jugantor
অবশেষে খুলল ফেসবুক

  ঢাকা  

১০ ডিসেম্বর ২০১৫, ১৩:৪৫:১৮  | 

বাংলাদেশে ২২ দিন বন্ধ থাকার পর ফেসবুক খুলে দিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি। তবে ফেসবুক খুললেও ভাইবার, হোয়াটসঅ্যাপসহ অন্যান্য মোবাইল অ্যাপসগুলো এখনো বন্ধ আছে।
টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বৃহস্পতিবার বেলা দেড়টায় মন্ত্রণালয়ে এক সংবাদ  সম্মেলনে বলেন, “সরকারের নির্দেশনা এই মাত্র আমার হাতে এসেছে। জনগণের জন্য ফেইসবুক খুলে দিচ্ছি।”
ভাইবার, হোয়াটসঅ্যাপসহ বন্ধ থাকা অন্যান্য মোবাইল অ্যাপগুলোর বিষয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, এগুলোর ব্যাপারে ‘পরে সিদ্ধান্ত হবে’।
সংবাদ সম্মেলন চলাকালে প্রতিমন্ত্রী সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে বিটিআরসি চেয়ারম্যানকে ফোন করে এখনই ফেসবুক খুলে দিতে নির্দেশ দেন।
দুই বিদেশি নাগরিক হত্যা ও পুলিশের তল­াশি চৌকিতে হামলার ঘটনার পর জঙ্গি ও সন্ত্রাসীদের যোগাযোগের পথ বন্ধ করতে গত ১৮ নভেম্বর বাংলাদেশে ফেইসবুক বন্ধ করে দেওয়া হয়। একই সময়ে বন্ধ করা হয় মোবাইল ফোনের অ্যাপ ফেইসবুক ম্যাসেঞ্জার, ভাইবার ও হোয়াটসঅ্যাপ। আর বিটিআরসির নির্দেশে এ কাজটি করতে গিয়ে ইতিহাসে প্রথমবারের মতো প্রায় দেড় ঘণ্টা ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েব থেকে বিচ্ছিন্ন থাকে বাংলাদেশ।
‘বৃহত্তর স্বার্থে’ এই কষ্ট মেনে নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম সেদিন বলেছিলেন, “দেশ ও জাতির নিরাপত্তার স্বার্থেই এগুলো বন্ধ করা হয়েছে।”
তবে দীর্ঘ সময় ফেসবুক বন্ধ থাকায় সরকারের এই সিদ্ধান্তে সন্তুষ্ট হতে পারেননি তরুণদের অনেকেই। ফেইসবুকসহ বন্ধ থাকা সামাজিক যোগাযোগের সব মাধ্যম দ্রুত খুলে দেওয়ার দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশও হয়েছে দেশের বিভিন্ন স্থানে। একই সঙ্গে বিকল্প পথে নানাভাবে দেশব্যাপী তরুনরা ফেসবুক ব্যবহার করেছেন।
এই ঘটনায় নিরাপত্তা ঝুঁকির বিষয়টি তুলে ধরে সবাইকে সতর্কও করলেও বিকল্প পথে ফেসবুক ব্যবহার বন্ধ করা যায়নি। তবে তরুণ সমাজকে প্রশংসা করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, এদের কোনোভাবেই ঠেকিয়ে রাখা যাবে না।

সাবমিট

অবশেষে খুলল ফেসবুক

 ঢাকা 
১০ ডিসেম্বর ২০১৫, ০১:৪৫ পিএম  | 

বাংলাদেশে ২২ দিন বন্ধ থাকার পর ফেসবুক খুলে দিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি। তবে ফেসবুক খুললেও ভাইবার, হোয়াটসঅ্যাপসহ অন্যান্য মোবাইল অ্যাপসগুলো এখনো বন্ধ আছে।
টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম বৃহস্পতিবার বেলা দেড়টায় মন্ত্রণালয়ে এক সংবাদ  সম্মেলনে বলেন, “সরকারের নির্দেশনা এই মাত্র আমার হাতে এসেছে। জনগণের জন্য ফেইসবুক খুলে দিচ্ছি।”
ভাইবার, হোয়াটসঅ্যাপসহ বন্ধ থাকা অন্যান্য মোবাইল অ্যাপগুলোর বিষয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, এগুলোর ব্যাপারে ‘পরে সিদ্ধান্ত হবে’।
সংবাদ সম্মেলন চলাকালে প্রতিমন্ত্রী সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে বিটিআরসি চেয়ারম্যানকে ফোন করে এখনই ফেসবুক খুলে দিতে নির্দেশ দেন।
দুই বিদেশি নাগরিক হত্যা ও পুলিশের তল­াশি চৌকিতে হামলার ঘটনার পর জঙ্গি ও সন্ত্রাসীদের যোগাযোগের পথ বন্ধ করতে গত ১৮ নভেম্বর বাংলাদেশে ফেইসবুক বন্ধ করে দেওয়া হয়। একই সময়ে বন্ধ করা হয় মোবাইল ফোনের অ্যাপ ফেইসবুক ম্যাসেঞ্জার, ভাইবার ও হোয়াটসঅ্যাপ। আর বিটিআরসির নির্দেশে এ কাজটি করতে গিয়ে ইতিহাসে প্রথমবারের মতো প্রায় দেড় ঘণ্টা ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েব থেকে বিচ্ছিন্ন থাকে বাংলাদেশ।
‘বৃহত্তর স্বার্থে’ এই কষ্ট মেনে নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম সেদিন বলেছিলেন, “দেশ ও জাতির নিরাপত্তার স্বার্থেই এগুলো বন্ধ করা হয়েছে।”
তবে দীর্ঘ সময় ফেসবুক বন্ধ থাকায় সরকারের এই সিদ্ধান্তে সন্তুষ্ট হতে পারেননি তরুণদের অনেকেই। ফেইসবুকসহ বন্ধ থাকা সামাজিক যোগাযোগের সব মাধ্যম দ্রুত খুলে দেওয়ার দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশও হয়েছে দেশের বিভিন্ন স্থানে। একই সঙ্গে বিকল্প পথে নানাভাবে দেশব্যাপী তরুনরা ফেসবুক ব্যবহার করেছেন।
এই ঘটনায় নিরাপত্তা ঝুঁকির বিষয়টি তুলে ধরে সবাইকে সতর্কও করলেও বিকল্প পথে ফেসবুক ব্যবহার বন্ধ করা যায়নি। তবে তরুণ সমাজকে প্রশংসা করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, এদের কোনোভাবেই ঠেকিয়ে রাখা যাবে না।

 
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র