¦
খুলনা টেস্ট থেকে অনুপ্রেরণা নিচ্ছেন টাইগাররা

ঢাকা, ৮ মে: | প্রকাশ : ০৮ মে ২০১৫

খুলনা টেস্ট থেকে অনুপ্রেরণা নিচ্ছেন বাংলাদেশের খেলোয়াররা। শুক্রবার তৃতীয় দিনের খেলা শেষে সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই জানালেন সেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। তিনি বলেন, খুলনা টেস্ট থেকে উৎসাহিত হতে পারি আমরা। ঐ টেস্টের মত ব্যাটসম্যানরা বড় ইনিংস খেললে এ ম্যাচে ইতিবাচক ফলই পাবো আমরা।
ঢাকা টেস্টে বাংলাদেশকে ৫৫০ রানের টার্গেট ছুঁড়ে দিয়েছে পাকিস্তান। দিন শেষে ১ উইকেটে ৬৩ রান তুলেছে বাংলাদেশ। এখনো ৯ উইকেট হাতে নিয়ে ৪৮৭ রান করতে হবে টাইগারদের। কি হবে ম্যাচের বাকী দু’দিন। তা বলা মুশকিল।
তৃতীয় দিন শেষে টেস্টের যা অবস্থা তাতে চালকের আসনে পাকিস্তান। তবে ঘুঁড়ে দাঁড়ানোর সামর্থ্য বাংলাদেশের আছে। এর প্রমাণ খুলনা টেস্ট। তামিম ইকবালের ডাবল-সেঞ্চুরি, ইমরুল কায়েসের সেঞ্চুরি ও সাকিব আল হাসানের অনবদ্য হাফ-সেঞ্চুরিতে গৌরবের সাথে প্রথম টেস্ট ড্র করে বাংলাদেশ। তাই খুলনা টেস্টটি এখন বাংলাদেশের প্রধান সম্বল হয়ে দাঁড়িয়েছে। প্রথম টেস্ট অনুপ্রেরণা নিচ্ছেন সাকিব। যাতে ঢাকা টেস্ট থেকে ভালো কিছু অর্জন করা যায়।
এদিকে নিজের ক্রিকেট ক্যারিয়ারে আরও একটি অর্জনের পালক যোগ করেছেন সাকিব। দেশের ক্রিকেটের প্রধান ভেন্যু মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে ১ হাজার রান পূর্ণ করেছেন তিনি। তাই এমন অর্জনের অনুভূতিটা জানাতে ভুল করেননি সাকিব, মিরপুর সব সময়ই আমার কাছে স্পেশাল। ওয়ানডেতেও এখানে অনেক রান আছে। আমার ক্যারিয়ারের অর্ধেকই এখানে। মিরপুরের এই মাঠ সবসময়ই আমার কাছে স্পেশাল কিছু।
ঢাকা টেস্ট জিতলেই বিশ্ব রেকর্ড: ঢাকা টেস্ট জিততে বাংলাদেশকে ৫৫০ রানের টার্গেট ছুঁড়ে দিয়েছে পাকিস্তান। তৃতীয় দিন শেষে ম্যাচের চতুর্থ ও নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসে ১ উইকেটে ৬৩ রান করেছে টাইগাররা। ম্যাচ জিততে হলে ৯ উইকেট হাতে নিয়ে ৪৮৭ রান করতে হবে বাংলাদেশ। যদি তা করতে পারে, তবে বড় টার্গেট তাড়া করে ম্যাচ জয়ের নতুন বিশ্ব রেকর্ড গড়বে বাংলাদেশ।
বড় টার্গেট তাড়া করে ম্যাচ জয়ের রেকর্ডের তালিকায় সবার উপরে আছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ২০০৩ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে চতুর্থ ইনিংসে ৭ উইকেটে ৪১৮ রান করে ম্যাচ জিতেছিলো ক্যারিবীয়রা।

সর্বশেষ খবর পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close