¦
এত সুন্দর নির্বাচন আগে হয়নি: আওয়ামী লীগ

ঢাকা, ৩০ এপ্রিল: | প্রকাশ : ৩০ এপ্রিল ২০১৫

বাংলাদেশে গত মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত ঢাকা ও চট্টগ্রামের সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে অনিয়ম এবং সহিংসতার ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ সহ বিভিন্ন দেশ। জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি মুন এই নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ তদন্ত করার জন্য কর্তৃপক্ষের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।
অন্যদিকে বাংলাদেশে এই নির্বাচন পর্যবেক্ষণকারী সংস্থাগুলোও বলেছে, নির্বাচনে প্রচুর অনিয়ম হয়েছে এবং নির্বাচন গ্রহণযোগ্য হয়নি।
তবে শাসক দল আওয়ামী লীগ মনে করে, এসব সমালোচনার বাস্তবতা নেই।
সাবেক মন্ত্রী এবং ঢাকার একটি অংশের নির্বাচন পরিচালনার দায়িত্বপ্রাপ্ত আওয়ামী লীগ নেতা ফারুক খান, এই সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের মতো বাংলাদেশের কোন স্থানীয় সরকার নির্বাচন এত সুষ্ঠু ও সুন্দরভাবে হয়নি বলেই তিনি মনে করেন।
ফারুক খান বলছেন, দুঃখজনকভাবে কোন একটি দল সবকিছু না জেনেই, কোন একটি দল বা গোষ্ঠীর বক্তব্য শুনেই মন্তব্য করে। কিন্তু কোন দল কি নির্বাচন কমিশনের কাছে অভিযোগ দিয়েছে? যতদূর আমি জানি, নির্বাচন কমিশন বা রিটার্নিং অফিসারের কাছে কোন অভিযোগ দেয়া হয়নি। হলে সেটা নিশ্চয়ই দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।
নির্বাচনে কারচুপি বিষয়ে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম যেসব তথ্য দিয়েছে, এমনকি বিবিসির সংবাদদাতাদের সরেজমিনে জাল ভোট দিতে দেখার উদাহরণ প্রসঙ্গে মি. খান বলেন, এটা সত্যি হতে পারে না। কারণ প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর এজেন্টরা কি এজন্য রিটার্নিং অফিসারের কাছে অভিযোগ করেছেন?
ভোট জালিয়াতির যে অভিযোগ উঠেছে, সেজন্য আওয়ামী লীগ একেবারেই বিব্রত নয় বলে মন্তব্য করেন ফারুক খান। কারণ ভোট জালিয়াতির কোন ঘটনা ঘটেনি বলেই তাঁর দাবি।
তিনি বলেন, বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীরা, আওয়ামী সমর্থিত প্রার্থীদের কাছাকাছি ভোট পেয়েছেন, যার ফলে প্রমাণিত হয় যে, ভোটাররা নির্বিঘ্নে ভোট দিয়েছেন।
নির্বাচনে ভোট জালিয়াতির বিষয়ে যেসব পত্রিকা সংবাদ প্রকাশ করেছে, তারা সবসময়েই বাংলাদেশের জনগণের বিরুদ্ধে, সামনে এগিয়ে যাবার বিপক্ষে অবস্থান করে বলে তিনি মন্তব্য করেন।
ফারুক খান বলেন, এর আগে সর্বশেষ ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন হয়েছিল ২০০২ সালে। সে সময় নির্বাচনী সহিংসতায় সাতজন নিহত হয়েছিল। আমার তো মনে হয় না, এর আগে বাংলাদেশের কোন স্থানীয় সরকার নির্বাচন এত সুষ্ঠু, সুন্দর ও ভালোভাবে হয়েছে। সূত্র: বিবিসি

সর্বশেষ খবর পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close