¦
হেলিকপ্টারে আসলেন লিটন, পতাকা উত্তোলনে বিলম্ব

গাইবান্ধা প্রতিনিধি | প্রকাশ : ১৬ ডিসেম্বর ২০১৫

বিজয় দিবসে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের জন্য ঢাকা থেকে হেলিকপ্টারে সুন্দরগঞ্জে আসেন শিশু সৌরভকে গুলি করে হত্যা প্রচেষ্টা মামলার আসামি গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জের সংসদ সদস্য মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন। তাও আবার আড়াই ঘণ্টা বিলম্বে।
বুধবার পতাকা উত্তোলন ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দিতে হেলিকপ্টারে সুন্দরগঞ্জে আসেন তিনি।
অনুষ্ঠান শুরুর নির্ধারিত সময়ের আড়াই ঘণ্টা পর তার হেলিকপ্টারটি সুন্দরগঞ্জে পৌঁছোনোর কারণে অনুষ্ঠানের সূচিও পিছিয়ে দিতে বাধ্য হয় স্থানীয় প্রশাসন।
এছাড়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে দ্বিধা-দ্বন্দ্ব ও সমন্বয়হীনতার অভিযোগ তুলে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাদের একটি বড় অংশ এমপি লিটনের হাত থেকে সংবর্ধনা নেননি।
অনুষ্ঠান সূচি পেছানোয় দুর্ভোগে পড়ে বিজয় দিবসের কর্মসূচিতে অংশ নিতে আসা শিশু-কিশোররা। তাদেরকে সকাল থেকে মাঠে এক টানা দাঁড়িয়ে থাকতে হয়।
ঘটনাটি এলাকায় ব্যাপকভাবে আলোচিত হচ্ছে। প্রশাসনের মধ্যেও এ নিয়ে দেখা দেয় অসন্তোষ।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার আবদুল হাই মিলটন বলেন, কুয়াশার কারণে এমপিকে বহনকারী হেলিকপ্টারটি বিলম্বে আসে। এমপির মহোদয়ের জন্য অপেক্ষা করে আড়াই ঘণ্টা পর পতাকা উত্তোলনসহ অন্যান্য কর্মসূচি পালন করা হয়।
উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহবায়ক গোলাম কবির মুকুল জানান, এমপির হাতে ঘটে যাওয়া অপ্রীতিকর ঘটনায় দলের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয়েছে। সেই সময় এ রাজকীয় হেলিকপ্টার ভ্রমণ নতুন করে আলোচনার সূত্রপাত করেছে। একটি দরিদ্র এলাকায় কোনো জনপ্রতিনিধির এভাবে আগমন কেউ স্বাভাবিক মেনে নিতে পারেনি।
পৌর মেয়র আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, এমপি যে কোনো বাহনেই আসুন না কেন সেটা তার ব্যাপার। কিন্তু তার এই বিলম্বের কারণে কোমল মতি শিশু-কিশোরদের দীর্ঘ সময় ধরে দাঁড়িয়ে রাখাটা অমানবিক।
অন্যদিকে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে দ্বিধাদ্বন্দ্ব ও সমন্বয়হীনতার অভিযোগ তুলে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাদের একটি বড় অংশ এমপি লিটনের হাত থেকে সংবর্ধনা নেননি।  
উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড সূত্রে জানা গেছে, এমপির সঙ্গে প্রশাসনের সমন্বয়হীনতার কারণে তার কাছ থেকে অধিকাংশ মুক্তিযোদ্ধা সংবর্ধনা গ্রহণ করেননি।
তবে জানা গেছে, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার লায়েক আলী খান মিন্টুসহ হাতে গোনা কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধা ওই সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অংশ নেন।
মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার এমদাদুল হক বাবলু জানান, 'যে এমপি মুক্তিযোদ্ধাদের রাজাকার এবং ডাকাত বলে গালি দেন তার হাতে সংবর্ধনা গ্রহণ অবমাননাকর। তাই আমরা তার হাতে সংবর্ধনা নেইনি।'

সর্বশেষ খবর পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close