jugantor
বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তাদের মধ্যে মারামারি, আহত ২

  ঢাকা  

১০ ডিসেম্বর ২০১৫, ১৮:২৪:৫১  | 

নির্বাচনে পরাজয়ের জেরে বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তাদের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এতে সবুর ও মোয়াজ্জেম নামের দুই কর্মকর্তা আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রধান ভবনের নিচতলায় সকালে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা দুজনই বাংলাদেশ ব্যাংকের মতিঝিল অফিসের এএম ক্যাশ অফিসার।
ব্যাংকের কর্মকর্তারা জানান, অফিসার্স ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের (ক্যাশ) নির্বাচনকে কেন্দ্র করে হলুদ দলের দুই পক্ষের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। গত ৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত ওই নির্বাচনে হলুদ দলের সহ-সভাপতি পদে বিজয়ী হন সবুর। আর মোয়াজ্জেম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে হেরে যান। বৃহস্পতিবার সকালে সবুরের কারণেই মোয়াজ্জেম হেরে গেছে এমন দাবি নিয়ে দুজনের মধ্যে শুরু হয় তর্ক-বির্তক। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুজনের তর্কের এক পর্যায়ে সবুরকে মারধর শুরু করেন মোয়াজ্জেম। এতে তার নাক ফেটে রক্ত বেরুতে থাকে। চোখও ফুলে যায়। গুরুতর অবস্থায় সবুরকে বাংলাদেশ ব্যাংকের মেডিকেল ক্যাম্পে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে অন্য একটি হাসপাতালে পাঠানো হয়।
এই ঘটনার পরে ক্যাশ সেকশনে কর্মরত আরেক কর্মকর্তা জলিল ক্ষিপ্ত হয়ে মোয়াজ্জেমকে মারধর করেন। পরে তাকেও মেডিকেল ক্যাম্পে ভর্তি করানো হয়।
উল্লেখ্য, নির্বাচনে নিল দলের কাছে হলুদ দলের ভরাডুবি হয়। নীল দল থেকে সভাপতি পদে নাসির হোসেন ও  সাধারণ সম্পাদক পদে খোন্দকার আনোয়ার হোসেন বিজয়ী বিজয়ী হন।
 

সাবমিট

বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তাদের মধ্যে মারামারি, আহত ২

 ঢাকা 
১০ ডিসেম্বর ২০১৫, ০৬:২৪ পিএম  | 

নির্বাচনে পরাজয়ের জেরে বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তাদের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটেছে। এতে সবুর ও মোয়াজ্জেম নামের দুই কর্মকর্তা আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রধান ভবনের নিচতলায় সকালে এ ঘটনা ঘটে। আহতরা দুজনই বাংলাদেশ ব্যাংকের মতিঝিল অফিসের এএম ক্যাশ অফিসার।
ব্যাংকের কর্মকর্তারা জানান, অফিসার্স ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের (ক্যাশ) নির্বাচনকে কেন্দ্র করে হলুদ দলের দুই পক্ষের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। গত ৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত ওই নির্বাচনে হলুদ দলের সহ-সভাপতি পদে বিজয়ী হন সবুর। আর মোয়াজ্জেম প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে হেরে যান। বৃহস্পতিবার সকালে সবুরের কারণেই মোয়াজ্জেম হেরে গেছে এমন দাবি নিয়ে দুজনের মধ্যে শুরু হয় তর্ক-বির্তক। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুজনের তর্কের এক পর্যায়ে সবুরকে মারধর শুরু করেন মোয়াজ্জেম। এতে তার নাক ফেটে রক্ত বেরুতে থাকে। চোখও ফুলে যায়। গুরুতর অবস্থায় সবুরকে বাংলাদেশ ব্যাংকের মেডিকেল ক্যাম্পে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে অন্য একটি হাসপাতালে পাঠানো হয়।
এই ঘটনার পরে ক্যাশ সেকশনে কর্মরত আরেক কর্মকর্তা জলিল ক্ষিপ্ত হয়ে মোয়াজ্জেমকে মারধর করেন। পরে তাকেও মেডিকেল ক্যাম্পে ভর্তি করানো হয়।
উল্লেখ্য, নির্বাচনে নিল দলের কাছে হলুদ দলের ভরাডুবি হয়। নীল দল থেকে সভাপতি পদে নাসির হোসেন ও  সাধারণ সম্পাদক পদে খোন্দকার আনোয়ার হোসেন বিজয়ী বিজয়ী হন।
 

 
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র