¦
রাজনৈতিক দলগুলোর পরস্পরের আস্থা অর্জন জরুরী

ঢাকা: | প্রকাশ : ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

 বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার সঙ্গে তার গুলশান কার্যালয়ে একান্ত বৈঠক করছেন ব্রিটিশ হাইকমিশনার রবার্ট গিবসন।

বুধবার বিকেল ৪ টা ৫৫ মিনিটের দিকে  কার্যালয়ে প্রবেশ করেন গিবসন। এরপর বৈঠক শুরু হয়। এসময় কার্যালয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা সাবিহ উদ্দিন উপস্থিত ছিলেন।
বৈঠক শেষে বৃটিশ রাষ্ট্রদূত সাংবাদিকদের বলেন, সংকট নিরসনে সবাইকে এগিয়ে আসা উচিত। চলমান সহিংসতা কারো কাম্য নয়। মি: গিবসন সব রাজনৈতিক দলগুলোকে পরস্পরের আস্থা অর্জনের আহবান।
 
 গিবসন বলেন, আমি আগেই বলেছিলাম, এই সহিংসতা বাংলাদেশের সকল মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রার ব্যাহত করছে।যা অত্যন্ত দুঃখজনক এবং নিন্দনীয়।
তিনি বলেন, আমি ক্রমাগতভাবে সকল পক্ষকে আহ্বান জানিয়ে আসছি, যেন তারা তাদের কর্মের পরিণিতি সম্পর্কে পরিপূর্ণভাবে ভাবেন এবং দেশের জাতীয় হানীকর কাজ থেকে বিরত থাকেন।
আমি সকল পক্ষকে আবারো আহ্বান জানাই স্বাভাবিক জীবন যাত্রা ফিরিয়ে আনতে সবাই যেন আস্থা গড়ে তোলার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করেন। যা দেশের বর্তমান অস্থিরতা নিরসন করবে।
 রবার্ট গিবসনের আগমন উপলক্ষে ২৮ দিন পর খালেদা জিয়ার গুলশান কার্যালয়ের গেট মঙ্গলবার বিকেলে খোলা হয়।
এদিকে খালেদা জিয়া টানা এক ঘন্টার আলাপে কি বলেছেন তা নিয়ে নতুনভাবে গুঞ্জন চলছে।
সূত্র জানায়, বুধবার বিকাল ৪ টা ৫৮ মিনিটে শুরু হওয়া ঘণ্টাব্যাপী বৈঠকে খালেদা জিয়া ও রবার্ট গিবসন একান্তে বিভিন্ন বিষয়ে আলাপ করেন।
খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা সাবিহউদ্দিন আহমেদ কার্যালয়ে প্রবেশ করলেও তিনি বৈঠকে অংশ নেয়ার অনুমতি পাননি।
গিবসনের প্রবেশের আগে বিকালে গুলশান কার্যালয়ের আসেন রবার্ট গিবসনের হেড অব প্রেস এন্ড কমিউনিকেশনে দায়িত্বে থাকা ফোজিয়া ইউনেস সোলেমান।
ফোজিয়া বরার্ট গিবসনের বক্তব্য আগে থেকেই প্রিন্ট করে নিয়ে আসেন।
ঘন্টাব্যাপী বৈঠক শেষে তিনি সেই প্রেস বিজ্ঞতি উপস্থিত সাংবাদিকদের বিতরণ করেন।
প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জনগণের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা ফিরিয়ে আনতে দেশের সব রাজনৈতিক দলের প্রতি পরামর্শ দেয়াসহ সবাইকে এই সংকট সমাধানে এগিয়ে আসার আহ্বান জানানো হয়।
তবে ঘন্টাব্যাপী বৈঠকে  কোন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে তা নিয়ে সরকারের এজেন্সির লোকজনকে কার্যালয়ের আশপাশে ছুটাছুটি করতে দেখা গেছে।
খালেদা জিয়ার সঙ্গে ওয়ান টু ওয়ান আলোচনায় গিবসনের সাথে কী আলোচনা হয়েছে সে সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি। বৈঠক শেষে বিএনপির পক্ষেও কোন ব্রিফ করা হয়নি।
গুলশান কার্যালয়ে উপস্থিত চেয়ারপারসনের বিশেষ সহকারী এডভোকেট শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাস ও প্রেস সেক্রেটারী মারুফ কামাল খান সোহেলকে বৈঠকে না রাখায় একান্ত আলাপের বিষয়টি বেশি করে আলোচনার উঠে এসেছে।
গুলশান কার্যালয়ের এক কর্মকর্তা জানান, ম্যাডাম গিবসনের সঙ্গে ওয়ান টু ওয়ান আলাপ করেছেন।
তিনি কি নিয়ে কথা বলেছেন তা জানা সম্ভব নয়।
 
সর্বশেষ খবর পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close