¦
সচিবালয়ে হাতবোমা হামলা

যুগান্তর রিপোর্ট | প্রকাশ : ০২ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

দেশব্যাপী বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দলের ৭২ ঘণ্টার হরতাল রোববার শুরু হয়েছে। বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামি করে মিথ্যা মামলা, সারা দেশে নেতাকর্মীদের হত্যা, গুম, রিমান্ড, মামলা, গ্রেফতার, নির্যাতন এবং অবিলম্বে সব দলের অংশগ্রহণে নির্বাচনের দাবিতে এ হরতাল ডাকা হয়। হরতালের পাশাপাশি অবরোধের ২৭তম দিন পালিত হয়েছে। হরতাল আগামী বুধবার ভোর ৬টায় শেষ হবে। হরতাল-অবরোধে রাজধানী শান্তি থাকলেও সচিবালয়ের তিন নম্বর গেটের ভেতরে ও বাইরে দুটি এবং পার্শ্ববর্তী বিদ্যুৎ ভবনের ৫ তলায় একটি হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। পুলিশ ৩ শতাধিক ২০ দলের নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে। পঞ্চগড়, সিরাজগঞ্জ, লক্ষ্মীপুর ও কুমিল্লাসহ বিভিন্ন স্থানে ৭০ গাড়ি ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করা হয়।
হরতালে দূরপাল্লার রুটে সীমিত আকারে গাড়ি চলাচল করেছে। রাজধানী ও এর আশপাশের জেলাগুলোতে যানবাহন চলাচল ছিল অনেকটা স্বাভাবিক। লঞ্চ চলাচলে কোনো প্রতিবন্ধকতার খবর পাওয়া যায়নি। আতংকের কারণে বাস ও লঞ্চে যাত্রী ছিল কম। সিডিউল বিপর্যয়ের মধ্যে ট্রেন চলাচল করেছে। বিভিন্ন এলাকায় দোকানপাট আংশিক খোলা থাকলেও লোক সমাগম তেমন ছিল না। মেহেরপুরে বিএনপি ও জামায়াত কর্মীর বাড়িতে বোমা হামলার ঘটনা ঘটেছে। নওগাঁসহ তিন স্থানে বিদ্যুৎ অফিসে হামলার ঘটনা ঘটেছে।
রাজধানীতে গণপরিবহন ছিল চোখে পড়ার মতো। রাজপথে ব্যক্তিগত গাড়ির সংখ্যাও ছিল অন্যান্য দিনের চেয়ে বেশি। সকাল থেকে রাজধানীর কোথাও পিকেটিং কিংবা মিছিল দেখা যায়নি। তবে সকাল পৌনে ১১টার দিকে প্রশাসনের কেন্দ্রবিন্দু সচিবালয়ে তিন নম্বর গেটের ভেতরে ও বাইরে দুটি এবং পার্শ্ববর্তী বিদ্যুৎ ভবনের ৫ তলায় একটি হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। এতে দুটি পাজেরো গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বিদ্যুৎ বিভাগের এক উপ-সহকারী প্রকৌশলী, সিসিটিভি অপারেটর ও একজন নিরাপত্তাকর্মীকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে জাতীয়তাবাদী সামাজিক সাংস্কৃতিক সংস্থার (জাসাস) যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকসহ বিএনপি-জামায়াতের ৩২ নেতাকর্মীকে আটক করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)। শনিবার রাত থেকে রোববার ভোর পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়।
রাজধানীতে একের পর এক গাড়িতে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় সন্ধ্যার পর চরম আতংক ছড়িয়ে পড়ে। সর্বশেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী রাতে ঢাকায় ৪টি গাড়িতে আগুন ও পেট্রলবোমা মারা হয়েছে। কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। এসব ঘটনায় রাতে গণপরিবহন ও ব্যক্তিগত গাড়ি চলাচল একেবারেই কমে যায়।
সন্ধ্যা ৭টার দিকে রাজধানীর জজকোর্ট এলাকায় ইউনাইটেড পরিবহনের (ঢাকা-মেট্রো-জ-১১-২২৬৫) একটি গাড়িতে অগ্নিসংযোগ করা হয়। এতে বাসটির কিছু অংশ ক্ষতি হয়। এ ঘটনায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। প্রায় একই সময়ে নিউমার্কেট এলাকায় ঢাকা-গাজীপুর রুটের ভিআইপি-২৭ গাড়িতে অগ্নিসংযোগ করা হয়। এতে গাড়ির বেশিরভাগ অংশ পুড়ে গেছে। রাত পৌনে ৮টার দিকে শাহবাগের পরীবাগ এলাকায় আরেকটি গাড়িতে অগ্নিসংযোগ করে দুর্বৃত্তকারীরা। নগরীর বাড্ডার নতুনবাজার এলাকায় ফাল্গ–ন পরিবহনের একটি গাড়িতে পেট্রলবোমা হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। এতে বাসটিতে আগুন ধরে যায়। আতংকে যাত্রীরা জানালা ভেঙে নেমে যায়। তবে হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। এছাড়া রাজধানীর পলাশীসহ বেশ কয়েকটি এলাকায় ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায় অবরোধকারীরা।
সচিবালয়ের নিরাপত্তাকর্মী আবুল কালাম জানান, বেলা ১১টার দিকে সচিবালয়ের ৩ নম্বর গেটের ভেতরে-বাইরে দুটি হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটে। এতে ঢাকা মেট্রো-ঘ-১৩-৮৬৮৯ ও ঢাকা মেট্রো-ঘ-১১-১৩৮৭) ক্ষতিগ্রস্ত হয়। একই সময় বিদ্যুৎ ভবনের ৫ তলার একটি জানালায় হাতবোমার বিস্ফোরণ ঘটে। এ সময় জানালার কাচ ভেঙে নিচে পড়ে।
সচিবালয়ের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার মনিরুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, প্রাথমিক তদন্তে বিদ্যুৎ ভবনের ভেতর থেকে বোমাগুলো সচিবালয়ের ভেতর ছুড়ে মারা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
রমনা পুলিশের সিনিয়র সহকারী কমিশনার শিবলী নোমান জানান, বিদ্যুৎ ভবনের পাঁচতলা থেকেই ককটেল দুটি নিচে ফেলা হয়। তৃতীয়টি ফেলতে গিয়ে কাচে লেগে বিস্ফোরিত হয়েছে।
শিবলী নোমান সাংবাদিকদের জানান, মিরপুরে মেসার্স নাজ এন্টারপ্রাইজের মালিক নজরুল ইসলামকে ঘটনার পর থেকে পাওয়া যাচ্ছে না। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য উপ-সহকারী প্রকৌশলী আইয়ুব আলীকে আটক করা হয়েছে।
এদিকে সচিবালয়ে হাতবোমা বিস্ফোরণের তদন্ত করতে গিয়ে নিরাপত্তার জন্য স্থাপন করা প্রায় সাড়ে ৩শ’ ক্যামেরা দীর্ঘদিন ধরে বিকল রয়েছে বলে জানতে পেরেছে পুলিশ।
এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল সাংবাদিকদের বলেন, ‘বিষয়টি টেকনিক্যাল। কেন দেরি হচ্ছে, তা খতিয়ে দেখা হবে।’
খবর পেয়ে বিদ্যুৎ সচিব মনোয়ার হোসেনসহ সচিবালয় ও পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ঘটনার পর সচিবালয়ের নিরাপত্তা আরও এক ধাপ বাড়ানো হয়েছে।
যুগান্তর ব্যুরো, স্টাফ রিপোর্টার ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-
ফেনী : রোববার সকাল ৮টায় ফেনী ট্রাংক রোডের জিরো পয়েন্টে জামায়াত-শিবিরের ক্যাডাররা পুলিশকে লক্ষ্য করে বোমা বিস্ফোরণ ঘটায়। এ সময় পুলিশ দৌড়ে পালিয়ে যায়। এর মধ্যে ট্রাংক রোড়ের বিভিন্ন পয়েন্টে ১৫-২০টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে প্রায় ১০টি সিএনজি অটোরিকশায় আগুন দেয়া হয়। পরে পুলিশ ৯ জনকে আটক করে।
সাতক্ষীরা : জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে জামায়াত-বিএনপির ২১ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে সহিংসতা ও নাশকতার অভিযোগ রয়েছে। ভোমরা স্থলবন্দরে আমদানি-রফতানি স্বাভাবিক কার্যক্রম হয়েছে।
পঞ্চগড় : হরতালে পঞ্চগড়ের বিভিন্ন এলাকায় নাশকতার চেষ্টার অভিযোগে পুলিশ শনিবার ভোরে জামায়াত-শিবিরের ৪ জন নেতাকর্মীকে যথাক্রমে গ্রেফতার করেছে। তাদের জেলহাজতে পাঠানো হয়।
হবিগঞ্জ ও চুনারুঘাট : ৫টি গাড়ি ভাংচুর ও ট্রাকে অগ্নিসংযোগ করছে হরতাল সমর্থকরা। এ ঘটনায় অন্তত ৫ জন আহত হয়েছে। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আমিনুর রশিদ এমরান ও যুবদল নেতা ফারুক আহমেদসহ ৭ জনকে আটক করেছে। চুনারুঘাটে কাভার্ড ভ্যানে আগুন দিয়েছে দুর্বৃত্তরা।
ঝালকাঠি ও কাঁঠালিয়া : পুলিশ রোববার জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ : শিবগঞ্জের মনাকষা মোড়ে একটি ট্রাকে হামলা চালিয়ে ভাংচুর করেছে হরতালকারীরা। এছাড়া বিচ্ছিন্নভাবে বেশ কয়েকটি মোটরসাইকেল ও অটোরিকশা ভাংচুর করা হয়েছে। সোনামসজিদ স্থলবন্দরে আমদানি-রফতানি কার্যক্রম চলছে।
কুমিল্লা, বুড়িচং ও ব্রাহ্মণপাড়া : বিএনপি-জামায়াতের ২১ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুড়িচং উপজেলায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সৈয়দপুর এলাকায় দুটি যাত্রীবাহী বাসে অগ্নিসংযোগ করেছে দুর্বৃত্তরা। এতে বাস দুটির সম্পূর্ণ অংশ পুড়ে গেছে। বুড়িচংয়ে গাড়ি পোড়ানোর মামলার আসামি উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যানসহ দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে উপজেলার মোকাম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মো. জয়নাল আবেদিন কন্ট্রাক্টরকে গ্রেফতার করে।
লক্ষ্মীপুর ও রায়পুর : রোববার সকালে ৬টি সিএনজি অটোরিকশা ভাংচুর করেছে অবরোধকারীরা। এর আগে শনিবার রাতে সদর উপজেলার কাশিপুরে একটি মালবাহী পিকআপে অগ্নিসংযোগ করা হয়। স্থানীয় সন্ত্রাসী লাদেন মাছুম বাহিনীর সহযোগী নুরুজ্জামানকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রায়পুরে পিকেটাররা ৮টি অটোরিকশা ও মোটরসাইকেল ভাংচুর করেছে।
পিরোজপুর, মঠবাড়িয়া ও ভাণ্ডারিয়া : শনিবার রাত ১০টায় শহরের পুরাতন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় একটি যাত্রীবহী বাসে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে অবরোধকারীরা। পুলিশ জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ১৪ জনকে গ্রেফতার করেছে। মঠবাড়িয়ায় দুটি ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় রোববার স্থানীয় থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
কুড়িগ্রাম : শনিবার রাত থেকে রোববার দুপুর পর্যন্ত কুড়িগ্রামে জামায়াত-বিএনপির ৭ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
মেহেরপুর : গাংনী উপজেলার জোড়পুকুরিয়া গ্রামে বিএনপি কর্মী টগর আলী ও জামায়াত কর্মী রবিউল ইসলামের বাড়িতে শনিবার রাতে বোমা হামলা হয়েছে। তবে কেউ হতাহত হয়নি। শনিবার রাত পৌনে ২টায় উপজেলার জোড়পুকুরিয়া গ্রামে তাদের বাড়ি লক্ষ্য করে পরপর ৪টি হাতবোমা ছুড়ে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।
সিরাজগঞ্জ ও উল্লাপাড়া : রামগাঁতীতে পেট্রলবোমা হামলায় ব্যবসায়ী নিহতের ঘটনায় পুলিশ ৩৩ জনকে আটক করেছে। এর মধ্যে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার খোকসাবাড়ীতে ককটেল ছোড়া অবস্থায় ৩ জন শিবিরকর্মীকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। এদিকে শনিবার রাতে অল্পের জন্য পেট্রলবোমার হাত থেকে রক্ষা পায় ১টি যাত্রীবাহী বাস। এ সময় যাত্রীরা তাড়াহুড়া করে নামতে গেলে ৫ জন আহত হয়। সংঘর্ষে উল্লাপাড়া থানার ওসিসহ তিনজন আহত হয়েছেন।
গাইবান্ধা ও সাদুল্লাপুর : বিএনপি-জামায়াত-শিবিরের ৪৪ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
মানিকগঞ্জ : বিএনপি-জামায়াতের ১২ কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।
বগুড়া : দুপুরে শহরতলির এরুলিয়া ও বারপুর এলাকায় পিকেটাররা দুটি ট্রাকে পেট্রলবোমা মারে। আগুনে ট্রাক দুটির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। শহরতলির চারমাথায় একটি আলুবোঝাই ট্রাক ও মহাস্থানে একটি সিএনজি অটোরিকশায় আগুন দেয়া হয়। তিনমাথা এলাকায় পিকেটারদের ধাওয়া খেয়ে চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে একটি ট্রাক মহাসড়কের পাশে খাদে পড়ে যায়। এতে চালক আহত হয়েছেন। রাতে পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে জামায়াত-বিএনপির ৩৩ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে।
ময়মনসিংহ : কোতোয়ালি পুলিশ জেলা বিএনপির সহসভাপতি ও শহর বিএনপির সভাপতি অধ্যাপক শফিকুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে। তার বিরুদ্ধে একটি মামলা হয়েছে।
কিশোরগঞ্জ : কিশোরগঞ্জে বিদ্যুৎ (পিডিবি) অফিসে ককটেল বিস্ফোরণ এবং জেলার করিমগঞ্জ উপজেলায় একটি ট্রাক ও মাইক্রোবাসে আগুন লাগানোর ঘটনা ঘটেছে।
নোয়াখালী : মাইজদী বাজারের উত্তরে বাংলাদেশ টেলিভিশন উপকেন্দ প্রাঙ্গণের প্রধান সড়কে ২টি যাত্রীবাহী বাস, ১০-১২টি সিএনজি, ৩-৪টি ব্যাটারিচালিত অটো ভাংচুর করেছে পিকেটাররা। পুলিশ রাতে অভিযান চালিয়ে বিএনপি ও জামায়াত-শিবিরের ১৫ জনকে গ্রেফতার করেছে।
বাগেরহাট : রোববার সকালে পৃথক অভিযান চালিয়ে গোপন বৈঠক চলাকালে এক নারী কর্মীসহ জামায়াত শিবিরের ১১ কর্মীকে আটক করেছে শরণখোলা পুুলিশ। এ সময় ৫০টি জিহাদি বই উদ্ধার করা হয়।
সিলেট : শিবিরের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। এ সময় বেশ কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। পুলিশ ৫ জনকে গ্রেফতার করে। নগরীর সোবহানীঘাটে গাড়ি পোড়ানো ঘটনায় বিএনপির ৩৪ নেতাকর্মীকে আসামি করে মামলা করেছে পুলিশ।
বরিশাল : নগরীতে পৃথক স্থানে সড়কে অগ্নিসংযোগ ও বিক্ষোভ করেছে ছাত্রদল ও ছাত্রশিবির। এছাড়া দুটি ট্রাকে অগ্নিসংযোগ করে তারা।
রংপুর : নগরীতে জেলা পরিষদ মার্কেট, পায়রা চত্বর, শাপলা, সেন্ট্রাল রোড, সিটি বাজার ও সালেক পাম্পের সামনে হরতালের সমর্থনে ১০টি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। নাশকতার আশংকায় রংপুর জেলায় জামায়াত-বিএনপির ১৫ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করা হয়।
চট্টগ্রাম : নগরীর কোথাও কোনো ধরনের নাশকতার খবর পাওয়া যায়নি। নগরীতে পুলিশের ওপর ককটেল হামলার পর আটক হওয়া ৩২ শিবির নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। শনিবার গভীর রাতে দুটি মামলার মধ্যে একটি কোতোয়ালি থানায় এবং অপরটি চকবাজার থানায় দায়ের করা হয়।
খুলনা : মহানগরসহ খুলনা জেলা পুলিশ অভিযান চালিয়ে বিএনপি ও জামায়াতের ১০ জনকে আটক করেছে। শনিবার রাতে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের (কেএমপি) সদর দফতরসহ মহানগরীর ৫টি স্থানে বোমা হামলা হয়েছে। বোমা হামলায় কেউ আহত হয়নি। মহানগরীর শেরেবাংলা রোড এলাকায় বোমা হামলা করার পর পুলিশ রাজিব নামে এক যুবককে আটক করেছে।
রাজশাহী : রাজশাহীজুড়ে আলাদা অভিযানে বিএনপি ও জামায়াতের ১৫ কর্মীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মহানগরীতে ককটেল তৈরিকারী চক্রের সদস্য ও ছাত্রশিবিরের চার কর্মীকে আটক করা হয়েছে। তাদের কাছে ১০টি তাজা ককটেল, ককটেল তৈরির সরঞ্জাম, সিডি ও সাংগঠনিক বই পাওয়া গেছে।
নওগাঁ : শনিবার রাতে নওগাঁ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (পিডিবি) অফিসে পেট্রলবোমা নিক্ষেপ করা হয়েছে। অফিসের দোতলায় সহকারী প্রকৌশলীর কক্ষের পেছন থেকে বোমাটি নিক্ষেপ করে দুর্বৃত্তরা। এতে আগুন জ্বলে উঠলে ওই কার্যালয়ের লোকজন দ্রুত আগুন নিভিয়ে ফেলে।
সাতকানিয়া : সাতকানিয়ায় এক ব্যবসায়ীর মোটরসাইকেল আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। ওই ব্যবসায়ীর নাম সাইফুল ইসলাম।
 

প্রথম পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close