¦
বসুরহাটে ভোট কেন্দ্রে হামলা ব্যালট ছিনতাই

কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি | প্রকাশ : ৩০ ডিসেম্বর ২০১৫

নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভায় কেন্দ্রে হামলা, ব্যালট পেপার ছিনতাই, প্রার্থীর নির্বচনী অফিস ভাংচুর, অগ্নিসংযোগ ও অনেক কেন্দ্র থেকে প্রতিপক্ষ প্রার্থীর এজেন্টদের বের করে দিয়ে প্রকাশ্যে ব্যালট পেপারে সীল মারার ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ ২টি ককটেল উদ্ধার করে পানিতে ডুবিয়ে নিস্ক্রিয় করেছে। নাশকতার অভিযোগে আমিন উল্যাহ ও মাসুম নামে দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
মাকছুদা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৩ নম্বর ওয়ার্ড কেন্দ্রে বেলা পৌনে ১২টার দিকে সরকার দলীয় কাউন্সিলর প্রার্থী ও বসুরহাট পৌরসভা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল খায়ের ও একই দলের বিদ্রোহী প্রার্থী ফরহাদের লোকজনের মধ্যে ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
আবুল খায়েরের সমর্থকরা পোলিং অফিসারের কাছ থেকে ২শ’ ব্যালট পেপার কেড়ে নিয়ে সিল মেরে ভোট বাক্সে ঢুকিয়ে দেয়। বিদ্রোহী প্রার্থী ফরহাদ প্রতিবাদ করলে আবুল খায়েরের সর্মথকরা ব্যাপক ককটেল ফটিয়ে আতংক সৃষ্টি করে ভোটারদেরকে তাড়িয়ে দেয়। ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। এ সময় ভোট কেন্দ্র ফাঁকা হয়ে যায়।
সরকার দলীয় মেয়র প্রার্থী সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই আবদুল কাদের মির্জার নির্বাচনী অফিসে গিয়ে আবুল খায়েরের সমর্থকরা টেবিল-চেয়ার ভাংচুর করে আগুন লাগিয়ে দেয়।  খবর পেয়ে র‌্যাব, বিজিবি ও স্ট্রাইকিং ফোর্স ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
মাকছুদা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ৩০মিনিট ভোট গ্রহণ বন্ধ ছিল। মেয়র প্রার্থী আবদুল কাদের মির্জা ভোট কেন্দ্রে ঢুকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাসিনা ইসলামকে বলে ফের ভোট চালু করেন।
বেলা ২টা দিকে ৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী আবদুল মন্নান অভিযোগ করেন, সরকারী দলের কাউন্সিলর প্রার্থী তার এজেন্টদেরকে কেন্দ্র থেকে বের করে দিয়েছে।
এদিকে সকাল ১১টার পর থেকে ৪, ৫ ও ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ভোট কেন্দ্রের বাহিরে ব্যাপক বোমাবাজি ও ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

সর্বশেষ খবর পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close