¦
অর্থমন্ত্রী বহিষ্কার ও শাস্তি দাবী করেছে হেফাজত

হাটহাজারী ২ ফেব্রুয়ারি : | প্রকাশ : ০২ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

ইসলামের পঞ্চম স্তম্ভ নিয়ে কটুক্তি করায় সাবেক মন্ত্রী লতিফ সিদ্দিকী এবং সমাজ কল্যাণ মন্ত্রী মহসিন আলীর পর এবার অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহতিরে বহিষ্কার ও কঠোর শাস্তি দাবী করেছে হেফাজত ইসলাম।
সোমবার সংবাদপত্রে দেয়া এক বিবৃতিতে হেফাজত আমীর আল্লামা শাহ্ আহমদ শফী এ দাবি জানান।
বিবৃতিতে তিনি বলেন, ধর্মনিরপেক্ষ নীতির আড়ালে মূলতঃ নাস্তিব্যবাদের প্রসার ঘটানো হচ্ছে। ‘ইসলামি ব্যাংকিং একান্তই একটি ফ্রড বা প্রতারণা। ভুলের উপর নির্ভর করে ইসলামী ব্যাংকিং হচ্ছে, সুদ মানবিক চিন্তাধারার উপর নির্ভর করে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে এবং ভুলের উপর ভিত্তি করেই ইসলামিক ব্যাংকিং হয়েছে’ উল্লেখ করে গত ১ ফেব্রুয়ারী রবিবার জাতীয় সংসদে দেয়া অর্থমন্ত্রীর বক্তব্যের তীব্র প্রতিবাদ ও কঠোর নিন্দা জানিয়ে অর্থমন্ত্রীকে মন্ত্রীসভা থেকে বহিষ্কারসহ দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবী জানাচ্ছি।
বিবৃতিতে হেফাজত আমীর বলেন, আল্লাহ তাআলা ক্রয়-বিক্রয় বৈধ করেছেন এবং সূদ হারাম করেছেন।  পবিত্র কুরআনের নির্দেশনা মতে অর্থমন্ত্রী সুদ ঘুষের স্বপক্ষে অবস্থান নিয়ে ও অপব্যখ্যামূলক বক্তব্য দিয়ে মূলতঃ নিজেকে জাহান্নামী ও শয়তানে আসর করা মোহাবিষ্ট ব্যক্তি হিসেবে সাব্যস্ত করেছেন।
তিনি বলেন, বর্তমান অর্থমন্ত্রী এর আগে ঘুষ ও দুর্নীতির সপক্ষে সাপাই গেয়ে বক্তব্য দিয়ে ইসলাম অবমাননা ও অনৈতিকতার পক্ষ নিয়ে জনমনে ব্যাপক উদ্বেগ তৈরী করেছিলেন। একের পর এক ইসলাম ও নৈতিকতার বিরুদ্ধে তিনি বক্তব্য দিয়ে যাবেন, এটা মেনে নেয়ার কোন সুযোগ নেই। ইসলামের বিরুদ্ধে কথা বলে কাউকে পার পেতে দেওয়া হবে না।
তিনি বলেন, ক্ষমতাসীন সরকার কর্তৃক সংবিধান থেকে আল্লাহর উপর আস্থা ও বিশ্বাসের নীতি বাতিল এবং ধর্মনিরপেক্ষ নীতি প্রতিষ্ঠার পর থেকে দেশে অনৈতিকতা, বেহায়াপনা ও জোর-জুলুমের বিস্তারের পাশাপাশি রাসূল অবমাননা ও ইসলাম বিরোধী বক্তব্য গত কয়েক বছরে আশংকাজনক হারে বেড়ে গেছে। তিনি ইসলাম বিদ্বেষীদের ব্যাপারে গণসচেতনতা তৈরীর জন্য দেশের আলেম সমাজ ও হেফাজতের নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।

সর্বশেষ খবর পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close