¦
প্রবেশে কড়াকড়ির পাশাপাশি বসছে সিসি ক্যামেরা

ঢাকা, ৯ এপ্রিল: | প্রকাশ : ০৯ এপ্রিল ২০১৫

রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নিরাপত্তা জোরদার করছে দলটি। কার্যালয়ের প্রবেশ করা নেতা-কর্মীদের নাম এন্ট্রি করার নিয়ম চালু করার পাশাপাশি বসানো হচ্ছে সিসি (ক্লোজ সার্কিট) ক্যামেরা। কার্যালয়ের নিরাপত্তা ও সাংগঠনিক জবাবদিহিতাসহ নানা কারণে এ উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে বলে নেতারা জানান।
নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে প্রবেশে নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর এন্ট্রি করে রাখার উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বুধবার থেকে কার্যালয়ের মূল প্রবেশ পথে একটি টেবিল ও চেয়ার নিয়ে একজন কর্মচারী শামীমকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।
সেখানে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত দলটির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সহ-দপ্তর সম্পাদক আবদুল লতিফ জনিসহ মোট ১৫ জন নেতাকর্মী কার্যালয়ে প্রবেশ করেছেন বলে এন্ট্রি খাতায় উল্লেখ রয়েছে। এর আগের দিন বুধবার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত মোট ২৬ জন নেতাকর্মী দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে প্রবেশ করেছেন বলে এন্ট্রি খাতায় তথ্য লিখিত রয়েছে।
নয়াপল্টন কার্যালয়ে অবস্থানরত বিএপির সহ-দফতর সম্পাদক আবদুল লতিফ জনি জানান, নিরাপত্তার কারণে কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সিসি ক্যামেরা বসানো হবে। আগামী এক মাসের মধ্যেই এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা হবে। তবে প্রাথমিক উদ্যোগ হিসেবে রেজিস্টার খাতায় নাম, ঠিকানা, মোবাইল নম্বর প্রভৃতি এন্ট্রির ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।
তিনি বলেন, দাপ্তরিক কাজে জবাবদিহিতাও এসব উদ্যোগের কারণ। কার্যালয়ে কে বা কারা আসছেন, কী কারণে আসছেন, কোথা থেকে আসছেন, কত সময় এখানে অবস্থান করলেন তার রেকর্ড রাখতে এসব উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।
বিএনপির কেন্দ্রীয় এই নেতা বলেন, প্রতিদিন শত শত মানুষ কার্যালয়ে আসেন। অনেককেই চেনা যায় না। তা ছাড়া এখন যে বিরূপ সময় যাচ্ছে কে কি উদ্দেশ্যে আসছে সব জানা যায় না। কেউ যদি অসৎ উদ্দেশ্যে লুকিয়ে একটি ফেনসিডিলের বোতল কার্যালয়ে রেখে যায়, পরে গণমাধ্যমে প্রচার হবে যে, বিএনপি কার্যালয় থেকে ফেনসিডিল উদ্ধার হয়েছে।
আবদুল লতিফ জনি আরো বলেন, দলীয় কার্যালয় খোলার কয়েক দিন অতিবাহিত হলেও এখনো নেতাকর্মীদের মধ্যে আতঙ্ক দূর হয়নি। তাই সরকারের প্রতি আমাদের আহ্বান, নিরাপত্তার প্রয়োজনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী রাখুন। কিন্তু আমাদের নেতাকর্মীদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টির জন্য কার্যালয়ের সামনে না রেখে দূরে রাখুন। আমাদের স্বাভাবিক দলীয় কর্মকাণ্ড পরিচালনা করতে দিন।

সর্বশেষ খবর পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close