¦
বিশ্বকাপের বিস্ময় আয়ারল্যান্ড

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশ : ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৫

বিশ্বকাপে আয়ারল্যান্ড মানেই চমক। বড় মঞ্চে দৈত্য-বধের ব্যাপারটিকে অভ্যাসে পরিণত করা আইরিশদের ক্রিকেট রূপকথায় কাল যোগ হল আরেকটি সোনালি অধ্যায়। ফেভারিটদের জয়জয়কারের মধ্যে এবারের বিশ্বকাপে প্রথম অঘটনের জন্ম দিল আয়ারল্যান্ড। ফেভারিট তত্ত্বকে আবারও ভুল প্রমাণ করে বিশ্বকাপের প্রথম দু’আসরের চ্যাম্পিয়ন ওয়েস্ট ইন্ডিজকে চার উইকেটে হারিয়ে দিয়েছে আইরিশরা। নেলসনের স্যাক্সটন ওভালে সাত উইকেটে ওয়েস্ট ইন্ডিজের গড়া ৩০৪ রানের পাহাড় ২৫ বল হাতে রেখেই টপকে যায় তারা। বলে-কয়ে এমন দাপুটে জয়ের পর আইরিশদের একটাই দাবি, আইসিসির সহযোগী দেশ বলে তাদের যেন আর অবজ্ঞা করা না হয়।
ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে মহাকাব্যিক এই জয়কে ‘অঘটন’ মানতে নারাজ আয়ারল্যান্ড অধিনায়ক উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড, ‘দয়া করে এই জয়কে অঘটন বলবেন না। জেতার প্রস্তুতি নিয়েই আমরা মাঠে নেমেছিলাম। বাকি ম্যাচগুলোতেও অভিন্ন লক্ষ্য আমাদের। সহযোগী দেশ মানেই ছোট দল, আর ছোট দল জিতলেই অঘটন, এই ধারণাটা ভুল। সহযোগী আর পূর্ণ সদস্য দেশ বলে কিছু থাকা উচিত নয়।’
ভুল কিছু বলেননি পোর্টারফিল্ড। শুধু সহযোগী দেশ বলেই টেস্ট খেলুড়ে দলগুলোর বিপক্ষে নিয়মিত খেলার সুযোগ পায় না তারা। অথচ ক্রিকেটে আয়ারল্যান্ডের উত্থান ও অগ্রগতি ধারাবাহিক ও চোখে পড়ার মতো। ২০০৭ সালে বিশ্বকাপ মঞ্চে আবির্ভাবেই পাকিস্তান ও বাংলাদেশকে হারিয়ে চমকের শুরু। গত আসরে ইংল্যান্ডের ৩২৭ তাড়া করে পেয়েছিল আরেক ঐতিহাসিক জয়। এবার শুরুতেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ-বধ। কোনো মানদণ্ডেই আয়ারল্যান্ডের জয়কে অঘটন বলার উপায় নেই। বিশ্বকাপ ইতিহাসে তিনশ’র বেশি রান তাড়া করে জেতার যে পাঁচটি কীর্তি রয়েছে, তার তিনটিই আইরিশদের। এই বিশ্বকাপে রান তাড়া করে জেতার প্রথম কীর্তিও গড়ল তারা। টস হেরে ব্যাটিংয়ে নামা ওয়েস্ট ইন্ডিজকে শুরুতেই কাঁপিয়ে দিয়েছিল আয়ারল্যান্ড। ৮৭ রানে পাঁচ উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকা ক্যারিবীয়দের ৩০৪ রানের বড় পুঁজি এনে দেন লেন্ডল সিমন্স (১০২) ও ড্যারেন স্যামি (৮৯)। কিন্তু তাদের ১৫৪ রানের অনবদ্য জুটি আইরিশদের আত্মবিশ্বাস টলাতে পারেনি। ৩০৫ তাড়া করতে নেমে পল স্টার্লিং (৯২), এড জয়েস (৮৪) ও নেইল ও’ব্রায়েনের (৭৯*) দুরন্ত ব্যাটিংয়ে হেসেখেলেই জয় তুলে নেয় আয়ারল্যান্ড। (স্কোর কার্ড খেলার পাতায়)
 

প্রথম পাতার আরো খবর
৭ দিনের প্রধান শিরোনাম

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৮৪১৯২১১-৫, রিপোর্টিং : ৮৪১৯২২৮, বিজ্ঞাপন : ৮৪১৯২১৬, ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৭, সার্কুলেশন : ৮৪১৯২২৯। ফ্যাক্স : ৮৪১৯২১৮, ৮৪১৯২১৯, ৮৪১৯২২০

Developed by
close
close