¦
বিএনপি নেতারাই হরতাল মানে না : নাসিম

ঢাকা, ২২ ফেব্রুয়ারি | প্রকাশ : ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

বিএনপি নেতারাই হরতাল মানে না বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। তিনি বলেন, বিএনপি নেতারা পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির সঙ্গে গাড়ি চড়েই দেখা করতে গেছে। এতেই প্রমাণ হয় বিএনপি নেতারাও হরতাল মানে না দেশের মানুষ পুড়িয়ে বিদেশীদের কাছে নিজেদের ছোট করা হচ্ছে। শুধু শুধু হরতাল নাটক সাজিয়ে জনজীবনকে দূর্বিষহ করা হচ্ছে।

রোববার বিকেলে রাজধানীর কেন্দ্রীয় ঔষধাগারে আয়োজিত দেশের বিভিন্ন স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠানে বরাদ্দকৃত অ্যাম্বুলেন্স বিতরণ অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।  
মন্ত্রী বলেন, দেশের কোন মানুষ হরতাল মানে না।। তিনি বলেন, দেশ যখন অর্থনৈতিক ভাবে সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে যাচ্ছে বিএনপি তখন দিনর পর দিন হরতাল দিয়ে যাচ্ছে।

নাসিম বলেন, তিনি (খালেদা জিয়া) ধ্বংসের রাজনীতি করে, আর আমরা সৃষ্টির রাজনীতি করব। তিনি একটা করে গাড়ি পোড়াবেন আর আমরা দশটা করে গাড়ি জনগণকে দেব। এখানেই ওনার সাথে আমাদের পার্থক্য।

আওয়ামী লীগের প্রবীণ এ নেতা বলেন, যে কোন সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন হতেই পারে তাইবলে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করতে হবে কেন। জ্বালিয়ে পুড়িয়ে সরকার নামানো যায় না। যদি তাই হতো তাহলে পৃথিবীতে শুধু জ্বালাও-পোড়াও চলত। তিনি বিএনপি নেতৃকে এই পথ পরিহার করে জনগণের কল্যানের রাজণীতি করার আহবান জানান।
এসময় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে পরিবেশ ও বণ মন্ত্রী আনোয়র হোসেন মঞ্জু বলেন, আজকে যারা ককটেল, প্রেট্রোল বোমা মেরে জনগনকে ভয় দেখানোর চেষ্টা করছে তারা জানে না এদেশের মানুষ কামান. ট্যাংকের মতো ভারি অস্ত্রও মোকাবেলা করতে ভয় পায় না। তিনি নাশকতাকারীদের এসব পরিহার করার আহবান জানান।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. দীন মোহাম্মদ নূরুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী জাহিদ মালেক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খলিদ মাহমুদ চৌধুরী। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য নাজমুল হক প্রধান, শফিক আহমেদ, কেয়া চৌধুরী, আয়শা ফেরদৌস প্রমুখ।
 

সর্বশেষ খবর পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close