¦
দেশে নাশকতা অনেক কমে এসেছে: আইজিপি

ঢাকা ২২ ফেব্রুয়ারি: | প্রকাশ : ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর তৎপরতা ও জনগণের সহায়তায় দেশে নাশকতা অনেক কমে এসেছে বলে দাবি করেছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহিদুল হক। রোববার সকালে রাজধানীর মিরপুর পুলিশ স্টাফ কলেজে সার্কভুক্ত দেশগুলোকে নিয়ে আয়োজিত ‘ট্রেনিং অন ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম সার্ক পার্সপেকটিভ’-এর এক কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ দাবি করেন।
পুলিশ স্টাফ কলেজ বাংলাদেশ-এর রেক্টর ফাতেমা বেগমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ পুলিশ এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।
আইজিপি বলেন, টানা হরতাল-অবরোধের সময় নাশকতার অভিযোগে বিভিন্ন সময়ে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা প্রায় ৫০০ জনকে আটক করেছে। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর এ তৎপরতায় নাশকতা অনেক কমে এসেছে দাবি করে তিনি বলেন, নাশকতা সৃষ্টিকারীদের জনগণ অনুমোদন করে না। আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি সর্বস্তরের জনসাধারণের সহযোগিতা পেলে এ ধরনের সন্ত্রাস নির্মূল করা সম্ভব হবে।
সার্কভুক্ত দেশগুলোর কার্যক্রম প্রসঙ্গে পুলিশ প্রধান বলেন, সার্কভুক্ত দেশগুলো পারস্পরিক সমঝোতার মাধ্যমে মানবপাচার, চোরাচালান ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হবে। এ ব্যাপারে পরস্পরকে তথ্য দিয়ে সহায়তা করবে বলেও জানানো হয়। তিনি বলেন, বর্তমান বৈশ্বিক প্রেক্ষাপটে ট্রান্সন্যাশনাল অর্গানাইজড ক্রাইম দেশী ও আন্তর্জাতিক নিরাপত্তার জন্য হুমকিস্বরূপ। অপরাধী এবং সন্ত্রাসীরা শুধু তাদের দেশের ভৌগোলিক সীমার মধ্যে আবদ্ধ থেকেই সন্ত্রাস ও অপরাধমূলক কর্মকান্ড পরিচালনা করছে না- তাদের রয়েছে আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক অপরাধ নেটওয়ার্ক।
বাংলাদেশ পুলিশ আয়োজিত এটি তৃতীয় প্রশিক্ষণ কোর্স। ২১ দিনব্যাপী এ অনুষ্ঠানে এসপিসহ তদূর্ধ্ব কর্মকর্তারা অংশগ্রহণ করেন। প্রশিক্ষণ কোর্সে আফগানিস্তানের দু’জন, ভুটানের দু’জন, শ্রীলংকার দু’জন, মালদ্বীপের দু’জন, ভারতের দু’জন, নেপালের একজন এবং বাংলাদেশের ৯ জন পুলিশ সুপারসহ মোট ২০ জন পুলিশ কর্মকর্তা অংশগ্রহণ করছেন।

সর্বশেষ খবর পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close