¦
আমি অপমানিত হয়েছি : হাসিনা

ঢাকা, ২৬ জানুয়ারি | প্রকাশ : ২৬ জানুয়ারি ২০১৫

বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ের সামনে থেকে ফিরে যাওয়াকে অপমান হিসেবে দেখছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে আরাফাত রহমান কোকোর মৃত্যুতে সমবেদনা জানাতে গুলশান যাওয়ার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান মন্ত্রিসভার সদস্যরা।
 এ সময় বিষয়টি সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সেখানে গিয়ে আমি অপমানিত হয়েছি। বাইরে দাড়িয়ে থেকে ফিরে আসতে হলো। বেইজ্জিতির ব্যাপার। সামান্যতম সৌজন্যতাবোধ দেখানো উচিত ছিল। তাও দেখালো না।
নাম প্রকাশ না করার শর্তে সরকারের কয়েকজন মন্ত্রী এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
মন্ত্রীরা জানান, মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে গুলশান কার্যালয়ে শোক জানাতে যাবার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানানো হয়েছে।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বরাত দিয়ে মন্ত্রীরা জানান, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, আমি সেখানে রাজনীতি করতে যাইনি। সেখানে গিয়েছিলাম মানবিক কারণে।
একজন মায়ের শোকে, কেবল একজন মা হিসেবে।কিন্তু আমি অপমানিত হয়েছি।আমি এটা আশা করিনি।কারণ আমি যোগাযোগ করে গিয়েছি। সেখানে বড় গেট তো বন্ধ ছিল। অন্তত ছোট গেট খোলা থাকবে। সেটিও তালা মারা ছিল। তিনি আরো বলেন, সেখানে বিএনপির নেতারাও ছিলেন। তারা ইচ্ছে করলে কথা বলতে পারতেন।
এ সময় মন্ত্রীরা প্রধানমন্ত্রীকে বলেন, আপনার সেখানে যাওয়া যথার্থ ছিল। ‘আপননি অপমানিত হননি। তার প্রমাণ, বিএনপির জ্যেষ্ঠ নেতা মওদুদ আহমদ বলতে বাধ্য হয়েছেন, এ আচরণ করা ঠিক হয় নাই।
এর মানে তারা বিরাট একটা ভুল করেছে। তাই আপনি অপমানিত হননি,  বরং এ আচরনে তারাই অপমানিত হয়েছে।
উল্লেখ্য শনিবার রাতে ছোট ছেলের মৃত্যুর পর খালেদা জিয়াকে সমবেদনা জানাতে গুলশান কার্যালয়ে গিয়ে ফিরে আসেন প্রধানমন্ত্রী।

সর্বশেষ খবর পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close