jugantor
এমপি গোলাম সবুর টুলু সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত
বড় ভাই নিলুসহ আহত ৪

  যুগান্তর ডেস্ক  

২৭ জুলাই ২০১৩, ০০:০০:০০  | 

বরগুনা-২ (বেতাগী-বামনা-পাথরঘাটা) আসনের সরকারদলীয় এমপি ও বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ গোলাম সবুর টুলু (৫৮) সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। শুক্রবার বিকাল ৪টার দিকে ফরিদপুরের ভাঙ্গার চুমুদি নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ সময় তার গাড়ির ড্রাইভার ছগির হোসেন, বড় ভাই গোলাম শহীদ নিলু, শিক্ষক হারুন অর রশিদ, ব্যক্তিগত সহকারী শহিদুল ইসলাম গুরুতর আহত হন। তাৎক্ষণিক আহতদের ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাদের ফরিদপুর জেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্থানান্তর করা হয়। এমপি গোলাম সবুর টুলুর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ অ্যাডভোকেট ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এমপি টুলুর লাশ শুক্রবার রাতে ঢাকায় এনে বারডেম হাসপাতালের হিমাগারে রাখা হয়েছে। আজ সংসদ প্লাজায় জানাজা শেষে বনানীর কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হবে। জানা যায়, শুক্রবার সকালে মাইক্রোবাসে করে পাথরঘাটা থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হন তিনি। মাইক্রোবাসটি বিকাল পৌনে ৪টার দিকে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কে ফরিদপুরের ভাঙ্গায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, এমপিকে বহনকৃত মাইক্রোবাসটি দুর্ঘটনাস্থলে আসার পর গাড়িটির সামনের চাকা ফেটে যায়। এতে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেললে গাড়িটি রাস্তার ডান পাশের বড় একটি গাছের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে খাদে পড়ে যায়।

গাছের সঙ্গে ধাক্কায় মাইক্রোবাসটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। এতে দুর্ঘটনাস্থলেই এমপি গোলাম সবুর টুলু মারা যান। গোলাম সবুর টুলুর নিহত হওয়ার খবর শুনে তার নির্বাচনী এলাকার মানুষ স্তত হয়ে পড়েন। দলীয় কার্যালয় ও তার বাসভবনে নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষ ভিড় করে। গোলাম সবুর টুলু মধুমতি সিরামিকসের মালিক। তিনি বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য। এমপি টুলু ৩ কন্যা সন্তানের জনক। এ রিপোর্ট লেখার সময় আহত ওপর ৪ জনকে হেলিকপ্টারযোগে ঢাকায় উন্নত চিকিৎসার জন্য নেয়ার প্রস্তুতি চলছিল।

ভাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দাদন ফকির গোলাম সবুর টুলুর মৃত্যু নিশ্চিত করে বলেন, লাশ ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রাখা রয়েছে।

এমপি গোলাম সবুর টুলুর মৃত্যুতে শোক : এদিকে এমপি গোলাম সবুর টুলুর অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, ডেপুটি স্পিকার শওকত আলী, সংসদ উপনেতা সাজেদা চৌধুরী, জাতীয় পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি, স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট মোল্লা মোঃ আবু কাওছার ও সাধারণ সম্পাদক পংকজ দেবনাথ ও যুবদল সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল।

বরগুনা প্রতিনিধি জানান, তার মৃত্যুর খবরটি বিদ্যুৎগতিতে বরগুনায় ছড়িয়ে পড়লে সর্বত্র শোকের ছায়া নেমে আসে।

তার মৃত্যুতে বরগুনা-১ আসনের এমপি ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু, বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, বরগুনা-১ আসনের সাবেক এমপি মোঃ দেলোয়ার হোসেন, বরগুনা জেলা পরিষদ প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ জাহাঙ্গীর কবির, সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম সরোয়ার টুকু, জেলা বিএনপির সভাপতি মাহবুবুল আলম ফারুক মোল্লা, বরগুনা পৌর মেয়র মোঃ শাহাদাত হোসেন, জেলা সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আনোয়ার হোসেন মনোয়ার, জেলা পাবলিক পলিসি ফোরামের সভাপতি হাসান ঝন্টু, বরগুনা প্রেস ক্লাবের সভাপতি মনির হোসেন কামালসহ বিভিন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ শোক জানিয়েছেন।

আমতলী প্রতিনিধি জানান, এমপি গোলাম সবুর টুলুর মৃত্যুতে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ ও মরহুমের আÍার মাগফিরাত কামনা করে বিবৃতি দিয়েছেন আমতলী উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি জি এম দেলোয়ার হোসেন, উপজেলা চেয়ারম্যান ভারপ্রাপ্ত আবুল কালাম সামসুদ্দিন শানু, সহ-সভাপতি এম এ কাদের মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক পৌর মেয়র মোঃ মতিয়ার রহমান, আওয়ামী লীগ নেতা দেওয়ান মজিবুর রহমান, আমতলী প্রেস ক্লাব সভাপতি পরিতোষ কর্মকার, সম্পাদক এমএ সাইদ খোকন, সিনিয়র সাংবাদিক শাহাবুদ্দিন পান্না, জাকির হোসেন, মস্তফা কবির, জিএম মুসা প্রমুখ।

বামনা প্রতিনিধি জানান, গোলাম সবুর টুলুর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বামনা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সৈয়দ মানজুরুর রব মুর্তাযা আহসান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আলমগীর হোসেন, বামনা উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোশাররফ হোসেন জমাদ্দার, সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাইতুল ইসলাম লিটু, বিএনপির সভাপতি আবুল কালাম আজাদ রানা, সাধারণ সম্পাদক মোঃ এনায়েত কবির হাওলাদার, জাতীয় পার্টির সভাপতি মোঃ ফারুক আহম্মেদ আকন, কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি অ্যাডভোকেট আঃ খালেক জমাদ্দার, উদীচীর সভাপতি মোঃ নেছার উদ্দিন, বামনা প্রেস ক্লাব সভাপতি ওবায়দুল কবির, সাধারণ সম্পাদক মোঃ বাসির মোল্লা প্রমুখ।

বামনায় ৩ দিনের শোক : এমপি গোলাম সবুর টুলুর অকাল মৃত্যুতে বামনা উপজেলা পরিষদ ৩ দিনের শোক ঘোষণা করেছে। শুক্রবার রাত সাড়ে ৭টায় বামনা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সৈয়দ মানজুরুর রব মুর্তাযা আহসানের সভাপতিত্বে উপজেলা পরিষদে শোক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বামনা উপজেলায় ৩ দিনের শোক কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। শনিবার-সোমবার উপজেলার সব সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কালো পতাকা উত্তোলন, কালো ব্যাজ ধারণ, মসজিদে দোয়া, মোনাজাত এবং মন্দিরে প্রার্থনা করার জন্য বলা হয়েছে।


 

সাবমিট

এমপি গোলাম সবুর টুলু সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত

বড় ভাই নিলুসহ আহত ৪
 যুগান্তর ডেস্ক 
২৭ জুলাই ২০১৩, ১২:০০ এএম  | 

বরগুনা-২ (বেতাগী-বামনা-পাথরঘাটা) আসনের সরকারদলীয় এমপি ও বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আলহাজ গোলাম সবুর টুলু (৫৮) সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। শুক্রবার বিকাল ৪টার দিকে ফরিদপুরের ভাঙ্গার চুমুদি নামক স্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে। এ সময় তার গাড়ির ড্রাইভার ছগির হোসেন, বড় ভাই গোলাম শহীদ নিলু, শিক্ষক হারুন অর রশিদ, ব্যক্তিগত সহকারী শহিদুল ইসলাম গুরুতর আহত হন। তাৎক্ষণিক আহতদের ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাদের ফরিদপুর জেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্থানান্তর করা হয়। এমপি গোলাম সবুর টুলুর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ অ্যাডভোকেট ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এমপি টুলুর লাশ শুক্রবার রাতে ঢাকায় এনে বারডেম হাসপাতালের হিমাগারে রাখা হয়েছে। আজ সংসদ প্লাজায় জানাজা শেষে বনানীর কবরস্থানে তার লাশ দাফন করা হবে। জানা যায়, শুক্রবার সকালে মাইক্রোবাসে করে পাথরঘাটা থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হন তিনি। মাইক্রোবাসটি বিকাল পৌনে ৪টার দিকে ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কে ফরিদপুরের ভাঙ্গায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, এমপিকে বহনকৃত মাইক্রোবাসটি দুর্ঘটনাস্থলে আসার পর গাড়িটির সামনের চাকা ফেটে যায়। এতে চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেললে গাড়িটি রাস্তার ডান পাশের বড় একটি গাছের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে খাদে পড়ে যায়।

গাছের সঙ্গে ধাক্কায় মাইক্রোবাসটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। এতে দুর্ঘটনাস্থলেই এমপি গোলাম সবুর টুলু মারা যান। গোলাম সবুর টুলুর নিহত হওয়ার খবর শুনে তার নির্বাচনী এলাকার মানুষ স্তত হয়ে পড়েন। দলীয় কার্যালয় ও তার বাসভবনে নেতাকর্মীসহ সাধারণ মানুষ ভিড় করে। গোলাম সবুর টুলু মধুমতি সিরামিকসের মালিক। তিনি বন ও পরিবেশ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য। এমপি টুলু ৩ কন্যা সন্তানের জনক। এ রিপোর্ট লেখার সময় আহত ওপর ৪ জনকে হেলিকপ্টারযোগে ঢাকায় উন্নত চিকিৎসার জন্য নেয়ার প্রস্তুতি চলছিল।

ভাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দাদন ফকির গোলাম সবুর টুলুর মৃত্যু নিশ্চিত করে বলেন, লাশ ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রাখা রয়েছে।

এমপি গোলাম সবুর টুলুর মৃত্যুতে শোক : এদিকে এমপি গোলাম সবুর টুলুর অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, ডেপুটি স্পিকার শওকত আলী, সংসদ উপনেতা সাজেদা চৌধুরী, জাতীয় পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি, স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি অ্যাডভোকেট মোল্লা মোঃ আবু কাওছার ও সাধারণ সম্পাদক পংকজ দেবনাথ ও যুবদল সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল।

বরগুনা প্রতিনিধি জানান, তার মৃত্যুর খবরটি বিদ্যুৎগতিতে বরগুনায় ছড়িয়ে পড়লে সর্বত্র শোকের ছায়া নেমে আসে।

তার মৃত্যুতে বরগুনা-১ আসনের এমপি ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট ধীরেন্দ্র দেবনাথ শম্ভু, বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, বরগুনা-১ আসনের সাবেক এমপি মোঃ দেলোয়ার হোসেন, বরগুনা জেলা পরিষদ প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ জাহাঙ্গীর কবির, সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম সরোয়ার টুকু, জেলা বিএনপির সভাপতি মাহবুবুল আলম ফারুক মোল্লা, বরগুনা পৌর মেয়র মোঃ শাহাদাত হোসেন, জেলা সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আনোয়ার হোসেন মনোয়ার, জেলা পাবলিক পলিসি ফোরামের সভাপতি হাসান ঝন্টু, বরগুনা প্রেস ক্লাবের সভাপতি মনির হোসেন কামালসহ বিভিন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ শোক জানিয়েছেন।

আমতলী প্রতিনিধি জানান, এমপি গোলাম সবুর টুলুর মৃত্যুতে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ ও মরহুমের আÍার মাগফিরাত কামনা করে বিবৃতি দিয়েছেন আমতলী উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি জি এম দেলোয়ার হোসেন, উপজেলা চেয়ারম্যান ভারপ্রাপ্ত আবুল কালাম সামসুদ্দিন শানু, সহ-সভাপতি এম এ কাদের মিয়া, সাংগঠনিক সম্পাদক পৌর মেয়র মোঃ মতিয়ার রহমান, আওয়ামী লীগ নেতা দেওয়ান মজিবুর রহমান, আমতলী প্রেস ক্লাব সভাপতি পরিতোষ কর্মকার, সম্পাদক এমএ সাইদ খোকন, সিনিয়র সাংবাদিক শাহাবুদ্দিন পান্না, জাকির হোসেন, মস্তফা কবির, জিএম মুসা প্রমুখ।

বামনা প্রতিনিধি জানান, গোলাম সবুর টুলুর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বামনা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সৈয়দ মানজুরুর রব মুর্তাযা আহসান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আলমগীর হোসেন, বামনা উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোশাররফ হোসেন জমাদ্দার, সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাইতুল ইসলাম লিটু, বিএনপির সভাপতি আবুল কালাম আজাদ রানা, সাধারণ সম্পাদক মোঃ এনায়েত কবির হাওলাদার, জাতীয় পার্টির সভাপতি মোঃ ফারুক আহম্মেদ আকন, কমিউনিস্ট পার্টির সভাপতি অ্যাডভোকেট আঃ খালেক জমাদ্দার, উদীচীর সভাপতি মোঃ নেছার উদ্দিন, বামনা প্রেস ক্লাব সভাপতি ওবায়দুল কবির, সাধারণ সম্পাদক মোঃ বাসির মোল্লা প্রমুখ।

বামনায় ৩ দিনের শোক : এমপি গোলাম সবুর টুলুর অকাল মৃত্যুতে বামনা উপজেলা পরিষদ ৩ দিনের শোক ঘোষণা করেছে। শুক্রবার রাত সাড়ে ৭টায় বামনা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সৈয়দ মানজুরুর রব মুর্তাযা আহসানের সভাপতিত্বে উপজেলা পরিষদে শোক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বামনা উপজেলায় ৩ দিনের শোক কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে। শনিবার-সোমবার উপজেলার সব সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কালো পতাকা উত্তোলন, কালো ব্যাজ ধারণ, মসজিদে দোয়া, মোনাজাত এবং মন্দিরে প্রার্থনা করার জন্য বলা হয়েছে।


 

 
শনি
রোব
সোম
মঙ্গল
বুধ
বৃহ
শুক্র