¦
মিন্টুর প্রার্থীতা বহালের আবেদন বাতিল

ঢাকা, ৪ এপ্রিল | প্রকাশ : ০৪ এপ্রিল ২০১৫

ঢাকার উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে বিএনপি নেতা আবদুল আওয়াল মিন্টুর প্রার্থিতা বহালের আবেদন বাতিল করা হয়েছে। শনিবার বিকাল ৪টায় রাজধানীর সেগুনবাগিচায় বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ে এ শুনানি শুরু হয়। শুনানি শেষে তার আবেদন খারিজ করা হয়।

আবদুল আওয়াল মিন্টুর পক্ষে শুনানিতে অংশ নেন সিনিয়র আইনজীবী ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, ব্যরিস্টার মওদুদ আহমেদ, ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, এডভোকেট জয়নুল আবেদিন, মাসুদ আহমদ তালুকদার।
গত ১ এপ্রিল নির্বাচন কমিশনে জমা দেওয়া মিন্টুর হলফনামায় সমর্থক হিসেবে উল্লিখিত একজন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ভোটার নন এমন কারণ দেখিয়ে তার মনোনয়নপত্র বাতিল করে নির্বাচন কমিশন। পরদিন ২ এপ্রিল আবদুল আউয়াল মিন্টুর আইনজীবীরা রিটার্নিং কর্মকর্তার সিদ্ধান্ত চ্যালেঞ্জ করে মনোনয়নপত্র বহালের জন্য ঢাকা বিভাগীয় কমিশনারের কাছে আপিল করেন।
শুনানিতে ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, রাজউক ও ঢাকা সিটি করপোরেশনের যে ম্যাপ আছে, সে ম্যাপ অনুযায়ী উত্তরার ১৩, ১৪, ১৫ ও ১৬ নম্বর সেক্টর পর্যন্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের ম্যাপের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত। ডকুমেন্ট অনুযায়ী দেখা যাচ্ছে, ১৩ নম্বর সেক্টরের কিছু লোক ভোটার, অনেক লোকই ভোটার না। যেটা আইন সমর্থন করে না। নির্বাচন কমিশনের ত্রুটিপূর্ণ ভোটার তালিকার জন্য আবদুল আউয়াল মিন্টু সাহেব প্রার্থী হিসেবে ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারেন না।

উচ্চ আদালতে যাবেন মিন্টু : আবদুল আউয়াল মিন্টুর প্রার্থীতা বাতিলের রায় চ্যালেঞ্জ করে উচ্চ আদালতে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তার আইনজীবীরা। রায় ঘোষণার পর মিন্টুর আইনজীবী ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, মিন্টু ন্যায় বিচার পাননি। সরকারি দলের প্রার্থী হলে হয়তো তার এ ভুল সংশোধনের সুযোগ দেয়া হতো। আইনগতভাবে প্রার্থী হওয়ার সব যোগ্যতা তিনি পূরণ করেছেন। এটি কোন গুরুতর অপরাধ ছিল না। রিটার্নিং অফিসার আইন না পড়ে সিদ্ধান্ত দিয়েছেন। তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমরা উচ্চ আদালতে যাব।

সর্বশেষ খবর পাতার আরো খবর