¦
হাকালুকি হাওর দেশের অন্যতম পরিযায়ী পাখির আবাসস্থল

আজিজুল ইসলাম, কুলাউড়া থেকে | প্রকাশ : ০৯ মে ২০১৫

এশিয়ার বৃহত্তম হাওর হাকালুকি দেশের অন্যতম পরিযায়ী পাখির আবাসস্থল। প্রতিবছর এখানে উল্লেখযোগ্যসংখ্যক পরিযায়ী পাখির সমাবেশ ঘটে। তাছাড়া এখানে দেখা মেলে বিরল ও বিলুপ্ত প্রজাতির পাখির। হাওর তীরের জেলাশহর মৌলভীবাজারে পালিত হচ্ছে বিশ্ব পরিযায়ী পাখি দিবস। এ উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতায় দিবসটি পালনের উদ্যোগ নিয়েছে মৌলভীবাজারের বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগ। মৌলভীবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মিলনায়তনে দিবসটি পালনে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। দেশে যেসব স্থানে অতিথি পাখি বা পরিযায়ী পাখির সমাগম ঘটে তার মধ্যে হাকালুকি হাওর অন্যতম। পরিবেশ অধিদফতর অধীনে এই হাওরে ২০০৪ সাল থেকে পাখি শুমারি শুরু হয়। শুধুমাত্র ২০১২ সাল ব্যতীত প্রতি বছরই পাখি শুমারি অনুষ্ঠিত হয়। দেশের খ্যাতিমান পাখি বিশেষজ্ঞ ও বাংলাদেশের বার্ড ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা ইনাম আল হকের নেতৃত্বে বাংলাদেশ বার্ড ক্লাবের সদস্য ও দেশী-বিদেশী পাখি বিশেষজ্ঞরা মূলত এই পাখি শুমারিতে অংশ নিয়ে থাকেন। যদিও হাওর এলাকায় ১১২ প্রজাতির পরিযায়ী পাখি এবং ৩০৫ প্রজাতির পাখি বিচরণ করে। কিন্তু প্রতিবছর শুমারি শেষে পাখি বিশেষজ্ঞদের দেয়া তথ্য মতে প্রায় প্রতিবছরই হাকালুকি হাওরে ৬০ থেকে ৬৫ প্রজাতির পাখির সন্ধান পেওয়া যায়। সংখ্যায়ও সেগুলো ২০ থেকে ৩০ সহস্রাধিক। তাছাড়া বিলুপ্ত ও বিরল প্রজাতির পাখির দেখা মেলে এই হাওরে। বাংলাদেশ বার্ড ক্লাবের তথ্য মতে, ২০০৯ সালের মার্চ মাসে প্রথম দফায় ১৬টি পাখির গায়ে স্যাটেলাইট ট্রান্সমিটার এবং ৩৪টি পাখির পায়ে রিং লাগানো হয়। চলতি বছর দ্বিতীয় দফায় গত ১৮ থেকে ২৪ ফেব্র“য়ারি হাকালুকি হাওরে অতিথি পাখির পায়ে রিং লাগানো হয়। এই রিং লাগানো কার্যক্রম পরিচালনা করতে গিয়ে বাংলাদেশ বার্ড ক্লাবের সদস্যরা বিরল প্রজাতির কিছু পাখির সন্ধান পেয়েছেন। সেই তালিকায় রয়েছে পাতারি ফুটকি, তিলা ঝাড়ফুটকি, পালাসি ফড়িংফুটকি, বৈকাল ঝাড়ফুটকি এবং লালাচাঁদি ফুটকি।
বাংলার মুখ পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close