্পর্কে সতর্ক থাকুন। প্রেম ও রোমান্স শুভ। যাত্রা শুভ।
মিথুন (২২ মে - ২১ জুন)
কারও কথায় বিশ্বাস করে ব্যবসায়িক সিদ্ধান্ত পাল্টানো ঠিক হবে না। প্রিয়জনের স্বাস্থ্যের চিকিৎসার প্রয়োজন রয়েছে। দূরের যাত্রা শুভ।
কর্কট (২২ জুন - ২২ জুলাই)
যৌথ ও অংশীদারি কাজে যথেষ্ট কৌশলী হতে হবে। নিজের ইচ্ছার বিরুদ্ধে কিছু করা ঠিক হবে না। দূরের যাত্রায় সাবধান থাকুন।
সিংহ (২৩ জুলাই - ২৩ আগস্ট)
প্রিয়জনের কোনো সুখবর পাবেন। কাউকে নতুন কোনো প্রতিশ্রুতি দেয়ার আগে ভেবে নিন। পরিচিত কেউ ঝামেলার কারণ হতে পারে।
কন্যা (২৪ আগস্ট - ২৩ সেপ্টেম্বর)
অধীনস্থদের কারণে কর্মস্থলে ঝামেলা দেখা দিতে পারে। পুরনো পাওনা আদায়ে অগ্রগতি হবে। প্রিয়জনের স্বাস্থ্য চিন্তার কারণ হতে পারে। পানাহারে সতর্ক থাকুন।
তুলা (২৪ সেপ্টেম্বর - ২৩ অক্টোবর)
মানসিক অস্থিরতার জন্য পুরনো কোনো সমস্যার সমাধান কষ্টকর হবে। কোনো কারণে ব্যয় বৃদ্ধি পাবে। বিয়ের আলোচনা শুভ।
বৃশ্চিক (২৪ অক্টোবর - ২২ নভেম্বর)
অধীনস্থ কারও জন্য আজ জটিল কাজ সম্পাদন কষ্টকর হবে। প্রভাবশালীদের ব্যাপারে সচেতন থাকুন। দূরের যাত্রায় পানাহারে সতর্ক থাকুন।
ধনু (২৩ নভেম্বর - ২১ ডিসেম্বর)
অন্যের কথায় পারিবারিক কোনো সিদ্ধান্ত পাল্টানো ঠিক হবে না। বিয়ের আলোচনায় বয়স্কদের মতামতকে গুরুত্ব দিন। দূরের যাত্রা ও যোগাযোগ শুভ।
মকর (২২ ডিসেম্বর - ২০ জানুয়ারি)
আপনার নিজের কোনো কাজের ব্যাপারে আজ অবহেলা করবেন না। কর্মস্থলে প্রশাসনিক কাজে কঠোর হলে অধীনস্থদের কর্মমুখী রাখা কঠিন হবে।
কুম্ভ (২১ জানুয়ারি - ১৮ ফেব্রুয়ারি)
আজ দাফতরিক কাজে আগের চেয়ে মনোযোগী হোন। বয়স্কদের সঙ্গে আলোচনায় সতর্ক হোন। দূরের যাত্রা শুভ। রোমান্স শুভ।
মীন (১৯ ফেব্রুয়ারি - ২০ মার্চ)
পুরনো কোনো বন্ধুর জন্য আজ ব্যয় বৃদ্ধি পাবে এবং ঝামেলায় জড়াতে পারেন।

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Design and Developed by

© ২০০০-২০১৭ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত