¦
প্রশাসন সম্পৃক্ত থাকলে নির্বাচন গ্রহণযোগ্য হবে না

ঢাকা, ১৬ এপ্রিল: | প্রকাশ : ১৬ এপ্রিল ২০১৫

সাবেক প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) বিচারপতি আব্দুর রউফ বলেছেন, জনগণের হাতে ভোট পরিচালনার দায়িত্ব তুলে না দেয়া পর্যন্ত নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না। আর যতোদিন পর্যন্ত প্রশাসনের কাছে নির্বাচনের দায়িত্ব থাকবে ততোদিন নির্বাচন গ্রহণযোগ্য হবে না। তাই প্রশাসনকে নির্বাচন থেকে বের করে আনতে হবে।
বৃহস্পতিবার দুপরে জাতীয় প্রেসক্লাবের ভিআইপ লাউঞ্জে সেন্টার ফর ন্যাশনালিজম স্টাডিজ আয়োজিত ‘একটি গ্রহণযোগ্য নির্বাচনই দিতে পারে চলমান সঙ্কটের সমাধান’ শীর্ষক এক গোলটেবিল আলোচনায় তিনি এ কথা বলেন।
আব্দুর রউফ বলেন, জনগণের কাছে নির্বাচনকে সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য করে তোলার জন্য নির্বাচন কমিশনকে আমি বিভিন্ন কাগজপত্র দিয়েছিলাম। তারা হয়তো আমার সেই কাগজপত্রগুলো পুড়িয়ে ফেলেছে।
নির্বাচনকে গ্রহণযোগ্য করে তোলার জন্য আব্দুর রউফ ইসিকে বিভিন্ন পরামর্শ দেন। উল্লেখযোগ্য পরামর্শগুলো হলো- রাজনৈতিক দল থেকে প্রার্থী দেয়া বন্ধ করতে হবে। প্রশাসনকে নির্বাচন থেকে বের করে আনতে হবে। জনগণের কাছে নির্বাচনের দায়িত্ব তুলে দিতে হবে এবং চার অথবা পাঁচ বছর শেষে একটা সুনির্দিষ্ট তারিখে নির্বাচন করতে হবে।
সাবেক এই বিচারপতি বলেন, দেশের চলমান সংকটের মূল কারণ হলো সকল কিছুতেই নিয়মবহির্ভূত কার্যক্রম। সংবিধান থেকে শুরু  করে যাবতীয় কাজে নিয়মবহির্ভূত কাজ করছে । অবশ্য ব্রিটিশরা আমাদের আইন করে এসকল নিয়ম ভঙ্গের অনেক কারণ শিখিয়েছে।
স্বাধীনতার পর দেশে যতগুলো নির্বাচন হয়েছে সবগুলোর চরিত্র এক মন্তব্য করে তিনি বলেন, ভোটাররা যতদিন তাদের নিজেদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে না পারবে ততদিন পর্যন্ত তারা তাদের ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত হবে। আর তার জন্য নির্বাচন জনগণের হাতে দিতে হবে। কারণ আমরা নির্বাচনের চরিত্র নষ্ট করে ফেলেছি।
গোলটেবিল বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন আয়োজক সংগঠনের চেয়ারপারসন ব্যারিস্টার ফাতেমা আনোয়ার। এসময় আরো বক্তব্য দেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আহম্মদ আজম খান, জাতীয় প্রেসক্লাবের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কাদের গণি চৌধুরী, সংগঠনের ট্রাস্টি ড. এন ওসমানি প্রমুখ।
 

সর্বশেষ খবর পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close