¦
ইউরোপীয় পার্লামেন্ট ও অ্যামনেস্টির উদ্বেগ

কূটনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশ : ২৩ জানুয়ারি ২০১৫

বাংলাদেশে চলমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে সহিংসতা বেড়ে যাওয়ায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে ইউরোপীয় পার্লামেন্ট এবং মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। ইউরোপীয় পার্লামেন্ট এ পরিস্থিতিতে সংযম দেখাতে ও সংলাপে যুক্ত হতে সরকার এবং বিরোধী দলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। রাজনৈতিক সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ায় মানবাধিকার পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে বলে উদ্বেগ জানিয়েছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।
ইউরোপীয় পার্লামেন্টের দক্ষিণ এশিয়ায় সম্পর্ক বিষয়ক প্রতিনিধি দলের চেয়ার জিন ল্যাম্বার্ট বলেন, সাম্প্রতিক দিনগুলোতে বাংলাদেশে রাজনৈতিক সহিংসতা ছড়িয়ে পড়ায় ইউরোপীয় পার্লামেন্টের দক্ষিণ এশিয়াবিষয়ক ডেলিগেশন গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেছে।
বিবৃতিতে আরও বলা হয়, বর্তমান পরিস্থিতি খুবই বিরক্তিকর। ব্যতিক্রম ছাড়া সভা-সমাবেশ, বক্তব্য রাখা এবং চলাচলের স্বাধীনতাসহ মৌলিক স্বাধীনতার প্রতি সব রাজনৈতিক শক্তির সম্মান প্রদর্শন করা উচিত।
এতে উল্লেখ করা হয়, ইউরোপীয় পার্লামেন্ট ডেলিগেশন তাই বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা ও উন্নয়নকে আবারও বিপদগ্রস্ত না করতে এখন পর্যন্ত যার ঘাটতি রয়েছে সেই সংযম সর্বোচ্চ পর্যায়ে দেখানোর জন্য এবং সত্যিকার সংলাপে বসার জন্য সত্যিকার আগ্রহ ও দায়িত্বশীলতা প্রদর্শন করতে সরকার ও বিরোধী দলের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছে।
অ্যামনেস্টির উদ্বেগ : অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল তাদের প্রতিবেদনে বলেছে, গত তিন সপ্তাহ ধরে সরকার ও বিরোধী দল সমর্থকরা ঢাকা ও অন্য শহরগুলোতে লড়াইরত থাকায় বাংলাদেশে মানবাধিকার পরিস্থিতির অবনতি অব্যাহত রয়েছে। এতে বলা হয়, বিরোধী দল যান চলাচলের ওপর অবেরোধ আরোপ করায় রাজপথে সহিংসতার ফলে প্রাণহানি হচ্ছে এবং অনেকে আহত হচ্ছে। অপরদিকে বেশ কয়েকজন জ্যেষ্ঠ বিরোধীদলীয় নেতার বিরুদ্ধে সহিংসতার প্রত্যেক্ষ কোনো প্রমাণ না থাকলেও উস্কানির অভিযোগে আটক রয়েছেন। নিরাপত্তা বাহিনী ঘোষণা করছে, বোমা বহনকারী কাউকে সন্দেহ হলে তারা গুলি চালাবে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে অগ্নিসংযোগের মাধ্যমে হামলা চালিয়ে হত্যার বিরুদ্ধে একটি নিরপেক্ষ তদন্ত পরিচালনা করে দায়ীদের বিচারের মুখোমুখি করার জন্য আমরা সরকারের প্রতি আহ্বান জানাই। কেউ স্বাধীন মত প্রকাশ ও শান্তিপূর্ণ সমাবেশ করার দায়ে আটক হলে তাকে মুক্তি দেয়ার আহ্বান জানাই। আন্তর্জাতিক মানের বেশি কোনো আইন প্রয়োগকারী বাহিনী যেন বলপ্রয়োগ না করে সরকারের তা নিশ্চিত করা প্রয়োজন। বাংলাদেশের অঙ্গীকার মোতাবেক সব মানবাধিকারের বাধ্যবাধকতা পূরণ নিশ্চিত করতে হবে।
প্রথম পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close