¦
মিথেন গ্যাসের আগুনে একই পরিবারের ৩ জন দগ্ধ

সিলেট ব্যুরো, ৪ এপ্রিল | প্রকাশ : ০৪ এপ্রিল ২০১৫

সিলেটে মিথেন গ্যাসের আগুনে দগ্ধ হয়েছেন মা ও মেয়ে ও পুত্র। শনিবার তাদের অবস্থার অবনতি হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। তাদের শরীর প্রায় ৬০ ভাগ পুড়ে গেছে বলে ওসমানী হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে। তারা হচ্ছেন, মৃত জাকির হোসেনের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম (৪৫) ও কন্যা জাহিদা আক্তার (২০) ও পুত্র জহির হোসেন (১৪)। শুক্রবার গভীর রাতে নগরীর মিরের ময়দানে বাথরুমের ভেতরে মিথেন গ্যাস থেকে সৃষ্ট অগ্নিকান্ডে তারা দগ্ধ হন। গুরুতর আহত মা-মেয়েকে প্রথমে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সিলেট ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার জাবেদ হোসেন মো: তারেক জানান, শুক্রবার রাত ১২টার দিকে মিরের ময়দান অর্ণব ৭ নম্বর বাসার বাসিন্দা গৃহকত্রী মনোয়ারা বেগমের কন্যা জাহিদা বিদ্যুত না থাকায় মোমবাতি নিয়ে বাথরুমে যান। বাথরুমের কমোডের ঢাকনা তোলা মাত্রই হাতের মোমবাতি থেকে বাথরুমে আগুন ধরে যায় এবং বিকট শব্দ হয়। আগুনের হাত থেকে জাহিদাকে রক্ষা করতে গিয়ে মনোয়ারা ও তার পুত্র জহির হোসেনও দগ্ধ হন। মূলত মিথেন গ্যাস থেকেই আগুনের সূত্রপাত হয়েছে। আর দুটি কারণে মিথেন গ্যাসের সৃষ্টি হতে পারে। একটি হচ্ছে-দীর্ঘদিন ধরে কমোডের ঢাকনা লাগানো অথবা স্যুয়ারেজের ট্যাঙ্কি থেকে কমোডে এসে গ্যাস ফর্ম করা। আগুনে বাথরুমের ফরমিকার দরজা ছাড়াও বাসার কিছু আসবাবপত্র ও কিছু মালামাল পুড়ে গেছে বলে জানান মো: তারেক।

সর্বশেষ খবর পাতার আরো খবর