¦
উলিপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে স্কুলছাত্র ও গৃহবধূর মৃত্যু : ভাংচুর

কুড়িগ্রাম ও উলিপুর প্রতিনিধি | প্রকাশ : ০৯ মে ২০১৫

কুড়িগ্রাম জেলার উলিপুর উপজেলায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক স্কুলছাত্র ও এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। কৃষক লাল মিয়ার ছিঁড়ে পড়া বৈদ্যুতিক তার জড়িয়ে দুজনের এ মৃত্যু হয়। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজিত এলাকাবাসী শুক্রবার দুপুরে লাল মিয়ার বাড়িতে ভাংচুর চালায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।
জানা যায়, উলিপুর হাতিয়া ইউনিয়নের বাগুয়া অনন্তপুর গ্রামের একরামুল হোসেনের স্ত্রী আমেনা বেগম ও কৃষক জাবেদ আলীর ছেলে বালার চর নাসিরিয়া দাখিল মাদ্রাসার ৭ম শ্রেণীর ছাত্র আতিকুর রহমান আতিকের মৃত্যু হয়। শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে আতিক এলাকায় বন্ধুদের সঙ্গে ক্রিকেট খেলছিল। এ সময় পাশের জমি থেকে বল আনতে গিয়ে ছিঁড়ে পড়া বিদ্যুতের তারে পা জড়িয়ে যায়। তার আত্মচিৎকার শুনে প্রতিবেশী গৃহবধূ আমেনা বেগম আতিককে উদ্ধার করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়। সজ্ঞাহীন অবস্থায় স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে উলিপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে আবাসিক মেডিকেল অফিসার রফিকুল আলম সরদার তাদের মৃত ঘোষণা করেন। দুজনের মৃত্যুর খবর পেয়ে এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। দুপুরের দিকে নিহতের আত্মীয়-স্বজনরা লাল মিয়ার বাড়িতে হামলা করে। এ সময় দরজা-জানালা, টিনের বেড়া ও আসবাবপত্র ভাংচুর করে।
হাতিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, চৌমোহনী গ্রামের লাল মিয়া নিজের জমিতে সেচ দেয়ার জন্য বৈদ্যুতিক সংযোগ নেন। ক্ষেতের মাঝে সেচ মেশিন ঘর। সেখান থেকে বাঁশের খুঁটি লাগিয়ে বাড়িতে বিদ্যুৎ সংযোগ নেয়। বৃহস্পতিবার রাতে ঝড়ে সংযোগ তারটি ছিঁড়ে পড়ে ক্ষেতে। সময়মতো ছেঁড়া তারটি সড়িয়ে না নেয়ায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। বিষয়টি মীমাংসার চেষ্টা চলছে। উলিপুর থানার অফিসার ইনচার্জ জমিদার রহমান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, দুপুর থেকে ঘটনাস্থলে এসআই হাবিবুর রহমানের নেতৃত্বে একদল পুলিশ অবস্থান করছে। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আবুল হোসেনের উপস্থিতিতে সমঝোতার বৈঠক চলছে।
বাংলার মুখ পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close