¦
অবস্থার পরিবর্তনে মানুষ ভাবতে শুরু করেছে: এরশাদ

ঢাকা, ১৭ এপ্রিল: | প্রকাশ : ১৭ এপ্রিল ২০১৫

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির চরম অবনতি হয়েছে। দেশে এ অবস্থা চলছে তা মেনে নেয়ার মতো নয়। তবে মানুষ এখন সচেতন। এ অবস্থার পরিবর্তনে ভাবতে শুরু করেছে সাধারণ জনগণ। শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর উত্তর জুরাইন মুন্সীবাড়ী শাহাদাত হোসেন রোডে জাতীয় পার্টি শ্যামপুর-কমদতলী থানা আয়োজিত কর্মি সভা ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।
আরো একবার ক্ষমতায় যাওয়ার সুযোগ চেয়ে এরশাদ বলেন, আমার বয়স হয়েছে কিন্তু উদ্যোম কমেনি। আমাকে আর একবার সুযোগ দিন। তিনি বলেন, দেশের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অবনতি হয়েছে। হাজার হাজার মানুষ মারা পড়ছে। দুটি দলই এর জন্য দায়ী। অথচ আমার আমলে পুলিশের গুলিতে দুইজন মারা গিয়েছিল বলে লজ্জায় আমি ক্ষমতা ছেড়ে দিয়েছিলাম। এখন হাজার হাজার মানুষ মারা পড়ছে, কিন্তু কেউ ক্ষমতা ছাড়ছে না।
জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, ৯ বছর পর নির্বাচন এসেছে। আমরা দলের পক্ষ থেকে প্রার্থী দিয়েছি। আমিতো দলের চেয়ারম্যান। এদের পক্ষেই আমি থাকবো এটাই স্বাভাবিক।
এসময় তিনি টিএসসির ঘটনার নিন্দাপ্রকাশ করে বলেন, দেশের সর্বোচ্চ ক্ষমতায় নারী। নারীর ক্ষমতা প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে। বিরোধী দলেও নারী। এর পরেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘটনা কাম্য না। এতেই বুঝা যাচ্ছে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির কত অবনতি হয়েছে।
দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন-কাউন্সিলর প্রার্থী মাঈন উদ্দিন বাবু, মোহাম্মদ ফারুক হোসেন, মোহাম্মদ ইব্রাহীম মোল্লা, আবুল কাশেম মিলন প্রমুখ।
এর আগে এরশাদ ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে জাতীয় পার্টি সমর্থিত মেয়র প্রার্থী সাইফুদ্দিন আহমেদ মিলনের পক্ষে ভোট প্রার্থনা করেন। এ ছাড়া এরশাদ ঢাকা-৪ আসনের শ্যামপুর-কদমতলী এলাকার চারটি ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থীদের পরিচয় করিয়ে দিয়েও ভোট চান।

সর্বশেষ খবর পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close