¦
ঝালকাঠিতে পিপি হত্যায় ৫ জঙ্গির মৃত্যুদন্ড

ঝালকাঠি, ১১ ফেব্রুয়ারি: | প্রকাশ : ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

ঝালকাঠির আলোচিত দুই বিচারক হত্যা মামলা পরিচালনাকারী পিপি, অ্যাডভোকেট হায়দার হোসাইন হত্যা মামলায় পাঁচ জঙ্গিকে মুত্যুদন্ডের (ফাঁসি) আদেশ দেয়া হয়েছে। বুধবার দুপুরে স্থানীয় অতিরক্ত জেলা ও দায়রা জজ মোঃ আবদুল হালিম এ রায় দেন।
সরকার পক্ষে মামলা পরিচালনাকারী বর্তমান পিপি অ্যাডভোকেট আবদুল মান্নান রসুল ও অতিরিক্ত পিপি অ্যাডভোকেট এম আলম খান কামাল জানান, ফাঁসির দন্ডপ্রাপ্ত জঙ্গিদের মধ্যে তিন জন আদালতে উপস্থিত ছিলেন। তারা হচ্ছেন-মুরাদ হোসেন, তানভীর ও আমির হোসেন। এছাড়া পলাতক দুজন হচ্ছে- বিল্লাল হোসেন ও মুরাদ হোসেন।
ঘটনার  প্রায় আট বছর পরে এ রায় দেয়া হলো। জেএমবি জঙ্গিরা ২০০৫ সালের ১৪ নভেম্বর সকালে ঝালকাঠিতে বিচারকবহনকারী মাইক্রোবাসে বোমা হামলা চালায়। এতে দুই সিনিয়র সহকারী জজ জগন্নাথ পাঁড়ে ও সোহেল আহমেদ নিহত হন। সারাদেশে আলোড়ন সৃষ্টিকারী এ মামলার বিচার কার্যক্রম ঝালকাঠিতে সম্পন্ন হয়।
অ্যাডভোকেট হায়দার হোসাইন রাষ্ট্রপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন। ঝালকাঠির অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ২০০৬ সালে এ মামলায় জেএমবি প্রধান শায়খ আবদুর রহমান ও সেকেন্ড ইন কমান্ড  সিদ্দিকুল ইসলাম বাংলা ভাইসহ সাত জনকে ফাঁসির আদেশ দেন।২০০৭ সালের মার্চ মাসে দেশের বিভিন্ন জায়গায় ছয় জনের ফাঁসি কার্যকর করা হয়।
এ ঘটনার মাত্র ১২ দিনের মাথায় ২০০৭ সালের ১১ এপ্রিল রাতে খুন হন অ্যাডভোকেট হায়দার। বাসার কাছে কবরস্থান মসজিদ থেকে এশার নামাজ পড়ে বের হবার সাথে সাথে তাকে গুলি করে হত্যা করা হয়। নিহত হায়দার হোসাইনের ছেলে তারিক বিন হায়দার বাদী হয়ে এ ঘটনার পর দির মামলা দায়ের করেন। জেএমবি জঙ্গিদের ফাঁসি কার্যকর হওয়ায় প্রতিশোধ হিসেবে জঙ্গিরা অ্যাডভোকেট হায়দার হোসাইনকে হত্যা করে।
জঙ্গিদের ফাঁসির রায় হওয়ায় রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ও নিহত হায়দার হোসাইনের স্বজনরা খুশি। তারা অবিলম্বে রায় কার্যকর ও পলাতকদের গ্রেফতারের দাবি জানেিয়েছেন।
 

সর্বশেষ খবর পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close