¦
রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে ককটেল বিস্ফোরণ

ঢাকা, ৩ মার্চ: | প্রকাশ : ০৩ মার্চ ২০১৫

রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এসব ঘটনায় বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর আগারগাঁও বেতার ভবন, শাহবাগ জাদুঘর, শান্তিনগর মোড়, ফকিরাপুল, মগবাজার মোড়, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল গেট ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্যার এফ রহমান হলের সামনে ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে দুর্বৃত্তরা।
মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের নতুন ভবন সংলগ্ন পিজি ক্যান্টিনের পাশে পরপর দুটি ককটেল বিস্ফোরণে সোহাগ (২৫) ও মইনুদ্দিন (২৫) নামে দুই যুবক আহত হয়েছেন। পরে তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ককটেলের স্পিন্টার সোহাগের পেটে ও মইনুদ্দিনের হাতে লাগে। ঢামেক হাসপাতালের ক্যাম্প পুলিশের ইনচার্য মোজাম্মেল হক ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
রাত সাড়ে ৮টার দিকে রাজধানীর গুলশান-২ ল্যাবএইড হাসপাতালের সামনের রাস্তায় পরপর ২টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে হরতাল-অবরোধকারীরা। তবে এ ঘটনায় কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। একই সময়ে মধ্য বাড্ডায় আরও একটি ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। গুলশান থানার অরারেশন অফিসার শেখ সোহেল রানা বলেন, কে বা কারা ককটেল মেরেছে তাদের খুঁজে বের করতে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে অভিযান চালাচ্ছে।
শাহবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সিরাজুল ইসলাম জানান, শাহবাগে দুটি ও এফ রহমান হলের সামনে একটি ককটেল বিস্ফোরিত হয়েছে। তবে এতে কেউ আহত হয়েছেন বলে খবর পাইনি।
রাজধানীর শান্তিনগর মোড়ে ককটেলের বিস্ফোরণে এক যুবক আহত হয়েছেন। তবে আহত যুবকই এ ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে বলে সন্দেহ পুলিশের। রমনা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মশিউর রহমান বলেন, শান্তিনগর মোড়ে রাত ৮টায় ককটেল বিস্ফোরিত হলে এক যুবক আহত হয়। পরে স্থানীয়রা আহত যুবককে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করেন। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে আহত যুবকই ককটেলটির বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে বলে জানান তিনি।
এদিকে আগারগাঁও বেতার ভবন, ফকিরাপুল, মগবাজার মোড় এলাকায় কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে বলে পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে।

সর্বশেষ খবর পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close