¦
ফরিদপুরে আ'লীগ নেতার শর্টগানের গুলিতে ওসিসহ আহত ৭

ফরিদপুর ব্যুরো/ভাঙ্গা প্রতিনিধি, ১৮ এপ্রিল: | প্রকাশ : ১৮ এপ্রিল ২০১৫

গুলিবিদ্ধ কয়েকজনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেয়া হচ্ছে

ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলায় আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফর উল্লাহর পথসভায় শর্টগানের গুলিতে ওসিসহ সাতজন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। আহতদের ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে ওসি নাজমুল ইসলাম ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা শেষে তার কর্মস্থলে ফিরেছেন।
শনিবার সকালে কাওলীবেড়া ইউনিয়নের পড়ারন মুন্সী বাড়ি এলাকায় কাজী জাফর উল্লাহর এক পথসভায় এ ঘটনা ঘটে।
গুলিবিদ্ধরা হলেন- ভাঙ্গা থানার ওসি নাজমুল ইসলাম (৫৫), পড়ারন গামের ফরহাদ (৫৫), চনমানাইর গ্রামের ইমারত (৫৬), কররা গ্রামের সুবাহান (৬৫), আড়িয়াল খাঁ গ্রামের সাহেব আলী (৪৭), পড়ারন গ্রামের জমির মাতুব্বার (৬০) ও খাটরা গ্রামের শাহজাহান (৫০)।
 
পুলিশের দাবি, পথসভা চলাকালে অসাবধানতাবশত: আওয়ামী লীগ নেতা দীপক মজুমদারের দেহরক্ষীর ‘মিস ফায়ারে’ শর্টগানের গুলিতে ওসিসহ সাতজন গুলিবিদ্ধ হন।
তবে স্থানীয়রা জানান, কাজী জাফর উল্লাহ একটি ব্রীজের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন করতে যাবার পর পথসভায় অংশ নেন। এসময় কাজী জাফর উল্লাহ’র সাথে থাকা নেতাদের সাথে গ্রামবাসীর কথা কাটাকটি হয়। একপর্যায়ে জাফর উল্লাহর ঘনিষ্টজন উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা দীপক মজুমদার শর্টগানের গুলি ছুড়ে।
ভাঙ্গা থানার অফিসার ইনর্চাজ মোঃ নাজমুল ইসলাম জানান, শনিবার সকালে আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী জাফর উল্লাহর একটি পথসভায় চলছিল। তখন আমার বামদিকে বসা ছিলেন আওয়ালীগের সহ সভাপতি দীপক মজুমদার। তার দেহরক্ষীর অসাবধানতায় শর্টগানের গুলিতে আমিসহ (ওসি) সাতজন আহত হই।
তিনি জানান, আমি হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়ে বাসায় চলে আসি। বাকি আহতদেরকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
ভাঙ্গা থানার উপপুলিশ পরিদর্শক জালাল জানান, আওয়ামী লীগ নেতা দীপুক মজুমদারের শর্ট গানটি লাইসেন্স করা ছিল।
আওয়ামী লীগ কর্মী বৃদ্ধ নুরুল আমিন জানায়, হঠাৎ মনে হল কোথায় থেকে একটি বোমার মতো উপর থেইকা কি যেন ফুটলো। আমার পাশের লোকজন তখন মাটিতে পইড়া গেল। বৃদ্ধ জানান, সবাই আওয়ামীলীগের লোক।
এদিকে এ ঘটনায় এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে এবং ভাঙ্গাসহ ফরিদপুর জেলায় আলোচনার ঝড় উঠেছে।

সর্বশেষ খবর পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close